ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • শনিবার   ৩০ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭

  • || ০৬ শাওয়াল ১৪৪১

৮৯

বখাটে ছেলের অত্যাচারে ঘর ছাড়া অসহায় বাবা-মা

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ৪ অক্টোবর ২০১৯  

বখাটে ছেলের অত্যাচারে বাড়ি ছেড়েছেন অসহায় পিতা-মাতা।ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার বুধন্তী ইউনিয়নের খাতাবাড়ী গ্রামের বৃদ্ধ নুর মিয়া ও তার বৃদ্ধা স্ত্রী আনোয়ারা খাতুন অসহায়ভাবে দিন যাপন করছে। পাড়ার মাতাব্বরদের কাছে এ বিষয়ে জানিয়ে কোন সুরাহা না পেয়ে সম্প্রতি আইনের আশ্রয় নিয়েছে এই দম্পত্তি।

মামলা সুত্রে জানা যায়, মাদকাসক্ত হয়ে টাকার জন্য তাদের চতুর্থ ছেলে মোঃ আনু মিয়া দীর্ঘ ধরে তাদেরকে শারিরীক ও মানসিক ভাবে অত্যাচার করে আসছে। বিগত কিছু দিন পূর্বে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার পিতা নুর মিয়াকে আক্রমণ করে গুরুতর আহত করলে আঘাতপ্রাপ্ত স্থানে তিনটি সেলাই করতে হয়। 

এলাকার কিছু লোক বিচার ব্যবস্থা করবে বলে আশ্বাস দিয়েও কোন বিচারের ব্যবস্থা করেনি। তার ছেলে আনু মিয়ার নির্যাতন দিন দিন বাড়তে থাকলে উপায়ান্তর না দেখে জীবন বাঁচাতে আইনের আশ্রয় নেয় এই দম্পতি।

নুর মিয়া বলেন, আমি একজন অসহায় মানুষ। ছেলের অত্যাচারে আজ আমি ঘর ছাড়া। কয়েকদিন আগে সে আমার বুকের উপর উঠে দা দিয়ে জবাই করে মেরে ফেলার চেষ্টা করে।পরে আশেপাশের লোকজন এসে আমাকে উদ্ধার করে। আমি কোন কথা বললেই সে মারধর করে।

আনোয়ারা খাতুন বলেন, আমাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিলে আমি মারাত্মকভাবে আহত হয়ে দীর্ঘ দিন শয্যাশায়ী থাকতে হয়। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠতে পারেনি। তার অত্যাচারে আমরা ঘর ছেড়েছি। আমরা এর বিচার চাই।

এই দম্পতি জানান,তারা এখন নিজের বাড়ি ছেড়ে সাতবর্গ বাস টার্মিনাল এলাকায় দিন যাপন করছেন ।

এ ব্যাপারে বিজয়নগর থানার ওসি ফয়জুল আজিম নোমান বলেন, অভিযোগটি পেয়েছি। বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। অসহায় মানুষদের জন্য বিজয়নগর থানা সর্বোচ্চ সহযোগিতা করবে। আমরা খোজ নিয়ে দ্রুত এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর