ব্রেকিং:
ট্রেন দুর্ঘটনার সাহসী সেই পাঁচ যুবক সন্তানের মা হলেন সেই প্রতিবন্ধী ধর্ষিতা পাল্টে গেছে সরাইল বিশ্বরোড মোড়ের দৃশ্যপট! নিয়মিত হাঁটুন সুস্থ থাকুন! ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণে কাতারে দোয়া মাহফিল হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন আমি জীবিত আছি, আমাকে হেল্প করুন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ট্রেন দুর্ঘটনার আসল কারণ ৪০ জনকে তদন্ত কমিটির জিজ্ঞাসাবাদ ট্রেন দুর্ঘটনায় আহত শিশুর দায়িত্ব নিলেন উপমন্ত্রী ধান কাটার ধুম পড়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ডায়াবেটিস প্রতিরোধের পাঁচ উপায় আর্থিক লেনদেন করা যাবে ফেসবুকে বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হচ্ছেন ৪৮ জন নারীর মন জয় করুন এই কৌশলে তাওবার ৬ উপকারিতা সাকিব না থাকায় ভারতীয় সিকিউরিটি গার্ডের আফসোস ফোকফেস্টের পর্দা উঠছে আজ সমুদ্রের জলে ভেসে এলো ১০০০ কেজি কোকেন

শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

৪০৩

প্রভাবশালীর দাপটে নদীর মাটি যাচ্ছে ইট ভাটায়

প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর ২০১৯  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার শাহবাজপুর এলাকায় তিতাস নদী থেকে মাটি তুলে ইট তৈরি করছে স্থানীয় ‘আমানত ব্রিকস’ নামে একটি ইটভাটা। এ ঘটনায় এলাকার পরিবেশ বান্ধব লোকদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

রোববার বিকেলে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, শাহবাজপুর মৌলভীবাজার তিতাস নদীর পাড়েই গড়ে ওঠেছে আমানত ব্রিকস। সেখানে ইট তৈরির জন্যে কয়েকদিন যাবত বেকু মেশিনে তিতাস নদী থেকে এলোপাতাড়ি মাটি কেটে নিচ্ছে আমানত ব্রিকস কর্তৃপক্ষ। নদী থেকে উত্তোলন করা মাটি কয়েকটি ট্রাক্টরে করে নেওয়া হচ্ছে পাশেই আমানত ব্রিকস এর মাঠে। নানা প্রক্রিয়ার পর শ্রমিকেরা এ মাটি দিয়ে ইট তৈরি করছেন। স্থানীয় লোকজন অভিযোগ করে বলেন, তিতাস নদীরপাড়ে গড়ে ওঠা আমানত ব্রিকস এর মালিক একজন প্রভাবশালী ব্যক্তি। এখানে নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই ব্রিকস ফিল্ডের কর্মকা- পরিচালিত হচ্ছে। কিছু দিন যাবত তিতাস নদী থেকে বেকু মেশিনে মাটি তুলে এ ব্রিকসে ইট তৈরি করা হচ্ছে। এসব দেখেও সংশ্লিষ্টরা নীরব রয়েছেন।

এদিকে এই ইটভাটায় মাটি সরবরাহকারি ঠিকাদার শাহবাজপুর এলাকার বাসিন্দা আইয়ূব খান বলেন, নদী থেকে মাটি তোলা হচ্ছে না। আমরা বর্ষাকালে বিভিন্ন লোকদের কাছ থেকে প্রায় এক কোটি টাকার মাটি কিনে তিতাস নদীতে ডুবিয়ে রেখেছিলাম, সেই মাটি এখন বেকু দিয়ে নদী থেকে তোলা হচ্ছে। আমানত ব্রিকস এর ম্যানেজার সুশাঙ্ক দাস বলেন, এ মাটি বিভিন্ন লোকের জমি থেকে বর্ষাকালে নৌকা দিয়ে সংগ্রহের পর তারা আমাদের কাছে বিক্রি করেন। সেইসময়ে কেনা মাটি নদীতে রাখা হয়। এখন বেকু মেশিনে তোলা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে জানতে সোমবার (২১ অক্টোবর) যোগাযোগ করা হলে পানি উন্নয়ন বোর্ড ব্রাহ্মণবাড়িয়া অঞ্চলের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী রঞ্জন কুমার দাস এ প্রতিবেদককে বলেন, এভাবে নদী থেকে মাটি উত্তোলন বেআইনি কাজ। আমি এখনই ঘটনাস্থলে লোক পাঠাচ্ছি।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর