ব্রেকিং:
দুর্ধর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আটক সাংবাদিকতায় দেশ সেরা অ্যাওয়ার্ড পেলেন মিশু জেলা উন্নয়ন সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত বিষ প্রয়োগে সর্বশান্ত মৎস্য চাষী বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিবকে সংবর্ধনা পাঁচ দফা দাবিতে ফারিয়ার মানববন্ধন মসজিদের দেয়ালে ফাটল, আতঙ্কে মুসল্লিরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক উদ্ধার মাদক বিরোধী প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত মাদকসেবীর হুমকিতে স্কুলে যাওয়া বন্ধ শিক্ষার্থীর ফুটপাত দখলমুক্ত করলেন ইউএনও শারীরিক সক্ষম হলেই রক্তদান করবে শিক্ষার্থীরা একই তেলে বার বার রান্না ক্যান্সার ও হৃদরোগের কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার ওপর জোর দেয়ার তাগিদ তথ্যমন্ত্রীর মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিকে অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী নারীর মনে জায়গা পাওয়ার উপায় পানিতে পড়া ফোন যেভাবে দ্রুত সারিয়ে তুলবেন যে কারণে ‘সুদ’ হারাম উদ্বোধন হলো শেখ কামাল ক্লাব কাপ আওয়ামী লীগের সম্মেলন মানেই নতুন মুখ: কাদের

সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

৭৭০

ক্যান্সারকে হারিয়ে টেবিল টেনিসে বাঙালি বালকের বিশ্বজয়

প্রকাশিত: ১৬ জুলাই ২০১৯  

ক্যান্সার কুঁড়ে কুঁড়ে খাচ্ছে অরণ্যতেশ গঙ্গোপাধ্যায়কে। বয়স তার ৮ বছর, তবুও আত্মবিশ্বাসের কমতি নেই। নিজের ইচ্ছে শক্তির কারণেই মস্কোতে আয়োজিত ওয়ার্ল্ড চিলড্রেনস উইনার্স গেমসে সোনা জিতেছে এই বাঙালি বালক।

মস্কোতে আয়োজিত এই গেমসে ক্যান্সার যোদ্ধাদের নিয়ে প্রতিযোগিতা হয় গত ৪ থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত। সেখানেই টেবিল টেনিসে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হুগলী নদীর তীরের এই বালক।

অরণ্যতেশের লিউকিমিয়া ধরা পড়ে ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে। তারপর মুম্বাইতে প্রায় এক বছর থাকতে হয় তাকে। ২০১৮ সালে ক্যান্সার যুদ্ধে অনেকটাই জয়ী হয় সে। পুরোপুরি সুস্থ হতে এখনো অনেক সময়ের প্রয়োজন। মুম্বাইয়ের টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালে অরণ্যের চিকিৎসা চলছে।

 

সোনার জেতার পর অরণ্যতেশ

সোনার জেতার পর অরণ্যতেশ

অরণ্যতেশের মা কাবেরী বলেছেন, প্রতিযোগীতায় অংশ নেবে শুনেই খুবই উচ্ছ্বসিত ছিল সে। সে যে ক্যান্সারে আক্রান্ত, সেটা ভুলেই গেছে। তার মনোযোগ ছিল খেলায়। এখন সে বিশ্বজয়ের আনন্দে মাতোয়ারা।

কাবেরী আরো বলেছেন, গত দু’মাস ধরে অনেক পরিশ্রম করেছে অরন্যতেশ। সকাল সাড়ে পাঁচটায় শুরু হত ওর দিন। ৬টা থেকে দেড় ঘণ্টা চলত ট্র্যাক এবং ফুটবল প্র্যাকটিস। আর তারপরেই সাঁতার, দাবা এবং টেবিল টেনিস খেলত। সন্ধ্যা বেলায় শ্যুটিং ক্লাসে যেত অরণ্য।

শ্যুটিং কোচ পঙ্কজ পোদ্দার বলেন, অরণ্যতেশ যে ধরনের শান্ত ছেলে আর খেলার প্রতি ওর মনোনিবেশ। আমি তাকে দেখে মাঝেমধ্যে অবাক হয়ে যাই। আমরা এখনো ওকে ট্রেনিং দিয়ে যেতে চাই।

মস্কোতে আয়োজিত এই প্রতিযোগিতায় ট্র্যাক এন্ড ফিল্ড, ফুটবল, দাবা, টেবিল টেনিস, সাঁতার এবং রাইফেল শুটিং ছিল।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর