ব্রেকিং:
জুয়াড়ি ও সন্ত্রাসীরা লড়ছেন ছাত্রদলের সভাপতি-সম্পাদক পদে! বাড়ি লিখে না দেয়ায় স্ত্রীকে তিন তালাক বিয়ের গেটে বরের মাথা ফাটাল কনের লোকজন পোড়ানো হলো ১২ হাজার মিটার জাল আখাউড়ায় তিন নারী ছিনতাইকারী আটক মাদকেই মরণ বিএনপির, রিহ্যাবে অসংখ্য নেতাকর্মীরা বাবার জায়গা নেই ছেলের পাকা ঘরে দুই মুখের মাছ পাওয়া গেল লেকে, মুহূর্তেই ভাইরাল ‘বিয়ে’র দায়ে জেলে গেলেন বর-কনের বাবা চাকরির প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক, কলেজছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা গুগল-ফেসবুককে ৯ হাজার কোটি টাকা দিয়েছে তিন মোবাইল কোম্পানি প্রাথমিকে নিয়োগ হবে ৬১ হাজার শিক্ষক বিমানের যাত্রী সেবার মান বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ‘গাঙচিল’ এর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিএনপি ছেড়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দিলেন ২ নেতা! গ্রেনেড হামলার দায় খালেদা জিয়া এড়াতে পারেন না: তথ্যমন্ত্রী গর্ভপাতকৃত সন্তান ব্যাগে ভরে থানায় প্রেমিকা, প্রেমিক উধাও দুর্নীতি নির্মূলে নিরলসভাবে কাজ করছে কমিশন ‘প্রত্যাবাসনের বিপক্ষে প্রচারণা চালালে ব্যবস্থা’ শিগগিরই ভূমি সেবায় আসছে ই-পেমেন্ট গেটওয়ে

শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৮ ১৪২৬   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

১৩৮৬

বিষপানে স্কুলছাত্র হত্যা, ছয় আসামির জামিন নামঞ্জুর

প্রকাশিত: ১২ জুন ২০১৯  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শরবতের সঙ্গে বিষপান করিয়ে স্কুলছাত্র হত্যা মামলার ছয় আসামিকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে আদালত।
মঙ্গলবার দুপুরে জেলা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সরওয়ার আলমের আদালতে আসামিরা আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। পরে তিনি জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
নিহত মো. মুরশেদ উল্লাহ জয় ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার মেড্ডা গ্রামের শাহীন কবীরের ছেলে। সে তার মায়ের সঙ্গে সদর উপজেলার সুহিলপুর ইউপির ঘাটুয়ায় বসবাস করতো ও ঘাটুরার গৌতমপাড়া বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ছিল।
আসামিরা হলেন- সদর উপজেলার সুহিলপুর ইউপির ঘাটুরা গ্রামের বজলু মিয়ার ছেলে মো. কুতুবুর রহমান, গাউছুর রহমান ও অলিউর রহমান, একই এলাকার জুরু হাজারীর ছেলে রিয়াদ, অলিউর রহমানের ছেলে মুন্না এবং আজিজ খন্দকারের ছেলে রুবেল।
বাদী পক্ষের আইনজীবী মো. মোরজান মিয়া জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ২৫ এপ্রিল বিকেলে আসামিরা জয়কে বাড়ি থেকে ডেকে ঘাটুরার মিলন বাজারে অবস্থিত কুতুব উদ্দিনের মুদি দোকানে নিয়ে আসে। পরে দোকানে বসিয়ে শরবতের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে জয়কে পান করিয়ে বাড়িতে ফেরত পাঠায়। বাড়িতে গিয়ে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় পরদিন জয়ের বড় ভাই ছানাউল্লাহ রনি বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলার পর বজলু মিয়ার ছেলে ওসমান মিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বাকি ছয়জন উচ্চ আদালত থেকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন নেন।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর