ব্রেকিং:
নাসিরনগরে ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসনের মামলা ছয় জেলায় সার সরবরাহ বন্ধ আশুগঞ্জ সারকারখানার নবীনগরে সরকারি খাল ভরাটের মহা উৎসব! ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ তদন্তে মাঠে দুদক সরাইলে পুলিশের হাতে পলাতক আসামি গ্রেপ্তার আশুগঞ্জ সার কারখানা থেকে পুনরায় সার সরবরাহ শুরু হয়েছে বিজয়নগরে পলাতক ৭ আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ পরীক্ষার মুখে আখাউড়া ছাত্রলীগ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ডেঙ্গু প্রতিরোধে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান নূর চৌধুরীর তথ্য প্রকাশে কানাডার আদালতে বাংলাদেশের পক্ষে রায় আখাউড়ায় শিক্ষকের যৌন হয়রানির প্রতিবাদে সড়কে শিক্ষার্থীরা সরাইলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চারপাশে জুয়া ও মাদকের আসর অর্থ লেনদেনের অভিযোগে সরাইল স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটি বাতিল নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান আখাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগে পদ পেতে এ কি শর্ত দিলেন আইনমন্ত্রী! সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ১ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ব্রিটেনের প্রধান গির্জায় কোরআন তিলাওয়াতের বিরল ঘটনা স্মার্টফোনের বদলি হিসেবে ‘স্মার্ট গ্লাস’ আনছে ফেসবুক এডিআর বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক আওয়ামী লীগের নেতারা দুর্নীতি করলে ছাড় নয়: কাদের

শনিবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৫ ১৪২৬   ২১ মুহররম ১৪৪১

৪৪

থানা থেকে ছিনিয়ে নিয়ে দুই ধর্ষককে হত্যা

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০১৯  

একটি শিশুকে ধর্ষণ করে নির্মমভাবে গলা কেটে হত্যা করেছে দুই ধর্ষক। পরে, পলাতক এই দুই ধর্ষককে গ্রেফতার করে পুলিশ। খবর পেয়ে উত্তেজিত জনতা থানা ভেঙ্গে অভিযুক্তদের বের করে এনে নগ্ন করে শহর ঘোরায়। এরপর শহরের প্রাণকেন্দ্রে এনে পিটিয়ে দুই ধর্ষককে হত্যা করে ফেলে রাখা হয়। এঘটনা ঘটে ভারতের অরুণাচলের লোহিত জেলার ওয়াক্রো এলাকায়।

পুলিশ জানায়, নামগো মিসিং গ্রামের ৫ বছরের এক কন্যাশিশু গত ১২ ফেব্রুয়ারি থেকে নিখোঁজ ছিল। ১৭ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় চা বাগানের কাছে ঝোঁপের মধ্যে শিশুটির গলাকাটা, নগ্ন দেহ দেখতে পায় পুলিশ।

এ ঘটনায় গত রবিবার টেঙ্গাপানি গ্রাম থেকে সঞ্জয় সুবুর (৩০) ও জগদীশ লোহার (২৫) নামে দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। তারা দোষ স্বীকার করে জানায়, ধর্ষণ করার সময় মেয়েটি চিৎকার করছিল, তাই তার মাথা কেটে দেওয়া হয়েছিল।

স্থানীয় অধিবাসীদের দাবি ছিল, জঘন্য অপরাধে অভিযুক্তদের জনতার হাতে তুলে দিতে হবে। কিন্তু পুলিশ তাদের ফাঁড়ি থেকে তেজু থানায় নিয়ে আসে। ভোরের দিকে সশস্ত্র অধিবাসীরা থানায় আক্রমণ চালায়। দরজা ভেঙে সুবুর ও লোহারকে ছিনিয়ে নেয় তারা। নগ্ন করে শহর ঘুরানো হয়। একসময় শহরের প্রাণকেন্দ্রে এনে পিটিয়ে হত্যা করা হয় তাদের। পরে পুলিশ গিয়ে দেহ দু’টি উদ্ধার করে।

এর আগেও ২০১৫ সালে ডিমাপুর জেল ভেঙে ধর্ষণে অভিযুক্ত এক যুবককে বের করে এনে উত্তেজিত জনতা একই কায়দায় নগ্ন করে শহর ঘোরায়। পরে ক্লক টাওয়ারে তাকে ফাঁসিতে ঝোলানো হয়েছিল।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর