ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • শনিবার   ৩০ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭

  • || ০৬ শাওয়াল ১৪৪১

১৭০

ব্যবসায়িদের দখলে প্রধান সড়কের ফুটপাত

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ২ অক্টোবর ২০১৯  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ বাজারের কাচারির এলাকার প্রধান সড়কের ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে চলছে কাঠের তৈরী ফার্নিচারের ব্যবসা। গরু পালনসহ নানাভাবে দখল করে নিয়েছে কিছু দখলবাজ ও ব্যবসায়িরা। এ যেন এক চিরস্থায়ি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে পরিনত হয়ে গেছে। যার কারণে স্বচ্ছন্দে চলাচল করতে পারছেন না পথচারীরা।
বিভিন্ন ধরনের যান চলাচল প্রতিনিয়ত ব্যাহত হচ্ছে।

যে কোন মুহুর্তে ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা।সড়কটি দিয়ে আশুগঞ্জ সারকারখানা হাউজিং কলোনী ও আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানি লিমিটেডের কর্পোরেট কলোনীবাসীকে প্রতিদিনই বিভিন্ন কাজে চলাচল করতে হয়। প্রতিদিনই চাকুরি ও ব্যবসাজনিত কারণে নরসিংদী, কিশোরগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত হাজারো মানুষ এ রাস্তায় চলাচল করার কারণে প্রতিনিয়ত এখানে জানজটের সৃষ্টি হয়। দখলবাজ ব্যবসায়িরা স্থানীয় ও প্রভাবশালী হওয়ার কারনে কেউ কিছু বলতে ও প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছে না।

সরেজমিনে এলাকায় গিয়ে জানা যায়, এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি আশুগঞ্জ রেল গেইট থেকে শুরু করে বাজার পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার ফুটপাত ও রাস্তা স্থানীয় ও প্রভাবশালীদের দখলে চলে গেছে। সেখানে রাখছে বিভিন্ন স্থায়ী ও অস্থায়ী দোকান, গরুপালন, কাঠের তৈরী বিভিন্ন ফার্নিচারের মালামাল ফুটপাত এত সরু হয়ে গেছে যে হেঁটে চলাও দায়। ফুটপাত দখল করে এসব ব্যবসায়ীরা মালামাল রাখছেন স্থায়ীভাবেই। আর যারা ফুটপাতে জায়গা পাচ্ছেন না, তারা মালামাল রাখছেন প্রায় রাস্তার ওপরই। এমনকি রাস্তার ডিভাইজের ওপরেও স্থায়ীভাবে রাখা আছে অন্যান্য আসবাবপত্র। ফলে প্রতিদিনই ঝুঁকি নিয়ে পথচারীদের চলতে হচ্ছে মূল সড়কে নেমে মাঝপথ দিয়ে।

আশুগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা মো. গোলাম সারোয়ার জানান এই পথেই আমাদের নিয়মিত যাতায়াত করতে হয়। কিন্তু বর্তমানে ফুটপাতের পুরো অংশই অবৈধ ব্যবসায়ীদের দখলে। হেঁটে চলাচলের আর কোনো উপায় নেই। বছর দুয়েক আগে এখানে প্রথমে দু-একজন ব্যবসায়ী বিভিন্ন পন্য বিক্রি করতেন। পরে দিন দিন কাঠের তৈরী বিভিন্ন ফার্নিচারের মালামাল ফুটপাত স্থায়ীভাবে রাখার স্থান বানিয়ে নিয়েছে। এখন এমন পর্যায় চলে গেছে যে পথচারিরা ফুটপাত দিয়ে হাঁটতে গিয়ে ভিড়ের কারণে সামনে এগোতে পারে না।

এ ব্যাপারে আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. নাজিমুল হায়দার বলেন ,সড়কের ফুটপাত দখলের বিষয়টি আমার চোখে পড়েছে। শ্রীঘ্রই ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর