ব্রেকিং:
কসবায় ভিজিডি কার্ডের চাউল বিতরণ মাদক বিরোধী অভিযানে আটক তিন কারা থাকছে আখাউড়ায় ছাত্রলীগের কমিটিতে সুশাসনের জন্য দুর্নীতিই প্রধান অন্তরায় সরাইলে অপপ্রচার নিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ বিএনপি নেতা দুদুর বিরুদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মামলা বিএনপি’র পকেট কমিটি বাতিলের দাবীতে বিক্ষোভ ও ঝাঁড়ু মিছিল ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত মুসলিম যাত্রী থাকায় আমেরিকান এয়ারলাইনসের ফ্লাইট বাতিল নির্ধারিত সময়ে প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে: এলজিআরডি মন্ত্রী ব্যাংক নোটের আদলে বিল ব্যবহারে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের হুঁশিয়ারি তিন স্পা সেন্টার থেকে ১৬ নারী ও ৩ পুরুষ আটক দেশে বেড়েই চলেছে ইন্টারনেটের গ্রাহক সংখ্যা শাবিপ্রবি উপাচার্য ফরিদ উদ্দিনের অনিয়ম ও দুর্নীতির শ্বেতপত্র রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সরকারের উদ্যোগের ঘাটতি নেই ক্যাসিনো চালাতে দেয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তেল স্থাপনায় হামলার প্রতিশোধ নেবে সৌদি আরব অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করছে আওয়ামী লীগ মাদক ব্যবসায়ীদের চেনার উপায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ১১ জন খেলাঘরের জাতীয় পরিষদে

সোমবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৮ ১৪২৬   ২৩ মুহররম ১৪৪১

৪৫

বাংলাদেশে অনুপ্রবেশকারী দুই জাহাজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

প্রকাশিত: ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

বাংলাদেশের জলসীমায় অনুপ্রবেশ করা ‘সি উইন্ড’ এবং ‘সি ভিউ’ নামের দুটি মাছ ধরার জাহাজের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে সরকার। 

রোববার সচিবালয়ে এক সভা শেষে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মো. আশরাফ আলী খান খসরু এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, মিথ্যা ডিক্লারেশন দিয়ে দুটি মাছ ধরার ট্রলার বাংলাদেশে ঢুকেছে। আমরা সেটা ইনকোয়ারি করে ধরতে পেরেছি। আমরা এখানে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের নিয়ে মিটিং করেছি। মিটিংয়ে একটি কমিটি করা হয়েছে। দু-একদিনের মধ্যে কমিটি ঘোষণা করা হবে।

মিথ্যা ডিক্লারেশন দিয়ে ঢোকার কারণে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য কাস্টমসকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কী উদ্দেশ্যে জাহাজ দুটি এসেছে সেটা কমিটি দেখবে। জাহাজের নামও সত্যিকারভাবে যা আছে তা কি না সেটাও দেখা হবে।

তিনি বলেন, ভবিষ্যতে যখন কোনো মাছ ধরার ট্রলার মেরামত কিংবা যেকোনো কারণেই বাংলাদেশে আসুক না কেনো সেটা মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়কে জানাতে হবে। এরপর তারা প্রবেশ করবে কি না সেটা আমাদের মতামতের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত হবে।   

জাহাজ দুটি কোন দেশের পতাকাবাহী-সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ওরা ক্যামেরুনের পতাকা নিয়ে আসছিল। সেটাও তারা নামিয়ে ফেলেছে। কোন দেশের মালিকানার জাহাজ তা তদন্তের পর জানা যাবে। 

তিনি বলেন, প্রতিটি জাহাজে আটজন করে নাবিক ছিল। জাহাজে আরো কী ছিল সেটা এখনো পরিষ্কার না। তবে কিছু মাছ ধরার জাল ছিল। 

জাহাজ দুটি এখন চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীতে কন্টিনেন্টালের (কন্টিনেন্টাল মেরিন ফিসারিজ লিমিটেড) জেটিতে আছে বলেও জানান তিনি। 

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, সব ডিপার্টমেন্ট, সব আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কোস্টগার্ড, নৌপুলিশ, বন্দর কর্তৃপক্ষ, কাস্টমস এ বিষয়ে অ্যাকশন নিচ্ছে। 

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর