ব্রেকিং:
শীতার্তদের পাশে সংবাদপত্র কর্মীরা স্বাস্থ্য সেবা হচ্ছে মানবতার প্রধান উৎস মাদকমুক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়তে ‘আলোর সিঁড়ি’র ব্যতিক্রমী উদ্যোগ কাদিয়ানিদের অমুসলিম ঘোষনার দাবিতে বিক্ষোভ মাদকাসক্ত স্বামীকে পুলিশে দিলেন স্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেন আগুন শেখ হাসিনা সড়কে ব্রিজের নির্মাণকাজ পরিদর্শন বিশ্ববিখ্যাত ইনটেলের চেয়ারম্যান হলেন বাংলাদেশি ওমর ইশরাক পবিত্র জুমাবারের সুন্নতগুলো জেনে নিন ছড়িয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাস, সৌদিতে ভারতীয় আক্রান্ত পাকিস্তানকে হারাতে আজ মাঠে নামবে টাইগাররা রোহিঙ্গা গণহত্যা: মিয়ানমারের বিরুদ্ধে চার আদেশ ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস আজ মাদরাসায় এক কেজি মুড়ির বিল ১৪ হাজার ৮৮০ টাকা! সেনাবাহিনীর শীতকালীন মহড়া প্রত্যক্ষ করেন প্রধানমন্ত্রী আজিজুল হকের মায়ের মৃত্যুতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের শোক সরকারি নির্মাণাধীন বাসগৃহ পরিদর্শন করেন ইউএনও মৎস্য ব্যবসায়ীদের বাজার বর্জন বাজার ব্যবস্থাপনা ও সংস্কার কাজ পরিদর্শন আকস্মিক কলেজ পরিদর্শনে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী

শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১১ ১৪২৬   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

১০৪৮

কেন অস্বাভাবিক সন্তান জন্ম নেয় জানেন?

প্রকাশিত: ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

অনেক শিশুই  শারীরিক এবং মানসিক ত্রুটি নিয়ে জন্মায়, প্রতিবন্ধী হয়ে জন্মায়, এটি কেন হয়? আসলে মা বাবার বিভিন্ন ভুলের কারণেই সন্তান স্বাভাবিকভাবে জন্ম গ্রহণ করে। তাই সময় থাকতেই সকল মা বাবাদের এই বিষয়গুলোতে সচেতন হতে হবে।

> গর্ভাবস্থায় মা যদি চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনো ওষুধ খান তাহলে গর্ভের শিশুর বিভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গ তৈরিতে বাধা সৃষ্টি হতে পারে। ফলে শিশুর প্রতিবন্ধী হওয়ার সম্ভবনা থেকে যায়।

> মায়ের বয়স যদি খুব অল্প হয় অথবা খুব বেশি হয় অর্থাৎ যদি ৪০ বছরের বেশি হয় তাহলে শিশুর জন্মের সময় ঝুঁকি থেকেই যায়।

> মা যদি গর্ভাবস্থায় ঘন ঘন খিঁচুনি রোগে আক্রান্ত হয় তাহলে শিশুর অক্সিজেনের অভাব ঘটতে পারে, ফলে শিশু মানসিক রোগে আক্রান্ত হতে পারে।

> কোনো কোনো ক্ষেত্রে দেখা যায় নিকট আত্মীয়দের মধ্যে বিয়ে হলে তাদের শিশুর প্রতিবন্ধী হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

> মায়ের শরীরে কোনো তেজস্ক্রিয় পদার্থের প্রবেশ ঘটলে বা বাবা মায়ের রক্তে (আরএইচ) উপাদান থাকলেও হতে পারে শিশুর সমস্যা।

> শিশু জন্মের সময় মাথায় জোড়ে আঘাত পেলে সেই শিশু হতে পারে প্রতিবন্ধী। শিশু ছোটো বেলায় পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পেলেও সমান সমস্যা হতে পারে।

> একটু সচেতন হলে শিশুর জন্মের পরেই যদি প্রতিবন্ধকতা শনাক্ত করা যায় তাহলে দ্রুত চিকিৎসা শুরু করে দিলে এই সমস্যা থেকে সমাধান পাওয়া সম্ভব।

> প্রতিবন্ধকতা রোধ করতে গর্ভাবস্থায় পুষ্টিকর খাদ্য খেতে হবে। ওষুধ খাওয়ার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে এবং সুস্থ পরিবেশে শিশুকে লালনপালন করতে হবে। এছাড়া বেশি বয়সে গর্ভধারণ না করাই ভাল।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর