ব্রেকিং:
মাদক সম্রাট বাদল ডাক্তার আটক পাইকপাড়া ও বুল্লা গ্রামের বিরোধের শান্তিপূর্ণ মিমাংসা স্মৃতিসৌধ পরিদর্শনকালে সঙ্গী কুখ্যাত রাজাকারপুত্র আইনশৃঙ্খলা উন্নয়নে সকলের সহযোগিতা চাইলেন ওসি ইউপি সদস্য সহ ৭ জুয়ারী গ্রেফতার ব্যাডমন্টিন টুর্নামেন্টে দর্শকদের উপচে পড়া ভীড় বিজয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় সম্মিলিতভাবে পালন করতে হবে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস পালিত প্রেমিককে না পেয়ে প্রেমিকার আত্মহত্যা সবজি গ্রাম হিসেবে প্রতিষ্ঠিত কৃষ্ণনগর চোলাই মদ বিক্রির দায়ে কারাদণ্ড নিয়মের ‘গ্যাঁড়াকলে’ তালিকাভুক্তহীন ১৭ মুক্তিযোদ্ধা ‘ডায়াবেটিস’ তাই ভাত ছেড়ে রুটি? বিপদ আরো বাড়ছে মিথিলা-ফাহমির ছবি ইন্টারনেট থেকে সরানোর নির্দেশ গবাদি পশুর প্রজননের খবর জানাবে বাংলাদেশি ছাত্রের তৈরি যন্ত্র অ্যাপিকটা বিজয়ীদের সংবর্ধনা দিল বেসিস ইসলামে সড়ক ও পরিবহন নীতিমালা জমকালো আয়োজনে শেষ হলো বিপিএলের উদ্বোধন শুদ্ধি অভিযান সফল করতে হবে: কাদের পঙ্গু-বয়স্কদের জন্য ইউএনওর ‘কলিং বেল’ সেবা

মঙ্গলবার   ১০ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৬   ১২ রবিউস সানি ১৪৪১

৩৭৩

জন্মভিটাতে ফেরা হলো না এরশাদের

প্রকাশিত: ১৬ জুলাই ২০১৯  

হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদের মৃত্যুর খবর ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারে তার পৈতৃক বাড়িতে পৌঁছাতেই কান্নায় ভেঙে পড়ল গোটা পরিবার। শোকে বিহ্বল দিনহাটার কয়েক লাখ বাসিন্দা। এরশাদ আর দিনহাটায় ফিরবেন না, তা যেন বিশ্বাসই করতে পারছেন না কেউ। কোচবিহারের দিনহাটাই বাংলাদেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এরশাদের জন্মভিটা।

দিনহাটায় এখনো এরশাদের চাচাতো ভাই ও তার পরিবার বসবাস করেন। শহরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের পুরনো বাসস্ট্যান্ড এলাকার বাড়িতেই ম্যাট্রিক পর্যন্ত পড়াশোনা করেছিলেন এরশাদ। তারপরেই অবিভক্ত বাংলাদেশের রংপুর জেলার কারমাইকেল কলেজে তিনি পড়তে চলে যান।

এরশাদের ভাই মোজাব্বর হোসেন জানান, যুদ্ধের পর কয়েক বছর কোনো খোঁজখবর ছিল না৷ এরপর ১৯৭৫ সালে হঠাৎ ভারতীয় সেনাবাহিনী থেকে একটি চিঠি বাড়িতে এসে পৌঁছেছিল৷ সেখানে লেখা ছিল, এরশাদ বাড়ি ফিরছেন।

সেই চিঠির কথা আজও তারা ভুলতে পারেননি৷ কারণ, তারা ভেবেছিলেন এরশাদ ভারতীয় সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছেন। যদিও তার বাড়ি ফেরার পর সেই ভ্রান্ত ধারণা দূর হয়। তিনি ভারতের দেরাদুনে প্রশিক্ষণে ছিলেন এবং সেখান থেকেই বাড়ি ফিরেছিলেন।

বছর দুই আগে, ২০১৭ সালে দিনহাটায় এসেছিলেন এরশাদ ৷ তবে মোজাব্বর হুসেনের ছেলে এহসান হাবিব ও ছেলের স্ত্রী সাবিরা সরকার গত এপ্রিল মাসে ঢাকায় গিয়েছিলেন এরশাদের সঙ্গে দেখা করতে। তারা জানান, সেখানেই এরশাদ ফের দিনহাটা ফেরার ইচ্ছা জানিয়েছিলেন। তবে তার সেই ইচ্ছে আর পূরণ হল না৷

ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের কোচবিহার অঞ্চলে ছিটমহল বিনিময়ে তার অবদান আজও অনস্বীকার্য। ছিটমহল বিনিময় আন্দোলনের অন্যতম নেতা দীপ্তিমান সেনগুপ্ত জানান, এরশাদ ছিটমহলবাসীর দাবি, আন্দোলনকে বারবার উৎসাহিত করেছিলেন। অন্যতম অভিভাবক হিসেবে ছিলেন।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর