ব্রেকিং:
সবজি বেচেই চলে সংসার প্রশাসনের তৎপরতায় বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল তিন স্কুলছাত্রী ৫০০০ মিটার দৌঁড়ে বিশ্ব রেকর্ড ৯৬ বছরের বৃদ্ধের! আর্থিক সহায়তা পেতেই ট্রাম্পের কাছে মিথ্যাচার করলো প্রিয়া সাহা! কারাগারে মিন্নি মিয়ানমারের উপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা পর্যাপ্ত নয়: জাতিসংঘ বদলি খেলোয়াড় নামানোর নতুন নিয়ম চালু আইসিসির বাংলাদেশ-ভারত-ভুটান বাণিজ্যে নবযাত্রার সূচনা জাতীয় মৎস্য পুরস্কারে স্বর্ণপদক পেল নৌবাহিনী ওষুধের পাতায় মেয়াদ-মূল্য স্পষ্ট থাকতে হবে: হাইকোর্ট জিম্বাবুয়েকে বহিষ্কার করল আইসিসি রোহিঙ্গা নির্যাতন: আইসিসি’র অনুমতি পেলে তদন্তে নামবে দল ক্রিকইনফোর একাদশেও সাকিব, নেই কোহলি রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের উদ্বেগ রিফাত হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে মিন্নি জেলা হাসপাতালগুলো দালালমুক্ত করার নির্দেশ জঙ্গি-চরমপন্থীদের আবির্ভাব যেন না হয়: ডিসিদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাছ উৎপাদনে আমরা প্রথম হতে চাই: প্রধানমন্ত্রী নয়ন বন্ডের ঘনিষ্ঠ রিশান ফরাজী গ্রেফতার ক্রাইস্টচার্চে নিহতদের স্বজনদের হজ করাবে সৌদি

রোববার   ২১ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ৫ ১৪২৬   ১৮ জ্বিলকদ ১৪৪০

২৫১

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রিপন হত্যা মামলায় তিন বন্ধুর যাবজ্জীবন

প্রকাশিত: ১১ জুলাই ২০১৯  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রিপন মিয়া হত্যা মামলায় তিনজনকে যাবজ্জীবন দিয়েছেন আদালত। তবে এ মামলার আরেক আসামি রিপন মিয়ার স্ত্রী আমেনা বেগমকে (৩৫) বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ শফিউল আজম এ আদেশ দেন। এসময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিল। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো– বাঞ্ছারামপুর উপজেলার ভেলানগর গ্রামের সিদ্দিক মিয়ার ছেলে শিপন মিয়া (৪৫), বাতেন মিয়ার ছেলে মো. কবির (৩৪) ও কাজী মোস্তফার ছেলে মো. হাবিব (২৩)।
রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এসএম ইউসুফ। তিনি জানান, ২০১৬ সালের ২ জানুয়ারি থেকে ১০ জানুয়ারির মধ্যে কোনও একদিন উপজেলার রূপসদী গ্রামের রিপন মিয়াকে হত্যা করে লাশ তার শ্বশুর বাড়ি ভেলানগর গ্রামের একটি জমির বালিতে পুঁতে রাখে তারই তিন বন্ধু শিপন মিয়া, মো. কবির ও মো. হাবিব। এই চার বন্ধু মিলে মাদকের ব্যবসা করতো। এ ব্যবসায় দ্বন্দ্ব দেখা দিলে এর জেরে রিপনের স্ত্রী আমেনা বেগমের সাহায্যে তাকে হত্যা করা হয়।
সূত্র আরও জানায়, এ ঘটনায় রিপনের ভাই বোরো মিয়া বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন। প্রথমে মামলায় আমেনা বেগম ও শিপন মিয়াকে আসামি করা হয়। তদন্তে মো. কবির ও মো. হাবিবের সংশ্লিষ্টতা খুঁজে পেলে তাদের দুইজনকেও অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেয় পুলিশ। আদালতে দেওয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে শিপন মিয়া, মো. কবির ও মো. হাবিব হত্যার কথা স্বীকারও করে।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর