ব্রেকিং:
শীতার্তদের পাশে সংবাদপত্র কর্মীরা স্বাস্থ্য সেবা হচ্ছে মানবতার প্রধান উৎস মাদকমুক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়তে ‘আলোর সিঁড়ি’র ব্যতিক্রমী উদ্যোগ কাদিয়ানিদের অমুসলিম ঘোষনার দাবিতে বিক্ষোভ মাদকাসক্ত স্বামীকে পুলিশে দিলেন স্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেন আগুন শেখ হাসিনা সড়কে ব্রিজের নির্মাণকাজ পরিদর্শন বিশ্ববিখ্যাত ইনটেলের চেয়ারম্যান হলেন বাংলাদেশি ওমর ইশরাক পবিত্র জুমাবারের সুন্নতগুলো জেনে নিন ছড়িয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাস, সৌদিতে ভারতীয় আক্রান্ত পাকিস্তানকে হারাতে আজ মাঠে নামবে টাইগাররা রোহিঙ্গা গণহত্যা: মিয়ানমারের বিরুদ্ধে চার আদেশ ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস আজ মাদরাসায় এক কেজি মুড়ির বিল ১৪ হাজার ৮৮০ টাকা! সেনাবাহিনীর শীতকালীন মহড়া প্রত্যক্ষ করেন প্রধানমন্ত্রী আজিজুল হকের মায়ের মৃত্যুতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের শোক সরকারি নির্মাণাধীন বাসগৃহ পরিদর্শন করেন ইউএনও মৎস্য ব্যবসায়ীদের বাজার বর্জন বাজার ব্যবস্থাপনা ও সংস্কার কাজ পরিদর্শন আকস্মিক কলেজ পরিদর্শনে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী

শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১১ ১৪২৬   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

১৫৭৯

মোটরসাইকেলে ঘুচল বেকারত্ব

প্রকাশিত: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

উচ্চ শিক্ষাগ্রহণ করে খালি হাতে বসে নেই সুনামগঞ্জের ১১ উপজেলার ২০ হাজার যুবক। বেকারত্বের অভিশাপ থেকে মুক্তি পেতে চালাচ্ছেন মোটরসাইকেল। এতে আয়ও হচ্ছে বেশ ভালো।

জেলার সব উপজেলার প্রত্যান্ত অঞ্চলে বর্ষা মৌসুমে নৌকা ও শুষ্ক মৌসুমে মোটরসাইকেল চলে। এর বেশির ভাগ চালক যুবক। এর মধ্যে তাহিরপুরের অঞ্চলে মানুষ হাঁটার বদলে মোটরসাইকেল ব্যবহারে স্বাচ্ছন্দবোধ করছে। তাহিরপুর ছাড়াও বিশ্বম্ভরপুর, জামালগঞ্জ, মধ্যনগর, ধর্মপাশা, দিরাই, শাল্লা উপজেলার প্রত্যান্ত অঞ্চলে যাত্রীবাহী গাড়ি চলাচল করে না। এতে বিকল্প বাহন হিসেবে মোটরসাইকেল দেখা যায়।   

তাহিরপুরের বীরনগড় গ্রামের মোটরসাইকেল চালক সবুজ মিয়া বলেন, প্রতিদিন সকাল থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালিয়ে খরচ শেষে ৪০০-৫০০ টাকা আয় হয়। কোনদিন এক হাজার টাকাও আয় করতে পারি। রাজনৈতিক মিছিলে মোটরসাইকেল চালকদের গুরুত্ব বেড়ে যায়।

মোটরসাইকেল চালক আবুল হোসেন বলেন, সারাদিন আয়ের টাকা সঞ্চয় করে অনেকে একাধিক মোটরসাইকেলের মালিক হয়েছেন। গ্রাম-গঞ্জে মোটরসাইকেল চালিয়ে আয়ের টাকায় পরিবার নিয়ে সুখেই আছি।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল বলেন, মোটরসাইকেল চালকরা সরকারি চাকরির আশায় না বসে সৎভাবে আয় করছে। এমন উদ্যোগ প্রশংসার যোগ্য।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর