ব্রেকিং:
বন্যাদুর্গতদের পুনর্বাসনে রয়েছে ১২০ কোটি টাকা বরাদ্দ ঘুষদাতার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী হুজুর সেজে ধর্ষককে ধরলেন পুলিশ কর্মকর্তা বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলা, নিহত বেড়ে ৬৩ ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইনের রমণীদের পছন্দ বাংলাদেশি ছেলে রোহিঙ্গা নির্যাতন তদন্তে ঢাকায় মিয়ানমারের তদন্ত দল ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ টাইগারদের হেড কোচ হলেন রাসেল ডমিঙ্গো ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’ স্মার্টকার্ড পাবে ছয় বছরের শিশুও! হাঁসে হাসি-খুশির সংসার ‘বিশ্ববন্ধু’ উপাধি পেলেন বঙ্গবন্ধু ল্যান্ড ফোনের মাসিক লাইন রেন্ট বাতিল প্রসব বেদনা নিয়েই ছয় কিলোমিটার হাঁটলেন কাশ্মীরি মা সাড়ে ৩ হাজার রোহিঙ্গা ফিরিয়ে নিচ্ছে মিয়ানমার ‘ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করলেও তার আদর্শের মৃত্যু ঘটাতে পারেনি’ শনিবার থেকে কাঁচা চামড়া কিনবেন ট্যানারি মালিকরা আখাউড়ায় তিতাস ব্রিজে দর্শনার্থীদের ভীড় ডেঙ্গু প্রতিরোধে ছুটি শেষে বাসায় ফিরে যা করবেন ঈদ আনন্দে বিনোদন কেন্দ্রগুলো মুখরিত

রোববার   ১৮ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৩ ১৪২৬   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

ডেঙ্গু আক্রান্তদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিচ্ছি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৯ আগস্ট ২০১৯  

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, এবার ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা তিনগুণ বেড়েছে। যারা আক্রান্ত হচ্ছেন, তাদের আমরা প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিচ্ছি।
বুধবার রাজধানীর মুগদা হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরের চিকিৎসা, নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ শীর্ষক বৈজ্ঞানিক সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে এ কথা বলেন তিনি।

সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-৯ আসনের এমপি সাবের হোসেন চৌধুরী, বিএমএ’র সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, মহাসচিব মোহাম্মদ ইহতেশামুল হক চৌধুরী, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ ডা. গোলাম নবী তুহিন। 

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডা. সৈয়দ আতিকুল হক।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, হাসপাতালগুলোতে যদি প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা দেয়ার জন্য শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিট, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালসহ চারটি সরকারি হাসপাতাল প্রস্তুত করা হচ্ছে।

এদিকে সেমিনারে এক পরিসংখ্যান তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, গত বছর এ সময় ১১ হাজার মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছিল। এ বছর একই সময়ে এর সংখ্যা ৩০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এরইমধ্যে ডাক্তার-নার্সদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। জেলা পর্যায়ে কমিটি গঠন করতে বলা হয়েছে। এ বিষয়ে আমরা সার্বক্ষণিক মনিটারিং করছি।

বর্তমানে ডেঙ্গু সনাক্তের উপকরণ কিটের কোনো অভাব নেই জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রতিদিন দুই লাখ কিট আনা হচ্ছে। তাই এ বিষয়ে সমস্যা হওয়ার কোনো কারণ নেই।

স্থানীয় এমপি সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, সব বিষয়ের বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা রয়েছে। তবে তা সাধারণ মানুষকে সহজ করে বোঝাতে হবে। ডেঙ্গুর বিষয়েও সহজে মানুষকে বোঝাতে হবে। বর্তমানে বাস্তবতা একজন রোগী হাসপাতালে জ্বর নিয়ে আসলে তাকে ভর্তি করবে, এটাই তার প্রত্যাশা।

মুগদা হাসপাতালের বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরে সাবের হোসেন জানান, হাসপাতালে বেডের ধারণক্ষমতা ৫০০, কিন্তু এখানে ১১শ’র বেশি রোগী ভর্তি রয়েছে। এর মধ্যে ৫০০ জন ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত। এ সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। এভাবে বাড়তে থাকলে হাসপাতালের বাইরে খোলা জায়গা আছে, সেখানে অস্থায়ী ক্যাম্প করা হবে।

তিনি জানান, হাসপাতালটি ২০১৩ সালে উদ্বোধন হলেও এখন পর্যন্ত অনেক লোকবলের সংকট রয়েছে। তবে এর মধ্যে আশার কথা সম্প্রতি ৪৫১টি শূন্য পদ পূরণে অনুমতি দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৫৭ আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে নিয়োগ দেয়া হবে। এ হাসপাতালের প্রয়োজনীয় সেবা নিশ্চিত করতে অবশিষ্ট শূন্যপদ পূরণের পাশাপাশি বেশকিছু সিনিয়র নার্স বিভিন্ন জায়গায় কর্মরত।

তাদের হাসপাতালে ফিরিয়ে আনার দাবি জানান তিনি। বিষয়টি বিবেচনা করবেন বলে মন্ত্রী আশ্বস্ত করেন।

সেমিনারে ডাক্তারদের পক্ষ থেকে বলা হয়, এডিস মশার কামড়ে ডেঙ্গু রোগ হয়। বিশ্বের অনেক দেশে এ রোগ হচ্ছে। তবে সচেতনতায় এই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। এ জন্য ডাক্তারের পরামর্শ মেনে চলার আহ্বান জানান তারা। পাশাপাশি বাড়ির আশপাশ ও এলাকা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য সাধারণ জনগণ ও সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রতি আহ্বান জানান তারা।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর