ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৩ ১৪২৭

  • || ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

৩১৯

চাচীর হাতে ভাতিজার পুরুষাঙ্গ কর্তন

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ১২ মার্চ ২০২০  

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার ঝলম ইউনিয়নের গোয়ালী গ্রামে আপন চাচীর সাথে পরকী’য়ার জের ধরে চাচী খাদিজা বেগম তার ভাসুর পুত্র জোবায়ের হোসেনের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলে দেয়।

সরেজমিনে গোয়ালী জোবায়ের হোসেনের বাড়ি গিয়ে জানা যায়,গত শনিবার (৭ মার্চ) সন্ধ্যায় পাশ্ববর্তি চান্দিনা উপজেলা ভৌমরী গ্রামের খাদিজা বেগম (২২) নামে এক যুবতী মুঠোফোনে কৌশলে ডেকে নিয়ে জোবায়েরকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে জোবায়ের তাৎক্ষনিক রাজি না হওয়ায় খাদিজার বাবা জোবায়েরের হাত চেপে ধরে এবং মা পায়ে চাপ দিয়ে ধরে খাদিজা যোবায়েরের পুরুষাঙ্গ কেটে মাটিতে ফেলে দেয়। যোবায়েরেরর চিৎকারে আশে পাশের মানুষ ছুটে এসে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।পরিস্থিতির অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়।

আহতের চাচা জসিম উদ্দিন ও নিকটাত্মীয় রতন মিয়া সাংবাদিকদের জানান,যোবায়ের ও চাচী খাদিজার মাঝে দীর্ঘদিন পরকীয়াসহ অবৈধ সম্পর্ক ছিল। তা নিয়ে পরিবারে অনেক ঝামেলা ছিল। কিন্তু খাদিজার এই অবৈধ সম্পর্কের কথা খাদিজার প্রবাসী স্বামী অর্থাৎ যোবায়েরের প্রবাসী চাচা জেনে গেলে পরিবারে অনেক অশান্তি নেমে আসে। ফলে যোবায়েরের প্রবাসী চাচা সিদ্ধান্ত নেয় খাদিজাকে তালাক দিবে। পরে পারিবারিকভাবে গত এক বছর পূর্বে খাদিজাকে সামাজিক লোকদের সাথে নিয়ে বসে দেনমোহরের তিন লক্ষ টাকা দিয়ে খাদিজাকে তালাক খাদিজার প্রবাসী স্বামী।খাদিজা বাপের বাড়ি চলে যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক যোবায়েরের কয়েকজন বন্ধু বলেন,খাদিজা তালাকপ্রাপ্ত হয়ে বাপের বাড়ি চলে গেলেও খাদিজার সাথে গোপন সম্পর্ক থেকে যায় যোবায়েরের। যোবায়ের পেশায় সিএনজি চালক। নিজ পরিবারের অজান্তে যোবায়েরের খাদিজার সাথে মুঠো ফোনে নিয়মিত কথা হতো। মাঝে মাঝে খাদিজার অনুরোধে যোবায়ের খাদিজার বাড়ি যেতো।এভাবে চলছিল প্রায় বছর খানেক তাদের অবৈধ সম্পর্ক।

পরে গত শনিবার (৮ মার্চ) সন্ধ্যায় খাদিজা মুঠো ফোনে বলে খাদিজার বাড়ি চান্দিনা উপজেলার ভৌমারী গ্রামে খাদিজার বাড়িতে যেতে সেখানে বিয়ের করতে চাপ দেওয়া তাৎক্ষনিক রাজি না হওয়ায় যুবায়েরর পুরুষাঙ্গ কে’টে ফেলে দেওয়া হয় বলে জানান তার পরিবারের লোকজন।

যোবায়েরের নিকটাত্মীয় রতন বলেন,তার পুরুষাঙ্গ অর্ধেকটা কেটে ফেলে দেয় খাদিজা। পরে চিকিৎসক অপারেশন করে পুরোটা ফেলে দেয়।

এ বিষয়ে যোবায়েরের মা মুঠোফোনে বলেন,আমরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আছি। তার অবস্থা ভালো না। আল্লাহ জানে বাঁচবে নাকি মরে যাবে।আমি বাড়িতে এসে খাদিজা ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে অঙ্গহানির মামলা করবো”।

আহত যোবায়ের বরুড়া উপজেলার জলম গ্রামের মোঃ নজির আহমেদের ছেলে। সে পেশায় একজন সিএনজি অটো রিকসা চালক।

এ বিষয়ে চান্দিনা থানার উপ পরিদর্শক (এস আই) আহাদ আহত যোবায়ের বরাত দিয়ে জানান, দীর্ঘ দিন যাবত ওই মেয়ের সাথে প্রেম ছিল। ঘটনার দিন মেয়ের পরিবার ফোন করে নিয়ে বিয়ের চাপ দিলে যোবায়ের এখন বিয়ে করতে রাজী হয়নি। এতে মেয়ের পরিবার ক্ষিপ্ত হয়ে তার পুরুসাঙ্গ জোর করে কেটে দেয়।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
সারাবাংলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর