ব্রেকিং:
তিন বছরে বাংলাদেশের সুন্দরবনে বাঘের সংখ্যা আটটি বেড়ে এখন ১১৪টি পরিবর্তন ছাড়াই ১৫ সদস্যে ভরসা বাংলাদেশের দেশে সর্বোচ্চ বিদ্যুৎ উৎপাদনের রেকর্ড ৮০ বছরের মধ্যেই সমুদ্রে তলিয়ে যাবে বাংলাদেশ! দেশকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত করেছে সরকার: পাটমন্ত্রী কোরআন অনুবাদ করতে গিয়ে মুসলমান হলেন ধর্ম যাজক ‘জাল’ প্রতিরোধে ১০০০ টাকার নতুন নোট নতুন চমক, দেশে চালু হচ্ছে বেকার ভাতা লক্ষ্যমাত্রার বেশি ধান কিনতে সুপারিশ শেখ হাসিনাকে বরণের অপেক্ষায় জাপান: রাষ্ট্রদূত নিরাপদ ঈদযাত্রায় যাত্রী কল্যাণ সমিতির ২০ প্রস্তাব চাল আমদানি নিয়ন্ত্রণ করা হবে: অর্থমন্ত্রী সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন-ভাতা ২৮ মে কবুতর দিয়ে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় ইয়াবা পাচার বাড়ল মোবাইল ব‌্যাংকিংয়ে লেনদেন সীমা শিগগিরই যোগ্য সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হবে: শিক্ষামন্ত্রী অধিক উৎপাদনের লক্ষ্যে একীভূত হচ্ছে ঘোড়াশাল ও পলাশ সার কারখানা শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিতে পাস ১ লাখ ৫২ হাজার দেশের প্রথম মহিলা কারাগারে স্থানান্তরিত হচ্ছেন খালেদা জিয়া! ঈদে ঘরমুখী যাত্রীদের ভোগান্তি কমবে: কাদের

বৃহস্পতিবার   ২৩ মে ২০১৯   জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪২৬   ১৮ রমজান ১৪৪০

সর্বশেষ:
আজ থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু রয়েল বেঙ্গল টাইগারের সংখ্যা জরিপের ফল আজ জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় সক্ষম হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী তরুণীকে খুশি করতে শিক্ষা উপমন্ত্রী সেজে ধরা যুবক সারেংয়ের দক্ষতায় অল্পের জন্য বাঁচলো এমভি গ্লোরি অব শ্রীনগর-২ লঞ্চের ২৫০ যাত্রীর প্রাণ।
৮২৬

৩৯ বছর বয়সে ৪৪ সন্তানের জন্ম দিলেন এই নারী

প্রকাশিত: ১৪ মে ২০১৯  

বয়স মাত্র ৩৯, তবে এর মধ্যেই ৪৪ সন্তানের জন্ম দিয়ে বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন উগান্ডার নারী ম্যারিয়ন নাবাতানজি। ফলে তাকে উগান্ডায় গর্ভধারণে সবচেয়ে সক্ষম নারীর খেতাব দিয়েছেন দেশটির চিকিৎসকরা। 

তিনি একসঙ্গে চার সন্তান, চারবার একসঙ্গে তিন সন্তান এবং ছয়বার যমজের জন্ম দিয়েছেন। এছাড়া একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এমন ঘটনাও ঘটেছে তিনবার।

বৃটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মিরর জানায়, মাত্র ১২ বছর বয়সে বিয়ে হয় ম্যারিয়নের। তখন তার স্বামীর বয়স ছিল ৪০ বছর। বিয়ের এক বছরের মাথায় যমজ সন্তানের জন্ম দেন তিনি। এরপর থেকে ম্যারিয়নের ২৩ বছর বয়স পর্যন্ত একে একে তার ঘরে আসে ২৫ সন্তান।  

আড়াই বছর আগে ম্যারিয়ন শেষ সন্তান প্রসব করেন। এ সময়ও তিনি জন্ম দেন যমজ। তবে প্রস্রবের জটিলতার কারণে তার এক সন্তানের মৃত্যু হয়। 

ম্যারিয়ন জানান, আমি ছয় সন্তানের মা হতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আমি চারবার মা হই এবং প্রত্যেকবারই যমজ সন্তানের জন্ম দিই। তবে আট সন্তান আমার চাওয়ার চেয়েও বেশি ছিল। তাই আমি হাসপাতালে গিয়ে ডাক্তারকে বলি, তিনি যেন আমার সন্তান জন্ম দেওয়া বন্ধ করে দেন। আমি জন্মনিরোধক ব্যবহারেরও চেষ্টা করেছি, কিন্তু সেগুলো কাজ করেনি। উল্টো ডাক্তারি পরীক্ষায় আমার হাইপাররোভ্যুলেশন নামে বিরল এক শারীরিক অবস্থা ধরে পড়ে। এটি এমন একটি অবস্থা যেখানে আক্রান্ত নারী যখনই মা হবেন তখন তিনি যমজ, তিন বা চারটি সন্তানের জন্ম দেবেন। 

তিনি আরো জানান, শেষ সন্তানের জন্মের পরই তার স্বামী তাকে ছেড়ে চলে যান। তখন থেকেই তার অনেক কষ্টে দিন কাটছে। সন্তানদের মুখে খাবার তুলে দিতে করতে হয়েছে বিভিন্ন ধরনের কাজ। তার বড় ছেলের নাম ইভান কিবুকা (২৩)। ছোট ছোট ভাই-বোনের মুখে খাবার জোটাতে তারও ছাড়তে হয়েছে পড়ালেখা, আর যোগ দিয়েছেন পরিবারের জন্য অর্থ উপার্জনে।    

দেখুন ভিডিও>>> 

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর