ব্রেকিং:
প্রভাবশালীর দাপটে বালু ফেলে নদী দখল টানা দ্বিতীয় বারের মত শ্রেষ্ঠ শিক্ষক জান্নাতুল রেলস্টেশনের মর্যাদা রক্ষায় ১১ দাবি ইউএনও উদ্যোগে ঘর পেল অসহায় পরিবার চিকিৎসকদের অক্লান্ত পরিশ্রম, রক্ত দিলেন সাধারণ মানুষ পৌরসভা নির্বাচনে জয়ীদের শপথ অনুষ্ঠিত ট্রেন দুর্ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা ট্রেন দুর্ঘটনার জেলা প্রশাসনের তদন্ত শুরু ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত সবার পরিচয় মিলেছে বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত সরদার নিহত ভোরে মসজিদের মাইকে আসে সহযোগিতার ঘোষণা একনজরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্রেন দুর্ঘটনা বিদ্যুৎ বিল কমিয়ে আনার কার্যকরী উপায় আয়কর মেলা শুরু বৃহস্পতিবার জামালপুরে ফেরীতে পার হয় ট্রেন, অবাক বিশ্ব নিমিষেই দূর করুন ছারপোকা! কোরআনে বর্ণিত নবী-রাসূল (আ.)-দের বিশেষ বিশেষ দোয়া ইমার্জিং এশিয়া কাপের ট্রফি উন্মোচন এখনো বেঁচে আছেন হুমায়ূন আহমেদ ‘প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটাক্ষ করলে ক্ষমা করবে না জনগণ’

বুধবার   ১৩ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৯ ১৪২৬   ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

১২

দুই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে ১০ লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত: ৩১ অক্টোবর ২০১৯  

বাংলাদেশ বার কাউন্সিল এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) নির্দেশনা সত্ত্বেও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে সেমিস্টার প্রতি ৫০ জনের বেশি শিক্ষার্থী ভর্তি করায় দুইটি বিশ্ববিদ্যালয়কে ১০ লাখ টাকা করে জারিমানা প্রদানের নির্দেশ দিয়েছেন আপিল বিভাগ। বিশ্ববিদ্যালয় দুটি হলো- স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।

বুধবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

বারডেম হাসপাতালে নিয়মিত লিভার ট্রান্সপ্লান্ট ইউনিটে এই জরিমানার অর্থ প্রদান করতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এছাড়াও আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভূক্তির জন্য আসন্ন বাংলাদেশ বার কাউন্সিল পরীক্ষায় স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের শিক্ষার্থীকে রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও ফরম পূরণের নির্দেশ দেয়া হাইকোর্টের আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। 

এর ফলে আসন্ন বার কাউন্সিল পরীক্ষায় এসব শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ দিতেই হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

এর আগে আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভূক্তির জন্য আসন্ন বাংলাদেশ বার কাউন্সিল পরীক্ষায় নিয়ম বহির্ভূতভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি করানোর অভিযোগে দেশের প্রায় ১১ টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন কার্ড না দিতে সিদ্ধান্ত জানায় বার কাউন্সিল। পরে বার কাউন্সিলের সে সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে ভুক্তভোগী প্রায় ২ হাজার শিক্ষার্থী পৃথক পৃথক রিট দায়ের করেন। এসব রিটের শুনানি শেষে শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন কার্ড দেয়ার সুযোগ দিতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

এরপর হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে সুপ্রিমকোর্টের চেম্বার আদালতে বার কাউন্সিল থেকে আবেদন করা হয়। ওই আবেদন মঞ্জুর করে চেম্বার আদালত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেন এবং আবেদনগুলোর ওপর শুনানির জন্য আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির দিন নির্ধারণ করে দেন। যার ধারাবাহিকতায় মামলাগুলো আজ বুধবার (৩০ অক্টোবর) আপিল বিভাগে শুনানি হয়।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর