ব্রেকিং:
জমি-পেনশন হাতিয়ে বাবাকে ফেলে গেছে সন্তানেরা ফের বৃষ্টিতে ভেসে যাবে বাংলাদেশের স্বপ্ন? ভারত-পাকিস্তানের সম্ভাব্য একাদশ বিতর্ক মানুষকে সাহসী ও আত্মবিশ্বাসী করে : শিক্ষামন্ত্রী মুক্তিযুদ্ধের চেতনা-দক্ষতা বিবেচনায় সেনা সদস্যদের পদোন্নতি নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগের লক্ষ্য উন্নত সমৃদ্ধ দেশ গড়া ছোট ভাইকে বাঁচাতে গিয়ে বড় ভাইও ট্রেনের নিচে প্রস্তাবিত বাজেট ব্যবসা সহায়ক: এফবিসিসিআই শেষ ইচ্ছা পূরণ হল না ফিলিস্তিনি শিশুটির মুজিব কোটেই ছয় দফা! মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড বাতিল করল সৌদি আরব ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছি’ আজ বিশ্ব বাবা দিবস কেন সুন্দর গন্ধ ভেসে আসে যুবতীর কবর থেকে…কেন? কয়েলের আগুনে ঘর, গরুসহ নগদ টাকা পুড়ে ছাই ! নবীনগরে ‘সেভ আওয়ার জেনারেশন’এর আত্মপ্রকাশ বাজেটে সুদমুক্ত ক্ষুদ্রঋণে বরাদ্দ বেড়েছে গবেষণা ও উন্নয়ন খাতে বরাদ্দ ৫০ কোটি টাকা পদ্মা সেতুসহ ১০ মেগা প্রকল্পে বরাদ্দ ৩৯ হাজার কোটি টাকা

রোববার   ১৬ জুন ২০১৯   আষাঢ় ২ ১৪২৬   ১২ শাওয়াল ১৪৪০

৪২২

‘চলতি মাসেই পাঁচ হাজার ডাক্তার নিয়োগ’

প্রকাশিত: ১৮ এপ্রিল ২০১৯  

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন বলেছেন, চলতি এপ্রিল মাসেই পাঁচ হাজার ডাক্তার নিয়োগ দেয়া হবে। পরবর্তী সময়ে নিয়োগ দেয়া হবে আরো পাঁচ হাজার।

বুধবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা জানান। জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ ২০১৯ উপলক্ষে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেড় বছর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দশ হাজার ডাক্তার নিয়োগের অনুমতি দেন। কিন্তু নানা জটিলতায় এতদিন এই নিয়োগ দেয়া সম্ভব হয়নি। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী সরকারের স্বাস্থ্য খাতের বিভিন্ন উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে বলেন, এখন গড় আয়ু ৭২ বছর। এটা সরকারের একটি সাফল্য। এই সরকারের আমলে ১৯টি সরকারি ও ৪৩টি বেসরকারি হাসপাতাল অনুমোদন দেয়া হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

বিশেষ অতিথি স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান বলেন, ডাক্তারদের সবার সঙ্গে তুলনা করলে হবে না। তাদের ধৈর্য সহকারে পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে হবে। ডাক্তারদের রোগীকে আপনজন মনে করতে হবে। সেই দৃষ্টিতে সেবা দিতে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। এতে মুখ্য আলোচকের বক্তব্য দেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মাহমুদ। বক্তব্য দেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব (স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ)  জি. এম. সালেহ উদ্দিন, স্বাস্থ্য অধিপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি  মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন প্রমুখ।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর