ব্রেকিং:
টিউশনির টাকায় গুজবের বিরুদ্ধে ৩১ দিন হাঁটলেন সাইফুল কন্ডিশনিং ক্যাম্পেই যাত্রা শুরু নতুন দুই কোচের প্রথম সমকামী ক্রিকেটার হিসেবে মা হচ্ছেন স্যাটারওয়েট তারেকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি কাদেরের স্মার্ট কার্ড অনলাইনে সংশোধন করবেন যেভাবে একজনের কিডনি ও লিভারে বাঁচলো তিনজনের প্রাণ পিতলের পুতুলকে সোনার মূর্তি বলে বিক্রি করে, চার জীনের বাদশা আটক বাংলাদেশ ও ইন্দোনেশিয়ার সেনাপ্রধানদের সৌজন্য সাক্ষাৎ প্রধানমন্ত্রীকে ভারত সফরে মোদির আমন্ত্রণ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার মান নিশ্চিত করতে হবে: রাষ্ট্রপতি আজ ভয়াল ২১ আগস্ট পানিবণ্টন সমস্যার সমাধান হবে: জয়শঙ্কর কুকুরের মুখ থেকে নবজাতককে বাঁচালেন পুলিশ কর্মকর্তা রক্তদানে সবাইকে এগিয়ে আসা উচিত: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নয় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালনের আগ্রহ প্রকাশ ভারতের মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা ৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ‘গাঙচিল’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী কমছে মিন্নির দোষ স্বীকার নিয়ে এসপির মন্তব্য জানতে চান হাইকোর্ট

বৃহস্পতিবার   ২২ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৬ ১৪২৬   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

১১০৭

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণ আবশ্যক: খাদ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

বর্তমান প্রজন্মের মধ্যে ভাষা আন্দোলনের মর্ম ছড়িয়ে দেয়ার জন্য প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণ করা অত্যাবশকীয় বলে মন্তব্য করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় পরিচালিত হওয়া বর্তমান সরকারের নানা উদ্যোগের ফলে বাংলাদেশের মানুষের চেতনায় ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ, দেশপ্রেম ও দেশীয় সংস্কৃতি চর্চ্চা বৃদ্ধি পেয়েছে। 

শনিবার বিকেলে জেলার নিয়ামতপুর উপজেলা পরিষদ চত্বরে শহীদ মিনার নির্মাণ কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, ভাষা আন্দোলনের চেতনা থেকেই বাঙালির হৃদয়ে স্বাধীনতার তাগিদ অনুভূত হয়েছে। তাই আমাদের জাতীয় চেতনায় ভাষা আন্দোলনের গুরুত্ব অপরিসীম। পৃথিবীতে একমাত্র বাঙালি জাতিকে তাদের ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষার জন্য রক্ত দিতে হয়েছে। 

খাদ্যমন্ত্রী আরো বলেন, বাঙালির ভাষা দিবস এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শীতার কারণে ২১ ফেব্রুয়ারি আমাদের ভাষা দিবসের গুরুত্ব ও তাৎপর্য আন্তর্জাতিক মহলে নাড়া দিতে সক্ষম হয়েছে। 

তিনি বলেন, যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নেই, সেখানে শহীদ মিনার স্থাপন করা হবে। সেক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের আর্থিক সংগতি না থাকলে টিআর এর অর্থে সেসব স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসায় শহীদ মিনার তৈরি করা হবে। 

অনুষ্ঠানে নিয়ামতপুরের ইউএনও আবু সালেহ মাহফুজুল আলম সভাপতিত্ব করেন। এতে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কামাল হোসেন, নিয়ামতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এনামুল হকসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতারা বক্তব্য রাখেন। 

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর