ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • শনিবার   ১১ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৭ ১৪২৭

  • || ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪১

২৭৮৭

দুই নেতার বিতর্কিত মন্তব্য

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ৬ অক্টোবর ২০১৯  

নৌকা বিরোধীদের পদ না দেয়া, বিদ্রোহী প্রার্থীদের দল থেকে বহিস্কারের বিষয়ে আওয়ামীলীগের নীতি নির্ধারকদের পদক্ষেপের সমালোচনা করে দু-দিন আগে ফেসবুকে লাইভ করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা পরিষদে দলের বিদ্রোহী হিসেবে নির্বাচিত চেয়ারম্যান ফিরাজুর রহমান ওলিও।

এতে তিনি বলেন- ‘অনেকেই বলতেছে, আওয়ামীলীগের যে কমিটি হবে সারা দেশে যারা নৌকার বিরুদ্ধে গেছে তাদের বাদ দিয়ে দিবে। কিন্তু যারা নৌকার বিরুদ্ধে মেইন তাদের কিছু বলে না, বলে নিরীহ লোকজনকে । যারা বিদ্রোহ করেছে তারা বিজয় লাভ করছে। তাদের সিদ্ধান্তই সঠিক। লোকজন নৌকার বিরুদ্ধে ভোট দেয়নি, ব্যাক্তির বিরুদ্ধে দিয়েছে। তাহলে যারা পাশ করছে তাদের বাদ দেবেন কেন? যারা ক্ষমতায় বসেও ফেইল করেছে তাদের পদত্যাগ করা উচিত। আপনারা বলেন, বিদ্রোহীদের আপনারা বরখাস্ত করবেন। এগুলো করে আপনারা আমাদের প্রাণ প্রিয় দলকে নষ্ট করতেছেন। যারা বিদ্রোহী হয়ে পাশ করেছে তাদের সিদ্ধান্ত সঠিক। তাহলে আপনারা বড় বড় পদে বসে সঠিক সিদ্ধান্তটা নিতে পারেননি কেন? যারা ক্ষমতায় থেকেও ফেল করেছেন তারা পদত‌্যাগ করে আপনাদের ভাষায় বিদ্রোহীদের ক্ষমতায় বসান।’

শনিবার পৌর আওয়ামীলীগের সম্মেলনে ওলিও’র এই বক্তব্যের জবাব দেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আল মামুন সরকার। তিনি বলেন, জেলা আওয়ামীলীগ নির্বাচনের প্রার্থী মনোনয়নের জন্যে ৩ জনের নাম সুপারিশ করেছিলো। কেন্দ্র থেকে ৩ নম্বরে যার নাম ছিলো তাকে মনোনয়ন দেয়া হয়। দল যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেই সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমরা নির্বাচন করেছি। ফিরোজুর রহমান সেই নির্বাচনে অংশ নেন। তার নির্বাচনে অংশ গ্রহন নিয়ে আমাদের কোন বক্তব্য নেই। তিনি নির্বাচিত হওয়ার পরও তার বিরুদ্ধে কোন বক্তব্য দেইনি। কারন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের এই মনোনয়নের অঙ্গীকার যারা রক্ষা করেনি তাদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ সিদ্ধান্ত নেবে। তিনি (ওলিও) আরো বলেছেন, দলের প্রার্থী যারা মনোনয়ন দিয়েছে সেই প্রার্থীর পরাজয়ের দায় নিয়ে যারা পদে আছেন তাদেরকে পদত্যাগ করতে হবে।

আল মামুন সরকার প্রশ্ন রেখে বলেন- উপজেলা চেয়ারম্যানের মনোনয়ন দিয়েছেন আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ও সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বাধীন পার্লামেন্টারী বোর্ড। তাহলে ওলিও কি শেখ হাসিনার পদত্যাগ চাইছেন সেই প্রশ্ন আমার।

তিনি ওলিওকে এব্যাপারে হোশিয়ার করে বলেন- এধরনের অসাংবিধানিক বক্তব্য দেয়া হলে ভবিষৎতে তার বিরুদ্ধে জেলা আওয়ামীলীগ সিদ্ধান্ত নিয়ে কেন্দ্রে প্রেরন করবে।

উপজেলা নির্বাচনে জেলা,শহর ও উপজেলা আওয়ামীলীগের অনেক নেতা ওলিওর পক্ষে ছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। চলতি সম্মেলনে তার সমর্থক ওইসব নেতাদের পদ হারানোর সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এই অবস্থায় তাদের পক্ষ নিয়ে ফেসবুকে ওই লাইভটি করেন ওলিও।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর