ব্রেকিং:
বিমানের যাত্রী সেবার মান বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ‘গাঙচিল’ এর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিএনপি ছেড়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দিলেন ২ নেতা! গ্রেনেড হামলার দায় খালেদা জিয়া এড়াতে পারেন না: তথ্যমন্ত্রী গর্ভপাতকৃত সন্তান ব্যাগে ভরে থানায় প্রেমিকা, প্রেমিক উধাও দুর্নীতি নির্মূলে নিরলসভাবে কাজ করছে কমিশন ‘প্রত্যাবাসনের বিপক্ষে প্রচারণা চালালে ব্যবস্থা’ শিগগিরই ভূমি সেবায় আসছে ই-পেমেন্ট গেটওয়ে কাশ্মীর ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়: বাংলাদেশ গ্রেনেড হামলায় পলাতকদের রায় কার্যকর সম্ভব: আইনমন্ত্রী মাধ্যমিকে কর্মমুখী শিক্ষা বাধ্যতামূলক হচ্ছে শিশু আইনের অসঙ্গতি সংশোধন চান হাইকোর্ট রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে প্রস্তুত ঘুমধুম পয়েন্ট আদালতে বঙ্গবন্ধুর ছবি টাঙানোর নির্দেশনা চেয়ে রিট বিএনপির পক্ষ থেকে ছিল ২১ আগস্টের হামলা: প্রধানমন্ত্রী টিউশনির টাকায় গুজবের বিরুদ্ধে ৩১ দিন হাঁটলেন সাইফুল কন্ডিশনিং ক্যাম্পেই যাত্রা শুরু নতুন দুই কোচের প্রথম সমকামী ক্রিকেটার হিসেবে মা হচ্ছেন স্যাটারওয়েট তারেকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি কাদেরের স্মার্ট কার্ড অনলাইনে সংশোধন করবেন যেভাবে

শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৭ ১৪২৬   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

৪৫৬

‘চলতি মাসেই পাঁচ হাজার ডাক্তার নিয়োগ’

প্রকাশিত: ১৮ এপ্রিল ২০১৯  

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন বলেছেন, চলতি এপ্রিল মাসেই পাঁচ হাজার ডাক্তার নিয়োগ দেয়া হবে। পরবর্তী সময়ে নিয়োগ দেয়া হবে আরো পাঁচ হাজার।

বুধবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা জানান। জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ ২০১৯ উপলক্ষে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেড় বছর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দশ হাজার ডাক্তার নিয়োগের অনুমতি দেন। কিন্তু নানা জটিলতায় এতদিন এই নিয়োগ দেয়া সম্ভব হয়নি। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী সরকারের স্বাস্থ্য খাতের বিভিন্ন উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে বলেন, এখন গড় আয়ু ৭২ বছর। এটা সরকারের একটি সাফল্য। এই সরকারের আমলে ১৯টি সরকারি ও ৪৩টি বেসরকারি হাসপাতাল অনুমোদন দেয়া হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

বিশেষ অতিথি স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান বলেন, ডাক্তারদের সবার সঙ্গে তুলনা করলে হবে না। তাদের ধৈর্য সহকারে পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে হবে। ডাক্তারদের রোগীকে আপনজন মনে করতে হবে। সেই দৃষ্টিতে সেবা দিতে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। এতে মুখ্য আলোচকের বক্তব্য দেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মাহমুদ। বক্তব্য দেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব (স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ)  জি. এম. সালেহ উদ্দিন, স্বাস্থ্য অধিপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি  মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন প্রমুখ।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর