ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • মঙ্গলবার   ০৭ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৩ ১৪২৭

  • || ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

৯৬

বাংলাদেশে ধেয়ে আসছে ভয়ংকর ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’!

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ৬ নভেম্বর ২০১৯  

বঙ্গোপসাগরের আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কাছে একটি লঘুচাপ দানা বেঁধেছে। এটি ধীরে ধীরে গভীর হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হচ্ছে। এর নাম করা হয়েছে ‘বুলবুল’। পশ্চিমবঙ্গের আবহাওয়া দফতর এ তথ্য জানিয়েছে। 

আবহাওয়া দফতর আইএমডি জানায়, বুধবার রাতের দিকে এটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। আপাতত লঘুচাপটি বাংলাদেশের খেপুপাড়া থেকে ৯৯০ কিলোমিটার দক্ষিণ ও দক্ষিণ পশ্চিম দিকে রয়েছে।  তাই এটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার পরই ঠিক কোন দিকে যাবে তা নির্ধারণ করা যাবে। তবে ঘূর্ণিঝড়টি পশ্চিমবঙ্গ ও সংলগ্ন ওড়িশা এবং বাংলাদেশের দিকে এগোনোর আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আইএমডি আরো জানায়, শুক্রবার থেকেই এর প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উপকূলবর্তী অঞ্চলে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এর ফলে সমুদ্র উত্তাল হবে। তাই বৃহস্পতিবার থেকেই মৎসজীবীদের সমুদ্রে না যাওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এছাড়া লঘুচাপটি দক্ষিণ পূর্ব ও উত্তর আন্দামান সাগরে অবস্থান করে ঘণ্টায় ১১ কিলোমিটার বেগে পশ্চিম দিকে এগোচ্ছে। ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার পর প্রথমে সেটি পশ্চিম ও উত্তর পশ্চিম দিকে এবং পরে উত্তর ও উত্তর পশ্চিম দিকে এগোবে। 

এদিকে দিল্লির আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার পর সাগরের ওপর যত বেশি সময় থাকবে ততই লঘুচাপটির শক্তি বাড়বে। শুক্রবার উপকূলের দিকে এগুনোর সময় ঘূর্ণিঝড়ের সম্ভাব্য ঘূর্ণন গতি ঘণ্টায় ১৪০ থেকে ১৫০ কিলোমিটার হতে পারে।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
সারাবাংলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর