ব্রেকিং:
শীতার্তদের পাশে সংবাদপত্র কর্মীরা স্বাস্থ্য সেবা হচ্ছে মানবতার প্রধান উৎস মাদকমুক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়তে ‘আলোর সিঁড়ি’র ব্যতিক্রমী উদ্যোগ কাদিয়ানিদের অমুসলিম ঘোষনার দাবিতে বিক্ষোভ মাদকাসক্ত স্বামীকে পুলিশে দিলেন স্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেন আগুন শেখ হাসিনা সড়কে ব্রিজের নির্মাণকাজ পরিদর্শন বিশ্ববিখ্যাত ইনটেলের চেয়ারম্যান হলেন বাংলাদেশি ওমর ইশরাক পবিত্র জুমাবারের সুন্নতগুলো জেনে নিন ছড়িয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাস, সৌদিতে ভারতীয় আক্রান্ত পাকিস্তানকে হারাতে আজ মাঠে নামবে টাইগাররা রোহিঙ্গা গণহত্যা: মিয়ানমারের বিরুদ্ধে চার আদেশ ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস আজ মাদরাসায় এক কেজি মুড়ির বিল ১৪ হাজার ৮৮০ টাকা! সেনাবাহিনীর শীতকালীন মহড়া প্রত্যক্ষ করেন প্রধানমন্ত্রী আজিজুল হকের মায়ের মৃত্যুতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের শোক সরকারি নির্মাণাধীন বাসগৃহ পরিদর্শন করেন ইউএনও মৎস্য ব্যবসায়ীদের বাজার বর্জন বাজার ব্যবস্থাপনা ও সংস্কার কাজ পরিদর্শন আকস্মিক কলেজ পরিদর্শনে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী

শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১১ ১৪২৬   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

১৩৮

গাঢাকা দিয়েছে মাদক ব্যবসায়ীরা!

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২০  

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার সংশ্লিষ্ট অনেক মাদক ব্যবসায়ী গাঢাকা দিয়েছেন। যার কারনে মাদক বেচা কেনার পয়েন্ট গুলিতে অভিযান চালিয়েও পুলিশ কোনো মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করতে পারছেনা। মাঝে-মধ্যে দু-একটা ছিচকে মাদক বিক্রেতা ২০-৫০ পিছ ইয়াবা টেবলেট সহ ধরা পরলেও প্রকৃত মাদক ব্যবসায়ীরা থকেন ধরা ছোয়ার বাইরে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, যেসব ছিচকে মাদক ব্যবসায়ী মাদক সহ আটক হয় তাদের অধিকাংশই মাদক সেবি। তারা নিজেদের নেশার উপাদান যোগার করতেই ছোটখাট মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত হয়।

দেখা যায়, গত দু’বছরে মাদকের যে সকল বড় বড় চালান ধরা হয়েছে এবং তাদের সাথে আটক কৃতরা কেউ এ এলাকার নয়। ব্রাহ্মনবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলাটি পাশ্বরর্তী দেশ ভারতের সিমানা বর্তী এলাকার কাছাকাছি হওয়ায় উপজেলার শিবপুরের রাধিকা সড়কটি মাদক ব্যবসায়ীদের সবচাইতে বড় যোগাযোগের মাধ্যম হয়ে উঠেছে। এ রাস্তা দিয়েই রাজধানি সহ দেশের বিভিন্ন জেলা উপজেলা গুলিতে মাদকের বড় যোগান মিলে।

স্থানীয়রা জানায়,আইনশংখলা বাহিনীর চলমান অভিযানে আনেকেই নবীনগর থেকে অন্যত্র গিয়ে আত্মগোপন করেছেন। উপজেলার শিবপুর-কনিকারা ও সোহাতা-রছুল্লাবাদের সড়কটিতে প্রশাসনের কঠোর নজরদারি থাকলে এ এলাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় মাদকের বিস্তার অনেকটাই কমে যাবে।

নবীনগর থানা ওসি রনোজিত রায় জানান,আমাদের মাদক বিরোধী অভিযান অব্যহত আছে। উপজেলার মাদক ব্যবসায়ীদের একটি লিষ্ট আমাদের হাতে আছে। ইতিমধ্যেই আমরা কিছু মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেপ্তার করেছি,বাকিদের গ্রেপ্তার করতে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর