ব্রেকিং:
সুষ্ঠু ও নকলমুক্ত পরিবেশে জেএসসি পরীক্ষা সম্পন্ন দিপা হত্যার রহস্য উদঘাটন ট্রেন দুর্ঘটনায় অনেকের দোষ পেয়েছে তদন্ত কমিটি নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরগণের দায়িত্ব গ্রহণ লাগামহীন পেঁয়াজের বাজার ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু ঝুঁকিপূর্ণ সিলেট-আখাউড়া রেলপথ! কোরআন-হাদিসে জুমা’র গুরুত্ব ও তাৎপর্য যুবলীগের বয়সসীমা শিথিলের সম্ভাবনা নেই পেঁয়াজ ছাড়া রান্না করার উপায় রেসলার ও হলিউড অভিনেতা রক মারা গেছেন! রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্তে অনুমোদন দিলো আইসিসি কক্সবাজার বিমানবন্দর উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক বরখাস্ত রোহিঙ্গার শপিং ব্যাগে মিলল ৪৯ লাখ টাকার ইয়াবা ‘জঙ্গি দমনে পুলিশের ভূমিকা ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে’ ট্রেন দুর্ঘটনার সাহসী সেই পাঁচ যুবক সন্তানের মা হলেন সেই প্রতিবন্ধী ধর্ষিতা পাল্টে গেছে সরাইল বিশ্বরোড মোড়ের দৃশ্যপট! নিয়মিত হাঁটুন সুস্থ থাকুন! ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণে কাতারে দোয়া মাহফিল

শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ১ ১৪২৬   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

৮২

ভাড়ায় প্রাইভেট কার-মাইক্রোবাস থেকে সাবধান!

প্রকাশিত: ১ নভেম্বর ২০১৯  

প্রাইভেট কার-মাইক্রোবাস থামিয়ে যাত্রী ডাকছে চালক-রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ অনেক সড়কেই দেখা যায় এমন চিত্র। স্বল্প সময়ে ও কম খরচে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবে এমন সরল বিশ্বাসে অনেকেই চড়ে বসেন ওইসব গাড়িতে। আর তাতেই অনেক ক্ষেত্রে ঘটে যায় বড় ধরনের দুর্ঘটনা। কারণ রাজধানীতে চালকের ছদ্দবেশে কিছু দুর্বৃত্ত চক্র এভাবে ওঁৎ পেতে আছে।

এরকমই একটি চক্রের ৪ সদস্যকে বুধবার রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা(ডিবি) পুলিশ। তারা হলেন- মো.মরিন, মো. জামাল হোসেন, মো.নাদিম মাহমুদ ওরফে নাদির মিয়া ও মো. সুবেদ রানা। তাদের কাছ থেকে একটি অস্ত্র, এক রাউন্ড গুলি, ২০০পিস ইয়াবা ও একটি প্রাইভেট কার উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে এসব তথ্য জানান,ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিবি) আব্দুল বাতেন । 

তিনি জানান, এ চক্রটি রাজধানীর বিভিন্ন স্পটে প্রাইভেট কার কিংবা মাইক্রোবাস নিয়ে অপেক্ষা করে। স্বল্প ভাড়ায় পৌঁছে দেয়ার নাম করে তারা ভাড়ায় যাত্রী উঠায়। নির্জন স্থানে যাওয়ার পর তারা যাত্রীদের ভয় দেখিয়ে টাকা ও মূল্যবান জিনিসপত্র হাতিয়ে নেয়। অনেক সময় যাত্রীদের গলায় রশি পেঁচিয়ে ফাঁস দিতেও কুণ্ঠাবোধ করে না তারা। যাত্রীদের শারীরিকভাবে নির্যাতন করে তারা বিকাশ কিংবা এটিএম কার্ড দিয়েও টাকা তুলে নেয়। অনেক সময় তারা এতেও ক্ষ্যান্ত হয় না। কোনো কোনো যাত্রীদেরকে ব্যাপক নির্যাতন করে মোবাইল ফোনে সেই নির্যাতনের শব্দ তাদের স্বজনদের শুনিয়ে টাকা আদায় করে।

রাজধানীর মহাখালি, উত্তরা, খিলক্ষেত, ৩০০ফিট, বিশ্বরোড, বনানী, এয়ারপোর্ট ও পূর্বাচলে চক্রটি সবচেয়ে বেশ সক্রিয় বলে জানান অতিরিক্ত কমিশনার আব্দুল বাতেন। এদের বিরুদ্ধে রাজধানীর একাধিক থানায় মামলা হয়েছে।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর