ব্রেকিং:
শীতার্তদের পাশে সংবাদপত্র কর্মীরা স্বাস্থ্য সেবা হচ্ছে মানবতার প্রধান উৎস মাদকমুক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়তে ‘আলোর সিঁড়ি’র ব্যতিক্রমী উদ্যোগ কাদিয়ানিদের অমুসলিম ঘোষনার দাবিতে বিক্ষোভ মাদকাসক্ত স্বামীকে পুলিশে দিলেন স্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেন আগুন শেখ হাসিনা সড়কে ব্রিজের নির্মাণকাজ পরিদর্শন বিশ্ববিখ্যাত ইনটেলের চেয়ারম্যান হলেন বাংলাদেশি ওমর ইশরাক পবিত্র জুমাবারের সুন্নতগুলো জেনে নিন ছড়িয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাস, সৌদিতে ভারতীয় আক্রান্ত পাকিস্তানকে হারাতে আজ মাঠে নামবে টাইগাররা রোহিঙ্গা গণহত্যা: মিয়ানমারের বিরুদ্ধে চার আদেশ ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস আজ মাদরাসায় এক কেজি মুড়ির বিল ১৪ হাজার ৮৮০ টাকা! সেনাবাহিনীর শীতকালীন মহড়া প্রত্যক্ষ করেন প্রধানমন্ত্রী আজিজুল হকের মায়ের মৃত্যুতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের শোক সরকারি নির্মাণাধীন বাসগৃহ পরিদর্শন করেন ইউএনও মৎস্য ব্যবসায়ীদের বাজার বর্জন বাজার ব্যবস্থাপনা ও সংস্কার কাজ পরিদর্শন আকস্মিক কলেজ পরিদর্শনে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী

শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১১ ১৪২৬   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

৭০

সেচ প্রকল্প নিয়ে সংঘর্ষে আহত শতাধিক

প্রকাশিত: ৭ জানুয়ারি ২০২০  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে সেচ প্রকল্প নিয়ে বিরোধের জেরে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে পুলিশসহ শতাধিক লোক আহত হয়েছেন।  

সোমবার সকালে উপজেলার হরষপুর ইউপির পাইকপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ১০-১২টি বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়।

আহতরা হলেন- এএসআই মো. অলিউল্লাহ, কনস্টেবল মো. মেহেদী, মো. সাইফুল, পাইকপাড়া গ্রামের আলাউদ্দিন, রাজু, রুহুল আমিন, আবুল কাশেম, রানা, চৌধুরী, লোকমান, হোসাইন, মোহাম্মদ আলী, আবুল খায়ের, তাফাজ্জল, রাশেদ, আবুল কাশেম, আবুল বাসার, আলাউদ্দিন, দেলোয়ার, হৃদয় সরকারসহ ৮০ জন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি ও প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। বাকিদের বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

ইউপি সদস্য মো. আবুল কাশেম জানান, পাইকপাড়া গ্রামের সেচ প্রকল্পটি দীর্ঘদিন ধরে চাঁন মিয়া গ্রুপের মো. কাউছার চালাতেন। এ বছর রাজু মিয়া সেচ প্রকল্পটি চালানোর দাবি করলে কাউছারের সঙ্গে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এ নিয়ে ৩ জানুয়ারি উভয় পক্ষের মধ্যে মারামারি হয়। সে ঘটনাকে কেন্দ্র করেই সোমবার ফের সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের শতাধিক আহত হন।

বিজয়নগর থানার ওসি মো. আতিকুর রহমান বলেন, পুলিশ গিয়ে ব্যাপক লাঠিচার্জ, টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। ঘটনাস্থল থেকে কমপক্ষে ১৫ জনকে আটক করা হয়েছে।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর