ব্রেকিং:
বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে যোগ্য শিক্ষক চায় ইউজিসি মিন্নি-নয়ন বন্ডের গোপন বিয়ের বিস্তারিত তথ্য ফাঁস রিফান্ডের নামে ইভ্যালির প্রতারণা ফেসবুক লাইভে এসে বিকৃত উল্লাস করা সেই ৪ ধর্ষক রিমান্ডে চীনে আটকে পড়াদের ফিরিয়ে আনতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ হঠাৎ সাক্ষাতে ভোট চাইলেন আতিকুল, ফখরুল বললেন... বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস আসবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী সোলাইমানিকে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী নিহত! ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম-সিলেটের নতুন রুট হচ্ছে নাসিরনগরে এসএসসি শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান শ্রীঘর একাদশকে হারিয়ে নাসিরনগর সদর একাদশ বিজয়ী নবীনগরে জাতীয় জলাতঙ্ক রোগের টিকাদান অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত জলাতঙ্ক নির্মূলে মানুষের পাশাপাশি কুকুরকেও ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে করোনা ভাইরাস নিয়ে আখাউড়া স্থলবন্দরে সতর্কতা অবলম্বন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিক্ষকের উপর হামলা, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ প্রধানমন্ত্রীর কাছে সন্তানহারা মায়ের আকুতি জলাতঙ্ক নির্মূলে কুকুরকে টিকাদান কার্যক্রম শুরু ৩০ জানুয়ারি বোর্ড পরীক্ষায় সফলতার বিকল্প নেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গাঁজাসহ এক নারী ধরা আখাউড়ায় অর্ধশতাধিক স্থাপনা উচ্ছেদ

বুধবার   ২৯ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১৫ ১৪২৬   ০৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

৮৩২

ক্যান্সারকে হারিয়ে টেবিল টেনিসে বাঙালি বালকের বিশ্বজয়

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ১৬ জুলাই ২০১৯  

ক্যান্সার কুঁড়ে কুঁড়ে খাচ্ছে অরণ্যতেশ গঙ্গোপাধ্যায়কে। বয়স তার ৮ বছর, তবুও আত্মবিশ্বাসের কমতি নেই। নিজের ইচ্ছে শক্তির কারণেই মস্কোতে আয়োজিত ওয়ার্ল্ড চিলড্রেনস উইনার্স গেমসে সোনা জিতেছে এই বাঙালি বালক।

মস্কোতে আয়োজিত এই গেমসে ক্যান্সার যোদ্ধাদের নিয়ে প্রতিযোগিতা হয় গত ৪ থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত। সেখানেই টেবিল টেনিসে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হুগলী নদীর তীরের এই বালক।

অরণ্যতেশের লিউকিমিয়া ধরা পড়ে ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে। তারপর মুম্বাইতে প্রায় এক বছর থাকতে হয় তাকে। ২০১৮ সালে ক্যান্সার যুদ্ধে অনেকটাই জয়ী হয় সে। পুরোপুরি সুস্থ হতে এখনো অনেক সময়ের প্রয়োজন। মুম্বাইয়ের টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালে অরণ্যের চিকিৎসা চলছে।

 

সোনার জেতার পর অরণ্যতেশ

সোনার জেতার পর অরণ্যতেশ

অরণ্যতেশের মা কাবেরী বলেছেন, প্রতিযোগীতায় অংশ নেবে শুনেই খুবই উচ্ছ্বসিত ছিল সে। সে যে ক্যান্সারে আক্রান্ত, সেটা ভুলেই গেছে। তার মনোযোগ ছিল খেলায়। এখন সে বিশ্বজয়ের আনন্দে মাতোয়ারা।

কাবেরী আরো বলেছেন, গত দু’মাস ধরে অনেক পরিশ্রম করেছে অরন্যতেশ। সকাল সাড়ে পাঁচটায় শুরু হত ওর দিন। ৬টা থেকে দেড় ঘণ্টা চলত ট্র্যাক এবং ফুটবল প্র্যাকটিস। আর তারপরেই সাঁতার, দাবা এবং টেবিল টেনিস খেলত। সন্ধ্যা বেলায় শ্যুটিং ক্লাসে যেত অরণ্য।

শ্যুটিং কোচ পঙ্কজ পোদ্দার বলেন, অরণ্যতেশ যে ধরনের শান্ত ছেলে আর খেলার প্রতি ওর মনোনিবেশ। আমি তাকে দেখে মাঝেমধ্যে অবাক হয়ে যাই। আমরা এখনো ওকে ট্রেনিং দিয়ে যেতে চাই।

মস্কোতে আয়োজিত এই প্রতিযোগিতায় ট্র্যাক এন্ড ফিল্ড, ফুটবল, দাবা, টেবিল টেনিস, সাঁতার এবং রাইফেল শুটিং ছিল।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর