ব্রেকিং:
সুষ্ঠু ও নকলমুক্ত পরিবেশে জেএসসি পরীক্ষা সম্পন্ন দিপা হত্যার রহস্য উদঘাটন ট্রেন দুর্ঘটনায় অনেকের দোষ পেয়েছে তদন্ত কমিটি নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরগণের দায়িত্ব গ্রহণ লাগামহীন পেঁয়াজের বাজার ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু ঝুঁকিপূর্ণ সিলেট-আখাউড়া রেলপথ! কোরআন-হাদিসে জুমা’র গুরুত্ব ও তাৎপর্য যুবলীগের বয়সসীমা শিথিলের সম্ভাবনা নেই পেঁয়াজ ছাড়া রান্না করার উপায় রেসলার ও হলিউড অভিনেতা রক মারা গেছেন! রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্তে অনুমোদন দিলো আইসিসি কক্সবাজার বিমানবন্দর উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক বরখাস্ত রোহিঙ্গার শপিং ব্যাগে মিলল ৪৯ লাখ টাকার ইয়াবা ‘জঙ্গি দমনে পুলিশের ভূমিকা ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে’ ট্রেন দুর্ঘটনার সাহসী সেই পাঁচ যুবক সন্তানের মা হলেন সেই প্রতিবন্ধী ধর্ষিতা পাল্টে গেছে সরাইল বিশ্বরোড মোড়ের দৃশ্যপট! নিয়মিত হাঁটুন সুস্থ থাকুন! ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণে কাতারে দোয়া মাহফিল

শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ১ ১৪২৬   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

৩৫

মাহির বিরুদ্ধে ‘টাকা হাতিয়ে’ নেয়ার অভিযোগ পরিচালকের

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০১৯  

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। এবার তার বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর অভিযোগ তুলেছেন ‘অবতার’ সিনেমার পরিচালক মাহমুদ হাসান শিকদার। তার পরিচালিত সিনেমায় মাহি বাড়তি ‘টাকা হাতিয়ে’ নেয়ার অভিযোগ করেছেন।

এই প্রসঙ্গে পরিচালক মাহমুদ শিদার বলেন, মাহি ‘ঢ্যাকা অ্যাটাক’ ছবিতে যে পোশাক পরে একটি গানে অংশ নেন, সেই পোশাকটি পরেই ‘অবতার’ সিনেমার গানেও অংশ নেন। অথচ এই পুরানো ড্রেসের জন্য তিনি আমার কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা নেন। এমনকি এই সিনেমায় পুরনো পোশাক নতুন বলে চালিয়ে কয়েক লাখ টাকা হাতিয়ে নেন মাহি। পরবর্তীতে পোশাকগুলো ফেরতও দেননি তিনি।

তবে ওই সময় প্রতিবাদ করেননি কেন? এমন উত্তরে পরিচালক বলেন, মাহি শুটিং বন্ধ করে দিতে পারে, সেই ভয়ে প্রতিবাদ করিনি।

অভিযোগে মাহমুদ শিদার আরো বলেন, মাহি আমাকে পোশাক রেডি করার আগেই আগাম বাজেট দেন। তিনটি পোশাকের জন্য তিনি মোট ৭৫ হাজার টাকা নেন। মূলত এটি তার বাড়তি আয়ের রাস্তা।

পরিচালক দাবি করেন, শুটিংয়ের সময় মাহি যে পোশাকগুলো পড়েছেন, তার একটি ছেঁড়া ছিল এবং এটি ‘ঢ্যাকা অ্যাটাক’ ছবির পোশাক ছিল। তবে সে বাধ্য করেছেন টাকা দিতে। শুধু পোশাকই নয় যাতায়াত ভাতা’সহ নানা ইস্যুতে পরিচালক ও প্রযোজককে জিম্মি করেন মাহি।

পরিচালকের দাবি, শুটিংয়ের সময় তিনি (মাহি) উওরা থেকে আশুলিয়া যেতে কনভেন্স নিয়েছেন ৪ হাজার টাকা, মানিকগঞ্জ যেতে নিয়েছেন ৮ হাজার টাকা। অথচ ছবিটি মুক্তির সময় দেখাই মিলেনি মাহিয়া মাহির।

মাহমুদ শিকদার আক্ষেপ করে আরো জানান, প্রচারের সময় মাহির সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোনটি রিসিভ করেননি। মাহি যদি প্রচারণায় আসতেন, তাহলে ছবিটির রেসপন্স ভালো পাওয়া যেত।

এদিকে পরিচালকের অভিযোগ বিষয়ে মাহি বলেন, পরিচালক যদি তার অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেন, তাহলে পোশাকের টাকা ফেরত দেব। তার সাথে যে চুক্তি হয়েছে, সে অনুযায়ী আমি কাজ করেছি। চুক্তির সময় যাবতীয় বিষয়গুলো উল্লেখ ছিল। এখন যদি অভিযোগ আনে, তাহলে আমার কিছু বলার নেই।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর