ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • বৃহস্পতিবার   ০৪ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭

  • || ১১ শাওয়াল ১৪৪১

৪৫৯

প্রভাবশালীর দাপটে নদীর মাটি যাচ্ছে ইট ভাটায়

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর ২০১৯  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার শাহবাজপুর এলাকায় তিতাস নদী থেকে মাটি তুলে ইট তৈরি করছে স্থানীয় ‘আমানত ব্রিকস’ নামে একটি ইটভাটা। এ ঘটনায় এলাকার পরিবেশ বান্ধব লোকদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

রোববার বিকেলে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, শাহবাজপুর মৌলভীবাজার তিতাস নদীর পাড়েই গড়ে ওঠেছে আমানত ব্রিকস। সেখানে ইট তৈরির জন্যে কয়েকদিন যাবত বেকু মেশিনে তিতাস নদী থেকে এলোপাতাড়ি মাটি কেটে নিচ্ছে আমানত ব্রিকস কর্তৃপক্ষ। নদী থেকে উত্তোলন করা মাটি কয়েকটি ট্রাক্টরে করে নেওয়া হচ্ছে পাশেই আমানত ব্রিকস এর মাঠে। নানা প্রক্রিয়ার পর শ্রমিকেরা এ মাটি দিয়ে ইট তৈরি করছেন। স্থানীয় লোকজন অভিযোগ করে বলেন, তিতাস নদীরপাড়ে গড়ে ওঠা আমানত ব্রিকস এর মালিক একজন প্রভাবশালী ব্যক্তি। এখানে নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই ব্রিকস ফিল্ডের কর্মকা- পরিচালিত হচ্ছে। কিছু দিন যাবত তিতাস নদী থেকে বেকু মেশিনে মাটি তুলে এ ব্রিকসে ইট তৈরি করা হচ্ছে। এসব দেখেও সংশ্লিষ্টরা নীরব রয়েছেন।

এদিকে এই ইটভাটায় মাটি সরবরাহকারি ঠিকাদার শাহবাজপুর এলাকার বাসিন্দা আইয়ূব খান বলেন, নদী থেকে মাটি তোলা হচ্ছে না। আমরা বর্ষাকালে বিভিন্ন লোকদের কাছ থেকে প্রায় এক কোটি টাকার মাটি কিনে তিতাস নদীতে ডুবিয়ে রেখেছিলাম, সেই মাটি এখন বেকু দিয়ে নদী থেকে তোলা হচ্ছে। আমানত ব্রিকস এর ম্যানেজার সুশাঙ্ক দাস বলেন, এ মাটি বিভিন্ন লোকের জমি থেকে বর্ষাকালে নৌকা দিয়ে সংগ্রহের পর তারা আমাদের কাছে বিক্রি করেন। সেইসময়ে কেনা মাটি নদীতে রাখা হয়। এখন বেকু মেশিনে তোলা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে জানতে সোমবার (২১ অক্টোবর) যোগাযোগ করা হলে পানি উন্নয়ন বোর্ড ব্রাহ্মণবাড়িয়া অঞ্চলের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী রঞ্জন কুমার দাস এ প্রতিবেদককে বলেন, এভাবে নদী থেকে মাটি উত্তোলন বেআইনি কাজ। আমি এখনই ঘটনাস্থলে লোক পাঠাচ্ছি।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর