ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • সোমবার   ০১ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৯ ১৪২৭

  • || ০৯ শাওয়াল ১৪৪১

১৪৯

মাহির বিরুদ্ধে ‘টাকা হাতিয়ে’ নেয়ার অভিযোগ পরিচালকের

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০১৯  

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। এবার তার বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর অভিযোগ তুলেছেন ‘অবতার’ সিনেমার পরিচালক মাহমুদ হাসান শিকদার। তার পরিচালিত সিনেমায় মাহি বাড়তি ‘টাকা হাতিয়ে’ নেয়ার অভিযোগ করেছেন।

এই প্রসঙ্গে পরিচালক মাহমুদ শিদার বলেন, মাহি ‘ঢ্যাকা অ্যাটাক’ ছবিতে যে পোশাক পরে একটি গানে অংশ নেন, সেই পোশাকটি পরেই ‘অবতার’ সিনেমার গানেও অংশ নেন। অথচ এই পুরানো ড্রেসের জন্য তিনি আমার কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা নেন। এমনকি এই সিনেমায় পুরনো পোশাক নতুন বলে চালিয়ে কয়েক লাখ টাকা হাতিয়ে নেন মাহি। পরবর্তীতে পোশাকগুলো ফেরতও দেননি তিনি।

তবে ওই সময় প্রতিবাদ করেননি কেন? এমন উত্তরে পরিচালক বলেন, মাহি শুটিং বন্ধ করে দিতে পারে, সেই ভয়ে প্রতিবাদ করিনি।

অভিযোগে মাহমুদ শিদার আরো বলেন, মাহি আমাকে পোশাক রেডি করার আগেই আগাম বাজেট দেন। তিনটি পোশাকের জন্য তিনি মোট ৭৫ হাজার টাকা নেন। মূলত এটি তার বাড়তি আয়ের রাস্তা।

পরিচালক দাবি করেন, শুটিংয়ের সময় মাহি যে পোশাকগুলো পড়েছেন, তার একটি ছেঁড়া ছিল এবং এটি ‘ঢ্যাকা অ্যাটাক’ ছবির পোশাক ছিল। তবে সে বাধ্য করেছেন টাকা দিতে। শুধু পোশাকই নয় যাতায়াত ভাতা’সহ নানা ইস্যুতে পরিচালক ও প্রযোজককে জিম্মি করেন মাহি।

পরিচালকের দাবি, শুটিংয়ের সময় তিনি (মাহি) উওরা থেকে আশুলিয়া যেতে কনভেন্স নিয়েছেন ৪ হাজার টাকা, মানিকগঞ্জ যেতে নিয়েছেন ৮ হাজার টাকা। অথচ ছবিটি মুক্তির সময় দেখাই মিলেনি মাহিয়া মাহির।

মাহমুদ শিকদার আক্ষেপ করে আরো জানান, প্রচারের সময় মাহির সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোনটি রিসিভ করেননি। মাহি যদি প্রচারণায় আসতেন, তাহলে ছবিটির রেসপন্স ভালো পাওয়া যেত।

এদিকে পরিচালকের অভিযোগ বিষয়ে মাহি বলেন, পরিচালক যদি তার অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেন, তাহলে পোশাকের টাকা ফেরত দেব। তার সাথে যে চুক্তি হয়েছে, সে অনুযায়ী আমি কাজ করেছি। চুক্তির সময় যাবতীয় বিষয়গুলো উল্লেখ ছিল। এখন যদি অভিযোগ আনে, তাহলে আমার কিছু বলার নেই।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
বিনোদন বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর