ব্রেকিং:
বন্যাদুর্গতদের পুনর্বাসনে রয়েছে ১২০ কোটি টাকা বরাদ্দ ঘুষদাতার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী হুজুর সেজে ধর্ষককে ধরলেন পুলিশ কর্মকর্তা বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলা, নিহত বেড়ে ৬৩ ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইনের রমণীদের পছন্দ বাংলাদেশি ছেলে রোহিঙ্গা নির্যাতন তদন্তে ঢাকায় মিয়ানমারের তদন্ত দল ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ টাইগারদের হেড কোচ হলেন রাসেল ডমিঙ্গো ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’ স্মার্টকার্ড পাবে ছয় বছরের শিশুও! হাঁসে হাসি-খুশির সংসার ‘বিশ্ববন্ধু’ উপাধি পেলেন বঙ্গবন্ধু ল্যান্ড ফোনের মাসিক লাইন রেন্ট বাতিল প্রসব বেদনা নিয়েই ছয় কিলোমিটার হাঁটলেন কাশ্মীরি মা সাড়ে ৩ হাজার রোহিঙ্গা ফিরিয়ে নিচ্ছে মিয়ানমার ‘ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করলেও তার আদর্শের মৃত্যু ঘটাতে পারেনি’ শনিবার থেকে কাঁচা চামড়া কিনবেন ট্যানারি মালিকরা আখাউড়ায় তিতাস ব্রিজে দর্শনার্থীদের ভীড় ডেঙ্গু প্রতিরোধে ছুটি শেষে বাসায় ফিরে যা করবেন ঈদ আনন্দে বিনোদন কেন্দ্রগুলো মুখরিত

রোববার   ১৮ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৩ ১৪২৬   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

৯৭৭

লিচুতে সয়লাব বাজার

প্রকাশিত: ২৪ মে ২০১৯  

ব্রাহ্মবাড়িয়ার আখাউড়া-বিজয়নগরে হয়েছে বাণিজ্যিক লিচু চাষ। আর এসব লিচু বাজারে সয়লাব হওয়ায় চারদিকে ছড়াচ্ছে মিষ্টি গন্ধ। এতে ভীড় করছেন ব্যবসায়ীসহ ক্রেতা সাধারণ।
দুই উপজেলার ১০ টি ইউপির অর্ধশতাধিক গ্রামে লিচু বাগান করেছেন সবাই। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এসব লিচু আখাউড়ার আজমপুর, রামধননগর, চানপুর, দুর্গাপুর, খারকোট, মিনারকোট, নিলাখাত, বিজয়নগরের আওলিয়া বাজার, মুকুন্দপুরসহ বেশ কয়েকটি গ্রামের বাজারে ঠাসা অবস্থায় লিচু দেখা গেছে।
চাষি নজু মিয়া, ফিরোজ ও লোকমান হোসেন বলেন, মৌসুমের শুরুতে অতিরিক্ত বৃষ্টি ও কালবৈশাখী ঝড়ে সামান্য ক্ষতি হলেও ফলন ভাল হয়েছে। বাজারে আকার বেধে প্রতি হাজার লিচু ১৮০০ থেকে ২৩০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। এখানে দেশীয়, চাইনা, পাটনাই ও বোম্বাই জাতের লিচু বেশ চাষ হয়। এ লিচুর উৎপাদন বেশি ও পোকা মাকড়ের আক্রমণ তুলনামূলক কম।
বাগান মালিক মো. হোসেন মিয়া বলেন, তিনটি বাগানে ছোট-বড় মিলে ৭৫ টি লিচুর গাছ রয়েছে। অতিরিক্ত বৃষ্টি ও কালবৈশাখী ঝড়ে কিছু ক্ষতি হলেও ফলন ভাল হয়েছে। স্থানীয় বাজারে ভাল দাম পাওয়া যাচ্ছে। এ পর্যন্ত ১৮ হাজার টাকার লিচু বিক্রি করেছি। শেষ পযর্ন্ত এক লাখ টাকার বেশি লিচু বিক্রি করতে পারব।
ভৈররের ব্যবসায়ী আলী হোসেন, যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো থাকায় পাঁচ বছর ধরে আওলিয়া বাজার ও আখাউড়া থেকে লিচু কিনে ভৈরবে বিক্রি করছি। প্রতিদিন গড়ে ৪০-৫০ হাজার টাকার লিচু কিনে বাজারে বিক্রি করি।
আখাউড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো.একরাম হোসেন বলেন, দুটি উপজেলায় লিচু উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল চারশত হেক্টর জমি। আবহাওয়া অনুকুল ও পরিচর্যার কারণে চলতি মৌসুমে লিচুর বাম্পার ফলন হয়েছে। ফলন ভালো করতে চাষিদের সর্বাত্বক পরামর্শ দেয়া হয়।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর