ব্রেকিং:
জুয়াড়ি ও সন্ত্রাসীরা লড়ছেন ছাত্রদলের সভাপতি-সম্পাদক পদে! বাড়ি লিখে না দেয়ায় স্ত্রীকে তিন তালাক বিয়ের গেটে বরের মাথা ফাটাল কনের লোকজন পোড়ানো হলো ১২ হাজার মিটার জাল আখাউড়ায় তিন নারী ছিনতাইকারী আটক মাদকেই মরণ বিএনপির, রিহ্যাবে অসংখ্য নেতাকর্মীরা বাবার জায়গা নেই ছেলের পাকা ঘরে দুই মুখের মাছ পাওয়া গেল লেকে, মুহূর্তেই ভাইরাল ‘বিয়ে’র দায়ে জেলে গেলেন বর-কনের বাবা চাকরির প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক, কলেজছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা গুগল-ফেসবুককে ৯ হাজার কোটি টাকা দিয়েছে তিন মোবাইল কোম্পানি প্রাথমিকে নিয়োগ হবে ৬১ হাজার শিক্ষক বিমানের যাত্রী সেবার মান বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ‘গাঙচিল’ এর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিএনপি ছেড়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দিলেন ২ নেতা! গ্রেনেড হামলার দায় খালেদা জিয়া এড়াতে পারেন না: তথ্যমন্ত্রী গর্ভপাতকৃত সন্তান ব্যাগে ভরে থানায় প্রেমিকা, প্রেমিক উধাও দুর্নীতি নির্মূলে নিরলসভাবে কাজ করছে কমিশন ‘প্রত্যাবাসনের বিপক্ষে প্রচারণা চালালে ব্যবস্থা’ শিগগিরই ভূমি সেবায় আসছে ই-পেমেন্ট গেটওয়ে

শনিবার   ২৪ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৮ ১৪২৬   ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

৩১৪

তামাকে কর বাড়াতে অর্থমন্ত্রীকে আট এমপির চিঠি

প্রকাশিত: ২ জুন ২০১৯  

আসন্ন বাজেটে সব তামাকজাত পণ্যে কর আরোপের মাধ্যমে দাম বাড়ানোর দাবিতে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালকে চিঠি দিয়েছেন রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের ৮ এমপি।

এই ৮ এমপি হলেন- জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম, রাজশাহী-২ আসনের এমপি ফজলে হোসেন বাদশা, সিরাজগঞ্জ-২ আসনের অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবে মিল্লাত, নাটোর-৪ আসনের অধ্যাপক মো. আব্দুল কুদ্দুস, লালমনিরহাট-১ আসনের মো. মোতাহার হোসেন, রংপুর-২ আসনের আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী, কুড়িগ্রাম-১ আসনের মো. আছলাম হোসেন সওদাগর ও নীলফামারীর সংরক্ষিত আসনের (মহিলা আসন-২৩) এমপি রাবেয়া আলীম।

চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক শক্তিশালী তামাক শুল্কনীতি গ্রহণ ও বাস্তবায়নেরও দাবি জানিয়ে এই ৮ এমপি উল্লেখ করেন, তামাকপণ্য ব্যবহারজনিত রোগে দেশে প্রায় ১ লাখ ২৬ হাজার মানুষের অকাল মৃত্যু হয়।

বর্তমানে ৩ কোটি ৭৮ লাখ প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ তামাক সেবন করেন, যার মধ্যে ১৮ শতাংশ (১ কোটি ৯২ লাখ) ধূমপানের মাধ্যমে তামাক ব্যবহার করেন। ২০ দশমিক ৬ শতাংশ (২ কোটি ২০ লক্ষ) ধোঁয়াবিহীন তামাক (জর্দা, গুল, খৈনী, সাদাপাতা) ব্যবহার করেন।

ধোঁয়াবিহীন তামাক ব্যবহারের হার নারীদের মধ্যে অনেক বেশি। বাংলাদেশে ১৩ থেকে ১৫ বছর বয়সের প্রায় ৭ শতাংশ কিশোর-কিশোরী তামাকপণ্য ব্যবহার করে, যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক বলেও চিঠিতে আরো বলা হয়।

জনস্বাস্থ্য, পরিবেশ ও অর্থনীতির ওপর তামাকের নেতিবাচক প্রভাবের কথা বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা ‘২০৪০ সাল নাগাদ তামাকমুক্ত বাংলাদেশ‘ বাস্তবায়নে আসন্ন ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটের জন্য সুনির্দিষ্ট কিছু সুপারিশ চিঠিতে তুলে ধরেন এমপিরা।

চিঠিতে যেসব তামাকপণ্যের ওপর করারোপ করে যেসব সুপারিশ তুলে ধরা হয় সেগুলো হলো- সিগারেটের ক্ষেত্রে বিদ্যমান ৪টি মূল্যস্তর (৩৫ টাকা, ৪৮ টাকা, ৭৫ টাকা এবং ১০৫ টাকা) বিলুপ্ত করে ২টি মূল্যস্তর (৫০ টাকা ও ১০৫ টাকা তদূর্ধ্ব) নির্ধারণ এবং গুল জর্দার ক্ষেত্রে ট্যারিফ ভ্যালু প্রথা বাতিল করে সিগারেট ও বিড়ির ন্যায় খুচরা মূল্যের ভিত্তিতে করারোপ করা।

সেইসঙ্গে সব তামাক পণ্যের প্যাকেট অথবা কৌটাপ্রতি সম্পূরক শুল্কের একটি অংশ সুনির্দিষ্ট আকারে আরোপ করা হোক, যাতে ক্ষতিকর এসব পণ্যের প্রকৃত দাম আরো বেড়ে যায়। 

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর