ব্রেকিং:
সরাইলে অবৈধ গাইড বই’র বিরুদ্ধে অভিযান বীর মুক্তিযোদ্ধা ইদ্রিছ মিয়া আর নেই সদর সার্কেলে নতুন অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের যোগদান ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অস্ত্র-মাদকসহ তিনজন গ্রেফতার গাছের চারার মধ্যে গাঁজা পাচারেও শেষ রক্ষা হলো না নারীর টিফিন বক্সে হাজার টাকার মাদক! নদী দূষণ ও দখল প্রতিরোধ বিষয়ক মতবিনিময় হত্যা মামলা তুলে নিতে বাদীর ওপর হামলা সরাইলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে লাখো মানুষ! ভুল আসামির সাজা খাটার বিষয় খতিয়ে দেখার নির্দেশ বই পাঠ্যসূচি ও পরীক্ষায় বদল আনছে সরকার বন্ধ হয়ে যাচ্ছে দেশের তিন কোটি অবৈধ স্মার্টফোন! ইসলামে ধর্ষণ-হত্যা প্রতিরোধে করণীয় অনূর্ধ্ব-১৯ থেকে মহাতারকা হয়েছেন যারা ‘অন্তঃস্বত্ত্বা’ বুবলীকে ডলার দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র পাঠিয়েছেন শাকিব! দেশপ্রেমীরা দুর্নীতি করে না: পরশ করোনায় মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়ালো তালাক দেয়া স্ত্রীকে বাড়িতে ডেকে হত্যা ট্রেনে খোলা খাবার বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা ১৩ হাজার ৬৩৯ কোটি টাকার নয় প্রকল্প অনুমোদন
  • বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ৭ ১৪২৬

  • || ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

১৪৬

গুইসাপ খেয়ে মরল বাঘ!

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০১৯  

গুইসাপ খেয়ে মরল বাঘ। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে গাজীপুরের শ্রীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে।
গুইসাপ খাওয়ার পরই অসুস্থ হয়ে পড়ে বাঘটি। পরে সাতদিন অসুস্থতায় ভুগে ঈদের দিন বাঘটির মৃত্যু হয়। এখন এ পার্কে বাঘ পরিবারের সদস্য সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২টিতে।

সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. তবিবুর রহমান জানান, গত ৫ আগস্ট দুপুরে পার্কের বাঘ বেষ্টনীতে এক বাঘ বড় আকৃতির একটি গুইসাপ খেয়ে ফেলে। পরে এদিন অন্যান্য বাঘ খাবার খেতে নির্দিষ্ট ঘরে গেলেও ওই বাঘটি আর ফেরেনি। পরদিন বাঘ বেষ্টনীর গেটম্যান নজরুল ইসলাম বাঘের গুইসাপ খাওয়ার কথা জানান আমাকে। বাঘটি গুইসাপ খাওয়ার পর থেকেই কোনো খাবার না খেয়ে ঝিমুতে শুরু করে। এরপর একে চিকিৎসার জন্য ৭ আগস্ট ট্রাঙ্কুলাইজার ব্যবহার করে, অচেতন করে চিকিৎসা দেয়া হয়। ৯ আগস্ট থেকে বাঘটি প্রকাশ্যে কোথাও দেখা যাচ্ছিল না। পরে ঈদের দিন বেলা পৌনে ১২টার দিকে বাঘ বেষ্টনীর ভেতরে রাস্তার উপরে মৃতাবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায় বাঘটিকে।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে গুইসাপ খেয়েই বাঘটি অসুস্থ হয়ে পড়ে এবং অন্য স্বাভাবিক খাবার না খেয়ে মারা গেছে। এ ছাড়া এটিকে বিষধর কোনো সাপেও কেটে থাকতে পারে।

এ ব্যাপারে মেডিকেল বোর্ড ও তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়নি। তবে শ্রীপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা উকিল উদ্দিন মৃত বাঘের ময়নাতদন্ত করার পর তার দেহের নমুনা পরীক্ষার জন্য ১৩ আগস্ট ঢাকার কেন্দ্রীয় রোগ গবেষণালয়ে পাঠানো হয়েছে। ওই রিপোর্ট পাওয়ার পর বাঘ মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

শ্রীপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা উকিল উদ্দিন জানান, খাদ্যের বিষক্রিয়া থেকেই বাঘটির মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর