ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • বুধবার   ০৮ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৪ ১৪২৭

  • || ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪১

১২২৫

লিচুতে সয়লাব বাজার

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ২৪ মে ২০১৯  

ব্রাহ্মবাড়িয়ার আখাউড়া-বিজয়নগরে হয়েছে বাণিজ্যিক লিচু চাষ। আর এসব লিচু বাজারে সয়লাব হওয়ায় চারদিকে ছড়াচ্ছে মিষ্টি গন্ধ। এতে ভীড় করছেন ব্যবসায়ীসহ ক্রেতা সাধারণ।
দুই উপজেলার ১০ টি ইউপির অর্ধশতাধিক গ্রামে লিচু বাগান করেছেন সবাই। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এসব লিচু আখাউড়ার আজমপুর, রামধননগর, চানপুর, দুর্গাপুর, খারকোট, মিনারকোট, নিলাখাত, বিজয়নগরের আওলিয়া বাজার, মুকুন্দপুরসহ বেশ কয়েকটি গ্রামের বাজারে ঠাসা অবস্থায় লিচু দেখা গেছে।
চাষি নজু মিয়া, ফিরোজ ও লোকমান হোসেন বলেন, মৌসুমের শুরুতে অতিরিক্ত বৃষ্টি ও কালবৈশাখী ঝড়ে সামান্য ক্ষতি হলেও ফলন ভাল হয়েছে। বাজারে আকার বেধে প্রতি হাজার লিচু ১৮০০ থেকে ২৩০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। এখানে দেশীয়, চাইনা, পাটনাই ও বোম্বাই জাতের লিচু বেশ চাষ হয়। এ লিচুর উৎপাদন বেশি ও পোকা মাকড়ের আক্রমণ তুলনামূলক কম।
বাগান মালিক মো. হোসেন মিয়া বলেন, তিনটি বাগানে ছোট-বড় মিলে ৭৫ টি লিচুর গাছ রয়েছে। অতিরিক্ত বৃষ্টি ও কালবৈশাখী ঝড়ে কিছু ক্ষতি হলেও ফলন ভাল হয়েছে। স্থানীয় বাজারে ভাল দাম পাওয়া যাচ্ছে। এ পর্যন্ত ১৮ হাজার টাকার লিচু বিক্রি করেছি। শেষ পযর্ন্ত এক লাখ টাকার বেশি লিচু বিক্রি করতে পারব।
ভৈররের ব্যবসায়ী আলী হোসেন, যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো থাকায় পাঁচ বছর ধরে আওলিয়া বাজার ও আখাউড়া থেকে লিচু কিনে ভৈরবে বিক্রি করছি। প্রতিদিন গড়ে ৪০-৫০ হাজার টাকার লিচু কিনে বাজারে বিক্রি করি।
আখাউড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো.একরাম হোসেন বলেন, দুটি উপজেলায় লিচু উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল চারশত হেক্টর জমি। আবহাওয়া অনুকুল ও পরিচর্যার কারণে চলতি মৌসুমে লিচুর বাম্পার ফলন হয়েছে। ফলন ভালো করতে চাষিদের সর্বাত্বক পরামর্শ দেয়া হয়।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর