ব্রেকিং:
একনেকে ৫ হাজার কোটি টাকার ৮ প্রকল্প অনুমোদন ব্যাংক কর্মকর্তাকে ধর্ষণের পর হত্যা, পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড বেশির ভাগ দুধেই সিসা: হাইকোর্টে বিএসটিআইয়ের রিপোর্ট বিশ্বকাপ শেষেও বিশ্বসেরা ওয়ানডে অলরাউন্ডারের মসনদে সাকিব বসানো হবে বজ্রপাত নিরোধক টাওয়ার বউয়ের তালাক নোটিশ পেয়ে খুশিতে দুধ দিয়ে গোসল করলেন স্বামী শান্তিরক্ষা মিশনে বঙ্গবন্ধুর নামে সম্মেলন কক্ষ আসল নয়, বিশ্বকাপজয়ীদের রেপ্লিকা ট্রফি দেয়া হয়! গাড়িতে ‘পুলিশ’ স্টিকার লাগিয়ে প্রতারণা করতেন কবির হোসেন এইচএসসির ফল প্রকাশ বুধবার রাজধানীতে চালু হচ্ছে শাটল ট্রেন ট্রেনের ধাক্কায় বর-বধূসহ নিহত ১০ ৫০ বছর ধরে ‘আল্লাহু’ লেখা কাগজ সংরক্ষণ করছেন আবু জাকারিয়া জন্মভিটাতে ফেরা হলো না এরশাদের রোহিঙ্গা নির্যাতন তদন্তে ঢাকায় আসছে আইসিসি প্রতিনিধিদল একাদশে ভর্তিকৃতদের রেজিস্ট্রেশন ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে শিগগিরই কোচিং-নোটবই বন্ধ হচ্ছে! ‘অপরিকল্পিত শিল্প এলাকায় বিদ্যুৎ-গ্যাস নয়’ স্কুল টিভি চালুর পরিকল্পনা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বেসরকারি চাকরিজীবী ও বস্তিবাসীরাও ফ্ল্যাট পাবে: প্রধানমন্ত্রী

মঙ্গলবার   ১৬ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ১ ১৪২৬   ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪০

৯৩

বাঞ্ছারামপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরধরে দেড় শতাধিক গাছ কর্তন

প্রকাশিত: ৭ মার্চ ২০১৯  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাঞ্ছারামপুরে, পূর্ব শত্রুতার জেরধরে প্রায় দেড় শতাধিক গাছ কর্তন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাঞ্ছারামপুর উপজেলার তেজখালী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এই ব্যাপারে তেজখালী গ্রামের কামাল মিয়ার স্ত্রী সাথী বেগম, বাদী হয়ে ৮জনকে আসামী করে বাঞ্ছারামপুর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ জমা দেন। অভিযুক্তরা হলেন তেজখালী গ্রামের মরহুম কাজী অলেক মিয়ার ছেলে কাজী বাদল মিয়া, কাজী বাবুল মিয়া, কাজী লিটন মিয়া, কাজী রিপন, মরহুম সুলতান মিয়ার ছেলে আমির মিয়া, মোহন মিয়ার ছেলে অলি মিয়া, জোনাব আলীর ছেলে হাসেম মিয়া এবং আজিজুল ইসলামের ছেলে রুবেল মিয়া। 
এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা গেছে, তেজখালী গ্রামের সামছু মিয়া ও তার ছেলেরা মরহুম কাজী আলেক মিয়ার ভাই, মৃত আব্দুল মালেকের কাছ থেকে ১০ বছর পূর্বে ৬৫ শতাংশ জায়গা ক্রয় করেন। এই জায়গা নিয়ে আলেক মিয়ার ছেলেদের সাথে সামছু মিয়ার ছেলেদের বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার দিন বাবুল মিয়ার নেতৃত্বে তার ভাই ও সহযোগীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে প্রায় একশত ফুট লম্বা দেয়াল ভাংচুর করে এবং কাঁঠাল, জাম সহ বিভিন্ন প্রকারের প্রায় দেড়শতাধিক গাছ কর্তন করে। এই ঘটনায় এলাকায় চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার এস.আই খাজা মাইনউদ্দিন।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত কাজী বাবুল মিয়া বলেন, ‘‘আমার চাচা কাজী মালেক মিয়া জায়গাটি সামছু মিয়ার ছেলেদের কাছে বিক্রি করলেও, আমরা ওয়ারিশ হিসাবে এই জায়গায় আমাদের অংশীদারিত্ব আছে। এই জায়গা নিয়ে মালেক চাচার সাথে করা মামলা এখনও চলমান রয়েছে।’’
এ বিষয়ে মো: সামছু মিয়া বলেন, “আমি মালেক মিয়ার কাছ থেকে ক্রয় সূত্রে জায়গার মালিক। কিন্তু অলেক মিয়ার ছেলেরা দা, লাঠি-সোটা ও হাতুরি নিয়ে এসে আমার কাঠের বাগান কাটছে এবং আমার বিশাল দেয়াল ভেঙ্গে দিয়ে গেছে এবং আমার পরিবারের সদস্যদেরকে হত্যার হুমকি দিয়েছে।”
এই বিষয়ে নবীনগর সার্কেল এএসপি চিত্ত রঞ্জন পাল বলেন,‘‘ তেজখালী গ্রামের বিষয়টি আমি শুনেছি। তদন্ত করে যারা দোষী হবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর