ব্রেকিং:
দুর্ধর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আটক সাংবাদিকতায় দেশ সেরা অ্যাওয়ার্ড পেলেন মিশু জেলা উন্নয়ন সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত বিষ প্রয়োগে সর্বশান্ত মৎস্য চাষী বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিবকে সংবর্ধনা পাঁচ দফা দাবিতে ফারিয়ার মানববন্ধন মসজিদের দেয়ালে ফাটল, আতঙ্কে মুসল্লিরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক উদ্ধার মাদক বিরোধী প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত মাদকসেবীর হুমকিতে স্কুলে যাওয়া বন্ধ শিক্ষার্থীর ফুটপাত দখলমুক্ত করলেন ইউএনও শারীরিক সক্ষম হলেই রক্তদান করবে শিক্ষার্থীরা একই তেলে বার বার রান্না ক্যান্সার ও হৃদরোগের কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার ওপর জোর দেয়ার তাগিদ তথ্যমন্ত্রীর মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিকে অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী নারীর মনে জায়গা পাওয়ার উপায় পানিতে পড়া ফোন যেভাবে দ্রুত সারিয়ে তুলবেন যে কারণে ‘সুদ’ হারাম উদ্বোধন হলো শেখ কামাল ক্লাব কাপ আওয়ামী লীগের সম্মেলন মানেই নতুন মুখ: কাদের

সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

৫৬

টেকনাফ স্থলবন্দরে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি রাজস্ব আদায়

প্রকাশিত: ৩ জুলাই ২০১৯  

কক্সবাজারের টেকনাফ স্থলবন্দরে জুন মাসে লক্ষমাত্রার চেয়ে প্রায় তিন কোটি টাকা বেশি রাজস্ব আদায় হয়েছে। এ মাসে আট কোটি ৪০ লাখ টাকা রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিলো। তবে ২০২টি বিল অব এন্ট্রির মাধ্যমে ১১ কোটি ৩৮ লাখ ৫২ হাজার টাকা রাজস্ব আদায় হয়েছে।

টেকনাফ স্থলবন্দরের শুল্ক কর্মকর্তা মো. ময়েজ উদ্দীন বলেন, এ মাসে ৩৪ কোটি ৭৪ লাখ ১৪ হাজার টাকার পণ্য মিয়ানমার থেকে আমদানি হয়েছে। অপরদিকে ৪১টি বিল অব এক্সপোর্টের বিপরীতে এক কোটি ২৫ লাখ ৫৪ হাজার টাকার পণ্য মিয়ানমারে রফতানি হয়েছে। এছাড়া শাহপরীর দ্বীপ করিডোরে মিয়ানমার থেকে পাঁচ হাজার ৬৬২টি গরু আমাদানি হয়েছে। তাছাড়া তিন হাজার ৫৫৭টি মহিষ আমদানি করে গবাদি পশু থেকে সর্বমোট ৫০ লাখ ৮৮ হাজার ৫০০ টাকা রাজস্ব আদায় হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, গেল অর্থ বছরের দুয়েক মাস ব্যতিত অধিকাংশ সময় টেকনাফ স্থলবন্দরে ব্যবসার ভালো পরিবেশ ছিল। ব্যবসায়ীরা পর্যাপ্ত পণ্য আমদানি করেছেন। পাশাপাশি শুল্ক বিভাগের সবাই শুল্ক বাড়াতে সঠিকভাবে আমদানি পণ্যের পরীক্ষা-নিরীক্ষার পাশাপাশি আন্তরিক ও কঠোর পরিশ্রম করেছেন। ফলে সবার আন্তরিক চেষ্টায় রাজস্ব আয় লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে।

টেকনাফ স্থলবন্দর দিয়ে মিয়ানমার থেকে কাঠ, হিমায়িত মাছ, শুটকি, আচার, মসলা, গবাদি পশুসহ নানা পণ্য আমদানি হয়। অপরদিকে গার্মেন্টস পণ্য, প্লাস্টিক সামগ্রী, ওষুধ ও সিমেন্ট মিয়ানমারে রফতানি হয়।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর