ব্রেকিং:
দুর্ধর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আটক সাংবাদিকতায় দেশ সেরা অ্যাওয়ার্ড পেলেন মিশু জেলা উন্নয়ন সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত বিষ প্রয়োগে সর্বশান্ত মৎস্য চাষী বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিবকে সংবর্ধনা পাঁচ দফা দাবিতে ফারিয়ার মানববন্ধন মসজিদের দেয়ালে ফাটল, আতঙ্কে মুসল্লিরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক উদ্ধার মাদক বিরোধী প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত মাদকসেবীর হুমকিতে স্কুলে যাওয়া বন্ধ শিক্ষার্থীর ফুটপাত দখলমুক্ত করলেন ইউএনও শারীরিক সক্ষম হলেই রক্তদান করবে শিক্ষার্থীরা একই তেলে বার বার রান্না ক্যান্সার ও হৃদরোগের কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার ওপর জোর দেয়ার তাগিদ তথ্যমন্ত্রীর মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিকে অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী নারীর মনে জায়গা পাওয়ার উপায় পানিতে পড়া ফোন যেভাবে দ্রুত সারিয়ে তুলবেন যে কারণে ‘সুদ’ হারাম উদ্বোধন হলো শেখ কামাল ক্লাব কাপ আওয়ামী লীগের সম্মেলন মানেই নতুন মুখ: কাদের

সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

২৩০২

বিদ্যালয় ছেড়ে রাজনীতিতে ব্যস্ত শিক্ষকরা

প্রকাশিত: ৭ অক্টোবর ২০১৯  

স্থানীয় সংসদ সদস্য শিক্ষকদের রাজনীতি থেকে বিরত থাকার জন্য বারবার বলার পরও রাজনীতির মাঠ আকড়ে ধরে রেখেছে শিক্ষকরা। এ নিয়ে স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ সাধারণ মানুষের মধ্যে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রক্রিয়া। তারা বলছেন শিক্ষকরা সরকারি সুযোগ সুবিধা ভোগ করার পরও রাজনৈতিক মাঠ দখল করে রাখবে তা মেনে নেয়ার মত না। শিক্ষকরা যে সময়টা বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীর পেছনে দেয়ার কথা, সেই সময় তারা নেতাদের পেছনে ব্যয় করছে। যার ফলে উপজেলার শিক্ষা ব্যবস্থা অনেকটা ব্যাহত হচ্ছে। 

কোন কোন শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় দালালী, আসামি ধরানো, ছাড়ানো, বিভিন্ন বিচার সালীসে সময় নষ্ট করারও অভিযোগ রয়েছে। কিছু কিছু শিক্ষক সাবেক দল জামাত ত্যাগ করে বর্তমানে খোলস পাল্টিয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীর পেছনে ঘুরে আওয়ামী রূপ ধারণ করে শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও স্থানীয় ইউপির চেয়ারম্যান হওয়ার আশায় রাজনীতির মাঠে রয়েছে বলে এমন অভিযোগও আছে তাদের বিরুদ্ধে। 

সরকারি প্রাথমিক, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজ, মাদ্রাসার শিক্ষকদের বিরুদ্ধেও বিদ্যালয় ফাঁকি দিয়ে রাজনীতিতে সক্রিয় থাকার অভিযোগ রয়েছে। 

স্থানীয় আওয়ামী লীগের বেশ কিছু নেতাকর্মী এ প্রতিনিধিকে জানায় বেশ কিছু শিক্ষক যারা সাবেক মন্ত্রী ও উপজেলা চেয়ারম্যানের পেছনে ঘুরঘুর করত এখন তারাই আবার বর্তমান সাংসদের পেছনে ঘুরছে। পরবর্তীতে অন্য কেউ আসলে আবার তারাই ঘুরবে। তাদের মতে নাসিরনগরের রাজনীতিতে রাজপথের কর্মীর চেয়ে সরকারি  সুবিধাভোগীদের দৌড়াত্ম্য বাড়ছে। 

তারা বলেন একটা সময় রাজনীতি ছিল মাঠ পর্যায়ের নেতাদের দখলে। বর্তমানে সরকারি সুবিধাভোগী লোকদের ভীরে মাঠের নেতারা এখন অনেক দূরে।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর