ব্রেকিং:
পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পশু কোরবানি বাংলাদেশে বন্যাদুর্গতদের পুনর্বাসনে রয়েছে ১২০ কোটি টাকা বরাদ্দ ঘুষদাতার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী হুজুর সেজে ধর্ষককে ধরলেন পুলিশ কর্মকর্তা বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলা, নিহত বেড়ে ৬৩ ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইনের রমণীদের পছন্দ বাংলাদেশি ছেলে রোহিঙ্গা নির্যাতন তদন্তে ঢাকায় মিয়ানমারের তদন্ত দল ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ টাইগারদের হেড কোচ হলেন রাসেল ডমিঙ্গো ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’ স্মার্টকার্ড পাবে ছয় বছরের শিশুও! হাঁসে হাসি-খুশির সংসার ‘বিশ্ববন্ধু’ উপাধি পেলেন বঙ্গবন্ধু ল্যান্ড ফোনের মাসিক লাইন রেন্ট বাতিল প্রসব বেদনা নিয়েই ছয় কিলোমিটার হাঁটলেন কাশ্মীরি মা সাড়ে ৩ হাজার রোহিঙ্গা ফিরিয়ে নিচ্ছে মিয়ানমার ‘ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করলেও তার আদর্শের মৃত্যু ঘটাতে পারেনি’ শনিবার থেকে কাঁচা চামড়া কিনবেন ট্যানারি মালিকরা আখাউড়ায় তিতাস ব্রিজে দর্শনার্থীদের ভীড় ডেঙ্গু প্রতিরোধে ছুটি শেষে বাসায় ফিরে যা করবেন

রোববার   ১৮ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৩ ১৪২৬   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

১৫

কোন দেশে কতটুকু সোনা মজুদ রয়েছে জানেন কি?

প্রকাশিত: ৯ আগস্ট ২০১৯  

বিশ্বর বৃহত্তম বাণিজ্যিক উপাদান সোনা। এর মজুদের ওপর নির্ভর করে সে দেশের মূদ্রার মূল্য নির্ধারণ করা হয়। দেশের অর্থনৈতিক উন্নতি-অবনতিও এই সোনার ওপর নির্ভরশীল। 
সোনা মজুদের ক্ষেত্রে শীর্ষ দেশগুলোর একটি তালিকা প্রকাশ করেছে ফোর্বস ম্যাগাজিন। তালিকায় শীর্ষ আছে যুক্তরাষ্ট্র, আর দশম অবস্থানে রয়েছে ভারত। আসুন জেনে নিই কাদের সোনার পরিমাণ কতো? 

যুক্তরাষ্ট্র : সোনা মজুদের ক্ষেত্রে অনেক বছর ধরে বিশ্বব্যাপী সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। বর্তমানে দেশটির মোট ৮ হাজার ১৩৩ দশমিক ৫ টন সোনার মজুদ রয়েছে। তালিকার পরবর্তী তিন দেশের সোনার পরিমাণ যুক্তরাষ্ট্রের পরিমাণের প্রায় সমান।

জার্মানি : ইউরোপীয় দেশ হিসেবে সবচেয়ে বেশি সোনার মজুদ আছে জার্মানিতে। বিশ্বে দ্বিতীয়। দেশটির মোট সোনার মজুদ ৩ হাজার ৩৭১ টন। ২০১৭ সালে দেশটি ফ্রান্স ও যুক্তরাষ্ট্রের দু’টি ব্যাংক থেকে ৬৭৪ টন সোনা দেশে ফিরিয়ে এনেছে।

ইতালি : বহু বছর ধরে একই পরিমাণ সোনার মজুদ বজায় রেখেছে ইতালি। ফোর্বসের তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। বর্তমানে তাদের ২ হাজার ৪৫১ দশমিক ৮ টন সোনার মজুদ রয়েছে। ডলারের দর উত্থান-পতনের বিপরীতে নিজেদের অবস্থান ঠিক রাখার স্বার্থে মজুদ ধরে রাখার কথা বলে থাকে দেশটি।

ফ্রান্স : গত কয়েক বছরে কিছু পরিমাণ বিক্রির পরও সোনা মজুদে চতুর্থ স্থানে আছে ফ্রান্স। বর্তমানে ইউরোপীয় দেশটির সোনা মজুদের পরিমাণ মোট ২ হাজার ৪৩৬ টন।

রাশিয়া : গত ছয় বছর ধরে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সোনার ক্রেতা রাশিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংক। মোট ১ হাজার ৯০৯ দশমিক ৮ টন সোনার মজুদ নিয়ে পঞ্চম অবস্থানে আছে দেশটি। ২০১৭ সালে ২২৪ টন সোনা কেনার কারণে চীনকে টপকে পঞ্চম স্থানে আসতে পেরেছে রাশিয়া।

চীন : দেশটিতে সোনার মজুদ আছে ১ হাজার ৮৪২ দশমিক ৬ টন। স্বর্ণ মজুদের ক্ষেত্রে পিপলস ব্যাংক অব চায়না ষষ্ঠ অবস্থানে থাকলেও তা দেশটির মোট রিজার্ভের মাত্র ২ দশমিক ৪ শতাংশ। বিশ্বব্যাপী কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোর হিসাবে সোনা রিজার্ভে ব্যাংকটির অবস্থান ১০ম।

সুইজারল্যান্ড : ১ হাজার ৪০ টন সোনার মজুদ আছে সুইজারল্যান্ডের। মজুদের পরিমাণের বিচারে সপ্তম অবস্থানে থাকলেও মাথাপিছু মজুদের ক্ষেত্রে দেশটি এক নম্বরে আছে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ইউরোপের সোনা বেচাকেনার প্রধান কেন্দ্র ছিল সুইজারল্যান্ড, একই সঙ্গে মিত্রশক্তি ও অক্ষশক্তি উভয়ের লেনদেন ছিল তাদের সঙ্গে।

জাপান : বিশ্বের তৃতীয় সর্বোচ্চ অর্থনীতির দেশ জাপানে সোনার মজুদ আছে ৭৫৬ দশমিক ২ টন। ২০১৬ সালে সোনা রিজার্ভে সুদের হার শূন্যতে নামিয়ে আনে দেশটি, যার ফলে বিশ্বব্যাপী সোনার আদান-প্রদান বেড়ে যায়।

নেদারল্যান্ডস : দেশটির প্রধান ব্যাংকে মজুদ আছে ৬১২ দশমিক ৫ টন সোনা। সম্প্রতি ব্যাংকটি বিপুল পরিমাণ সোনা যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফেরত এনেছে।

ভারত : ভারতীয়দের সোনার প্রীতি সর্বজনবিদিত। পৃথিবীতে সোনার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভোক্তাও দক্ষিণ এশিয়ার দেশটি। বর্তমানে ৫৬০ দশমিক ৩ টন সোনার মজুদ আছে ভারতের।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর