ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • রোববার   ০৭ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৪ ১৪২৭

  • || ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

২৩৯

হাত না ধুয়ে প্রবেশ নিষেধ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এই গ্রামে

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ৩১ মার্চ ২০২০  

হাত না ধুয়ে ও শরীরে ও গাড়িতে জীবাণুনাশক স্প্রে না করে প্রবেশ নিষিদ্ধ করলো ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নবীনগরের জালশুকা গ্রামে।

করোনা মহামারি থেকে সতর্ক থাকতে ও এটির সংক্রমণ ও বিস্তার রোধে এমন কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে সেই গ্রামের ‍যুবকরা।

সোমবার বিকালে এই সচেতনা ও করোনা বিরোধী কার্যক্রম চালুর আগে ২৪ মার্চ নিজেদের গ্রাম ও আশপাশের এলাকায় জীবাণুনাশক স্প্রে ছড়িয়েছে তারা।

যুবকদের একজন রেজাউল হক বুলু বলেন, গ্রামের ভেতর আসা-যাওয়ার সময় সবাই যেন জীবাণুমুক্ত হতে পারেন সেই জন্য এই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তাছাড়া হুট করে কেউ যেন গ্রামের ভেতর গাড়ি নিয়ে ঢুকে না পড়ে, সে জন্য বাঁশের ব্যারিকেড দেয়া হয়েছে। সেখানে নেমে গাড়ির যাত্রীরা নিজে ও গাড়ি জীবাণূমুক্ত করেই গ্রামে ঢুকবেন। মোট কথা গ্রামে যেন প্রাণঘাতী এই ভাইরাস ঢুকতে না পারে সেটাই আমাদের চেষ্টা।

বুলু আরও জানান, গ্রামে ৫ জন প্রবাসী রয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন ইতালি থেকে আসা। ইতালি আগত ব্যক্তি হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। বাকি ৪ জনের হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হলেও তারা অবাধে ঘোরাফেরা করছেন না।

গ্রামের প্রবেশ পথে দেখা যায় একটি বাঁশের ব্যারিকেড, তার পাশে একটি বেসিন। বেসিনের ওপর একটি হাত ধোয়া এবং শরীরে স্প্রে করার জীবাণুনাশক স্যানিটাইজার ভর্তি বোতল ও দুটি গাড়ি জীবাণুমুক্ত করার বোতল রাখা রয়েছে।

বেসিনের পাশেই সাঁটানো নোটিশ। তাতে লেখা আছে ‘প্রিয় গ্রামবাসী, আসসালামু আলাইকুম। একটি বিশেষ ঘোষণা। সবার অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনার আতঙ্কে সারা বিশ্ববাসী এখন আতঙ্কিত। তাই গ্রামের সর্বসাধারণ ভাই-বোনদের জানানো যাচ্ছে যে, আপনারা সবাই যার যার ঘরে অবস্থান করুন। অপ্রয়োজনে বাইরে ঘুরাঘুরি করবেন না। গ্রামের মূল রাস্তায় জীবাণুনাশক স্প্রে ব্যবস্থা করা হয়েছে। সুতরাং গ্রাম থেকে বের হওয়ার সময় ও প্রবেশের সময় জীবাণুনাশক স্প্রেটি ব্যবহার করুন। যদি কেউ গাড়ি নিয়ে আসা-যাওয়া করেন তবে উক্ত স্প্রে দিয়ে আপনার গাড়িটিও স্প্রে করবেন। উক্ত কাজটি নিজে করুন এবং অন্যকেও উৎসাহিত করুন।

বি. দ্র. উক্ত কাজটি করার ক্ষেত্রে কেউ যদি আপত্তি পোষণ করেন বা কারো সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন তার প্রতি আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। অতএব, নিজের জীবনকে মূল্যায়ন করুন, গ্রামকে ভাইরাস মুক্ত রাখুন।’

উল্লেখ্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-নবীনগর সড়ক থেকেই গ্রামে প্রবেশের এই সড়ক শুরু। ১৫০-২০০ ফুট এগিয়ে একটি বাংলো ঘর, ‘লালকুটির’। এর সামনে বসেই গ্রামে লোকজনের চলাচল নজরে রাখেন স্থানীয় যুবক সোহাগ, রিজেন, আলমগীর, মজিবুর, শুভন, রিয়াদ, দুলন, মামুন, জসিম, ক্যাডেট ইকরাম, রাজু, আরমান।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর