শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

চাঁদের পিঠে বাঙালি বিজ্ঞানীর নাম!

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত : ১২:১৩ পিএম, ২৭ আগস্ট ২০১৯ মঙ্গলবার

ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর চন্দ্রযান-২ চাঁদের পিঠের বিভিন্ন স্থানের একাধিক বৃহৎ গহ্বরের (ক্রেটার) ছবি তুলে পাঠাচ্ছে। চন্দ্রযান ২’এর পাঠানো চাঁদের নতুন ছবি খুঁটিয়ে দেখা যাচ্ছে বাঙালি পদার্থ বিজ্ঞানী অধ্যাপক শিশির কুমার মিত্রের নাম। গহ্বরটির নাম ‘মিত্র ক্রেটার।’

চন্দ্রযানটির পাঠানো ছবিতে আরো কয়েকটি ক্রেটার দেখা যাচ্ছে। কোনোটার নাম জ্যাকসন, কোনোটা কোরোলেভ। তবে সবচেয়ে চমকপ্রদ পর্যবেক্ষণ, একটি ক্রেটারের গায়ে লেখা ‘মিত্র’। এই নামের নেপথ্য জানতে গিয়ে ইসরোর বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছেন, নামটি বাঙালি পদার্থবিজ্ঞানী পদ্মভূষণ প্রাপ্ত অধ্যাপক শিশিরকুমার মিত্র’র। তার নামেই চন্দ্রপৃষ্ঠের ওই অংশের নামকরণ করা হয়েছে।

ইসরো জানায়, ২২ জুলাই ভারতীয় সময় দুপুর ২টা ৪৩ মিনিটে অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটা থেকে চন্দ্রযান-২ উৎক্ষেপণ করা হয়। ২০ আগস্ট চন্দ্রযান-২ চাঁদের কক্ষপথে ঢুকে যায় এই চন্দ্রযান। ২২ আগস্ট এটি উপবৃত্তাকার কক্ষপথে সর্বোচ্চ ৪৪১২ এবং সর্বনিম্ন ১১৮ কিলোমিটার দূরত্বে প্রদক্ষিণ করতে শুরু করে। ২ সেপ্টেম্বর এটিকে চাঁদ থেকে ১০০ এবং ৩০ কিলোমিটার দূরত্বে নামিয়ে আনা হবে।

চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ৪ হাজার ৩৭৫ কিলোমিটার উচ্চতা থেকে, টেরেন ম্যাপিং ক্যামেরা-২’র সাহায্যে গহ্বরের ছবিগুলো তোলা হয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরো। এ দিন ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘জ্যাকসন নামের গহ্বরটি চাঁদের উত্তর গোলার্ধে অবস্থিত। সেটি ৭১ কিলোমিটার চওড়া। মিত্র নামের গহ্বরটি ৯২ কিলোমিটার চওড়া।’