ব্রেকিং:
দুর্ধর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আটক সাংবাদিকতায় দেশ সেরা অ্যাওয়ার্ড পেলেন মিশু জেলা উন্নয়ন সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত বিষ প্রয়োগে সর্বশান্ত মৎস্য চাষী বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিবকে সংবর্ধনা পাঁচ দফা দাবিতে ফারিয়ার মানববন্ধন মসজিদের দেয়ালে ফাটল, আতঙ্কে মুসল্লিরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক উদ্ধার মাদক বিরোধী প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত মাদকসেবীর হুমকিতে স্কুলে যাওয়া বন্ধ শিক্ষার্থীর ফুটপাত দখলমুক্ত করলেন ইউএনও শারীরিক সক্ষম হলেই রক্তদান করবে শিক্ষার্থীরা একই তেলে বার বার রান্না ক্যান্সার ও হৃদরোগের কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার ওপর জোর দেয়ার তাগিদ তথ্যমন্ত্রীর মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিকে অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী নারীর মনে জায়গা পাওয়ার উপায় পানিতে পড়া ফোন যেভাবে দ্রুত সারিয়ে তুলবেন যে কারণে ‘সুদ’ হারাম উদ্বোধন হলো শেখ কামাল ক্লাব কাপ আওয়ামী লীগের সম্মেলন মানেই নতুন মুখ: কাদের

সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

৪৭

পৌর নির্বাচনে বিএনপিকে নিয়ে সমালোচনার ঝড়

প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০১৯  

নবীনগর প্রতিনিধি: আগামী ১৪ অক্টোবর নবীনগর পৌরসভার নির্বাচন। নিবাচনকে ঘিরে নবীনগর বিএনপি কোন পথে হাটছে। বিএনপির ধানের শীষ’ দলীয় প্রতীকে প্রার্থী থাকার পরও বিএনপি ঘরানার আরো তিনজন প্রার্থী ‘মেয়র’ পদে নির্বাচন করছেন। বিএনপির সহ সভাপতি ও বতমান মেয়র মাইন উদ্দিন ও বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাবেক পৌর মেয়র মো মলাই মিয়া, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রদল নেতা ফারুক আহমেদ কে বাদ দিয়ে অন্যজন কে মনোনয়ন দেন এমন অবস্থায় বিএনপিসহ সাধারণ ভোটারদের মুখে মুখে আলোচিত হচ্ছে বিএনপির নিবাচনী অবস্থান নিয়ে।

জানা গেছে, ১৯৯৯ সালে গঠিত নবীনগর পৌরসভায় ২০০৩ সালের জানুয়ারি থেকে ২০০৮ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত নবীনগর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. মলাই মিয়া পৌর প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ২০১৪ সালের অক্টোবর মাসে নবীনগর পৌরসভার প্রথম নির্বাচনে নবীনগর থানা বিএনপির সহসভাপতি বর্তমান মেয়র মোহাম্মদ মাঈন উদ্দিন মাইনু মেয়র নির্বাচিত হন।

কিন্তু এবারের পৌর নির্বাচনে বিএনপি থেকে ধানের শীষ প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয় নবীনগর পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ধনাঢ্য ব্যবসায়ী হাজী মো. শাহাবুদ্দিনকে। এ অবস্থায় বিএনপি নেতা বর্তমান মেয়র মাইনু বিক্ষুব্ধ হয়ে বিএনপি থেকে পদত্যাগ করে ‘মোবাইল’ প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন।

অন্যদিকে নবীনগর থানা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পৌর প্রশাসক মো. মলাই মিয়াও এবার ‘জগ’ প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন। পাশাপাশি নবীনগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রদল নেতা ফারুক আহমেদ ‘নারিকেল গাছ’ প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন। এ অবস্থায় বিএনপি এবারের নির্বাচনে মেয়র পদটি শেষ পর্যন্ত তাদের দখলে ধরে রাখতে পারবেন কিনা; সেটি নিয়ে খোদ বিএনপিসহ স্থানীয় বিভিন্ন মহলে এখন আলোচনা হচ্ছে। প্রশ্ন উঠছে, বিএনপি কি পারবে ‘মেয়র’ পদটি পূনউদ্বার করতে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপি সমর্থিত একাধিক স্থানীয় সাধারণ ভোটাররা জানান, বিএনপির তিন স্বতন্ত্র প্রার্থীর কারনে এবার ধানের শীষের ব্যাপক ক্ষতি হবে। তাই সম্মিলিতভাবে বিএনপির একজন প্রার্থী হলে বিএনপির বিজয় শতভাগ সুনিশ্চিত হতো। বিএনপির তিন প্রথীকে এক করতে বিএনপির উদ্যেগ নিয়ে ও আলোচনা সমালোচনা হচ্ছে।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর