ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • রোববার   ০৫ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২১ ১৪২৭

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪১

৪৪

নববধূকে উত্যক্তের অভিযোগে সেই ছাত্রলীগ নেতাকে বহিষ্কার

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ৫ মার্চ ২০২০  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় নববধূকে উত্যক্ত করার অভিযোগে গ্রেফতার তিন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর মধ্যে শরিফুল ইসলাম হৃদয়কে উপজেলা ছাত্রলীগ আহ্বায়ক কমিটির সদস্য পদ থেকে বহিষ্কার করেছে জেলা ছাত্রলীগ।

বুধবার দুপুরে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি কপি পোস্ট করে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে শরিফুল ইসলাম হৃদয়কে বহিষ্কারের কথা উল্লেখ করা হয়। 

জানা যায়, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি উপজেলার ফুলতলী গ্রামের আবুল খায়েরের মেয়ে রাহিমা আক্তার তার স্বামীকে নিয়ে কসবা পৌর শহরের কেনাকাটা করতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন। এ সময় উপজেলার পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতুল মিয়া, উপজেলা ছাত্রলীগ আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শরিফুল ইসলাম হৃদয় ও পৌর ছাত্রলীগ সদস্য সাব্বির আহাম্মদ নামে তিন ছাত্রলীগ নেতা উত্যক্ত শুরু করেন। রাহিমা এবং তার স্বামী পাশ কেটে শহরে গেলেও তাদের পিছু ছাড়েননি এই তিন ছাত্রলীগ নেতা। এক পর্যায়ে তাদের আক্রমণ করেন। পরে আত্মরক্ষার্থে কেনাকাটা না করে তারা বাড়িতে চলে যান। সেখানেও হানা দিয়ে এই তিন ছাত্রলীগ নেতা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। রাহিমার স্বামীকে মেরে তাকে নিয়ে যাওয়ার হুমকিও দেওয়ার অভিযোগ উঠে। নিরুপায় রাহিমার বাবা আবুল খায়ের কসবা থানায় ফোন দিলে পুলিশ গিয়ে তাদের গ্রেফতার করে নিয়ে আসে। পরে ওই দিনই পুলিশ তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠায়।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর