ব্রেকিং:
দুর্ধর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আটক সাংবাদিকতায় দেশ সেরা অ্যাওয়ার্ড পেলেন মিশু জেলা উন্নয়ন সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত বিষ প্রয়োগে সর্বশান্ত মৎস্য চাষী বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিবকে সংবর্ধনা পাঁচ দফা দাবিতে ফারিয়ার মানববন্ধন মসজিদের দেয়ালে ফাটল, আতঙ্কে মুসল্লিরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক উদ্ধার মাদক বিরোধী প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত মাদকসেবীর হুমকিতে স্কুলে যাওয়া বন্ধ শিক্ষার্থীর ফুটপাত দখলমুক্ত করলেন ইউএনও শারীরিক সক্ষম হলেই রক্তদান করবে শিক্ষার্থীরা একই তেলে বার বার রান্না ক্যান্সার ও হৃদরোগের কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার ওপর জোর দেয়ার তাগিদ তথ্যমন্ত্রীর মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিকে অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী নারীর মনে জায়গা পাওয়ার উপায় পানিতে পড়া ফোন যেভাবে দ্রুত সারিয়ে তুলবেন যে কারণে ‘সুদ’ হারাম উদ্বোধন হলো শেখ কামাল ক্লাব কাপ আওয়ামী লীগের সম্মেলন মানেই নতুন মুখ: কাদের

সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

১৩

‘সৌদিতে বাংলাদেশের ওষুধ-খাদ্য পণ্যের চাহিদা রয়েছে’

প্রকাশিত: ২ অক্টোবর ২০১৯  

বাংলাদেশের ওষুধ ও খাদ্য পণ্যের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে সৌদি আরবে। আগামী দিনে আরো বেশি ওষুধ ও খাদ্যপণ্য রফতানির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়ন সম্ভব হবে।

সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ রিয়াদে তিন দিনের ওষুধ, চিকিৎসা সরঞ্জামাদি ও খাদ্য পণ্যের এক মেলা পরিদর্শনের সময় এসব কথা বলেন।

মঙ্গলবার ঢাকায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রিয়াদের আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে গত ৩০ সেপ্টেম্বর মেলার উদ্বোধন করেন সৌদি আরবের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অথরিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. হিসাম আল-জাদে। মেলায় বাংলাদেশসহ ২০টি দেশের  ২০০টির বেশি  প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করে।

মেলা পরিদর্শনে রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ বলেন, সৌদি আরবের সঙ্গে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই মেলায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে সৌদি আরবের বাজারে বাংলাদেশের ওষুধ ও খাদ্য পণ্যের পরিচিতি বৃদ্ধি পাবে।

তিনি বলেন, সৌদি আরবে বাংলাদেশের তৈরি পোশাকেরও বিপুল চাহিদা রয়েছে, যা দিন দিন আরো বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি সৌদি আরবে রফতানি বৃদ্ধির লক্ষ্যে দূতাবাসের পক্ষ থেকে ব্যবসায়ীদের সব ধরনের সাহায্য সহযোগিতা করা হচ্ছে বলে জানান।

মেলায় প্রদর্শনীর পাশাপাশি বিভিন্ন বিষয়ে সেমিনারেরও আয়োজন করা হয়েছে। মেলা চলবে আগামী ২ অক্টোবর পর্যন্ত। 
বাংলাদেশের রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর সহযোগিতায় ও দূতাবাসের উদ্যোগে বিভিন্ন ওষুধ কোম্পানি ও মৎস্য প্রক্রিয়াজাতকরণ প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশগ্রহণ করে।

দূতাবাসের মিনিস্টার এসএম আনিসুল হক, ইকোনমিক মিনিস্টার মো. আবুল হাসান ও প্রথম সচিব (প্রেস) মো. ফখরুল ইসলাম রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে মেলা পরিদর্শন করেন।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর