ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • রোববার   ০৫ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২১ ১৪২৭

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪১

৩৬৯

সরকারি জায়গায় প্রভাবশালীদের মাটি কর্তনে হুমকির মুখে সড়ক-সেতু

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ১২ মার্চ ২০২০  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল-নাসিরনগর-লাখাই আঞ্চলিক সড়কের পাশে সরাইল উপজেলার কালিকচ্ছ ইউনিয়নের ধরন্তি হাওর এলাকায় সরকারি জায়গায় বেকু মেশিনে মাটি কাটছে স্থানীয় প্রভাবশালী লোকেরা। এতে জনগুরুত্বপূর্ণ সড়ক ও পাশের একটি সেতু হুমকি মুখে।

মঙ্গলবার (১০ মার্চ) দুপুরে সরেজমিন দেখা যায়, হাওর এলাকায় সড়কের পাশে সড়ক ও জনপথ বিভাগের জায়গায় বেকু মেশিনে মাটি কেটে বড় গর্তের সৃষ্টি করা হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, ধরন্তি গ্রামের খাদিম হোসেনসহ কয়েকজন মিলে এখানে বেকু মেশিনে মাটি কাটছেন গত তিন দিন যাবত। এতে কৃষি জমির ক্ষতি করছেন তারা।

এদিকে সরকারি জায়গা থেকে বেকু মেশিনে মাটি কাটার খবর পেয়ে মঙ্গলবার দুপুরের পর ঘটনাস্থলে যান কালিকচ্ছ ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) স্যারের নির্দেশে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে বেকু মেশিনে মাটি কাটার সত্যতা পাই। মাটি কাটার কাজ আমি বন্ধ করে দিয়ে এসেছি। তিনি বলেন, যে স্থানে তারা বেকু মেশিনে মাটি কাটছে, সেই জায়গাটি সড়ক বিভাগের। আর যেখানে মাটি ফেলা হচ্ছে তা ব্যক্তি মালিকানা।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফারজানা প্রিয়াংকা বলেন, খবর পেয়ে আমি সঙ্গে সঙ্গে লোক পাঠিয়ে সেই মাটি কাটার কাজ বন্ধ করে দিয়েছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এস এম মোসা জানান, এভাবে সরকারি জায়গায় মাটি কাটা সম্পূর্ণ অবৈধ। এ ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর