ব্রেকিং:
পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষনা ২৬ অক্টোবর গ্রাহক সেবায় পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির উঠান বৈঠক ওসির হাতে রজনীগন্ধা চালকের মুখে হাসি দালাল নির্মূলে জেলা প্রশাসনের বিশেষ অভিযান অজ্ঞাত ব্যক্তির অর্ধ-গলিত লাশ উদ্ধার ৪ কেজি চালের দামে ১ কেজি পেঁয়াজ! মিড ডে মিলের টিফিন বক্স বিতরণ ড্রেজার ব্যবহারে হুমকীর মুখে মহাসড়ক নারীদের স্বাবলম্বী করতে ছাগল বিতরণ ‘জীবনের আগে জীবিকা নয়, সড়ক দূর্ঘটনা আর নয়’ হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ ট্রাফিক সেবায় নতুন মাত্রা যোগ ওটিটি প্লাটফর্ম ব্লেসবিট তৈরির স্বীকৃতি পেল টিকন বাঘের দেশের সমুদ্র সৈকত শিশুদের কৃমি হবার কারণ, লক্ষণ ও প্রতিরোধে করণীয় এক মিনিটেই খোলা যাবে ‘নগদ’ অ্যাকাউন্ট কেটে গেছে? জেনে নিন রক্তপাত বন্ধের সহজ উপায় মানসিক অসুস্থ আব্দুল্লাহ মুখস্ত করলেন পুরো কোরআন! (ভিডিও) মুখোমুখি ক্রিকেটার-বিসিবি, লাভ কার? সুস্মিতা সেন আজ ঢাকায় আসছেন

বৃহস্পতিবার   ২৪ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৮ ১৪২৬   ২৪ সফর ১৪৪১

৭৯৭

রক্তদান বা গ্রহণের ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো জানা থাকতে হবে

প্রকাশিত: ২৫ জুলাই ২০১৯  

সময় এখন পাল্টেছে। তা না হলে, আগে এক ব্যাগ রক্তের জন্য জাতীয় গণমাধ্যম টেলিভিশনেও জরুরি বিজ্ঞপ্তি দিতে হতো। আরো কতো কি! আর এখন ফেসবুকে একটি পোস্ট। ব্যাস, হয়ে গেলো। 

রক্তদান একটি সহজ ও সাধারণ বিষয় কিন্তু এর গুরুত্ব নিঃসন্দেহে বহু বেশি। রক্তদানের ফলে রক্তদাতার শারীরিক কোনো ক্ষতি হয় না। 

তবে রক্তদান নিয়ে আমাদের দেশে অনেকের মাঝে বেশ কিছু মিথ বা ভ্রান্ত ধারণা প্রচলিত আছে। এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা বলেন, এটি শারীরিক কোনো ক্ষতি করে না।

এদিকে রক্তদাতার পরিমাণ যেমন বেড়েছে, এর সচেতনতার বিষয়গুলো জানাও জরুরি হয়ে পড়েছে। চলুন, রক্তদান বা গ্রহণ করতে গেলে যে বিষয়গুলো মাথায় রাখতে হবে সেগুলো জেনে নেই-

রক্তদানের ক্ষেত্রে  
•    রক্তের লোহিত কণিকার আয়ু থাকে ১২০ দিন। অর্থাৎ রক্ত না দিলেও ১২০ দিন পর লোহিত কণিকা স্বাভাবিকভাবে মরে যায়। 
•    একজন সুস্থ, সবল, নীরোগ মানুষ প্রতি চার মাস অন্তর রক্ত দিতে পারেন।
•    যে ব্যক্তি রক্তদান করবে তাকে শারীরিকভাবে সুস্থ হতে হবে।
•    রক্তদাতার বয়স কমপক্ষে ১৮ বছর।
•    রক্তদানকারীর ওজন কমপক্ষে ১১০ পাউন্ড হতে হবে।
•    রক্তচাপের দিকে লক্ষ্য রাখা দরকার। খুব বেশি বা খুব কম কোনটিই রক্তদানের জন্য উপযুক্ত নয়।
•    কোনো রোগের জন্য অ্যান্টিবায়োটিক গ্রহণ করলে সেই দিনগুলোতে রক্তদান না করা ভালো।
•    নারীরা মাসিক চলাকালীন বা গর্ভাবস্থায় রক্তদান করতে পারবেন না 
•    শরীরে হিমোগ্লোবিন কম থাকলেও রক্ত দেয়া যাবে না। 

রক্তদানের পর 
•    কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিতে হবে।
•    দুই গ্লাস পানি বা জুস খেলে রক্তের জলীয় অংশটুকু পূরণ হয়ে যায়। 
•    স্বাভাবিক কাজকর্মে কোনো বিধি-নিষেধ নেই।

আমাদের দেশে রক্তদানকারী নানা সংগঠন রয়েছে। এছাড়া কারো রক্তের প্রয়োজন হলে বা নিজে রক্ত দিতে চাইলে সন্ধানী, বাঁধন, আই ব্লাড নেটওয়ার্ক ছাড়াও অনলাইনে বেশ কিছু ব্লাড ডোনার গ্রুপ রয়েছে। সেখানে যোগাযোগ করতে পারেন। 

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর