ব্রেকিং:
কসবায় ভিজিডি কার্ডের চাউল বিতরণ মাদক বিরোধী অভিযানে আটক তিন কারা থাকছে আখাউড়ায় ছাত্রলীগের কমিটিতে সুশাসনের জন্য দুর্নীতিই প্রধান অন্তরায় সরাইলে অপপ্রচার নিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ বিএনপি নেতা দুদুর বিরুদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মামলা বিএনপি’র পকেট কমিটি বাতিলের দাবীতে বিক্ষোভ ও ঝাঁড়ু মিছিল ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত মুসলিম যাত্রী থাকায় আমেরিকান এয়ারলাইনসের ফ্লাইট বাতিল নির্ধারিত সময়ে প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে: এলজিআরডি মন্ত্রী ব্যাংক নোটের আদলে বিল ব্যবহারে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের হুঁশিয়ারি তিন স্পা সেন্টার থেকে ১৬ নারী ও ৩ পুরুষ আটক দেশে বেড়েই চলেছে ইন্টারনেটের গ্রাহক সংখ্যা শাবিপ্রবি উপাচার্য ফরিদ উদ্দিনের অনিয়ম ও দুর্নীতির শ্বেতপত্র রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সরকারের উদ্যোগের ঘাটতি নেই ক্যাসিনো চালাতে দেয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তেল স্থাপনায় হামলার প্রতিশোধ নেবে সৌদি আরব অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করছে আওয়ামী লীগ মাদক ব্যবসায়ীদের চেনার উপায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ১১ জন খেলাঘরের জাতীয় পরিষদে

সোমবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৮ ১৪২৬   ২৩ মুহররম ১৪৪১

১১

কাশ্মির পরিস্থিতি নিয়ে জাতিসংঘের উদ্বেগ

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

কাশ্মির পরিস্থিতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের প্রধান মিশেল ব্যাচেলেট। 

সোমবার মানবাধিকারের পক্ষে জাতিসঙ্ঘের হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচেলেট মানবাধিকার কাউন্সিলের ৪২তম অধিবেশনের উদ্বোধনী ভাষণে উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, জম্মু-কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদাকে বাতিল করে দেয়ার পরে কেন্দ্রীয় সরকার যেভাবে সে রাজ্যে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করে রেখেছে সে সম্পর্কে তিনি ‘গভীরভাবে উদ্বিগ্ন’।

গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে কাশ্মিরে বিভিন্ন বিধিনিষেধ ও নিরাপত্তা ব্যবস্থার কঠোরতায় কার্যত রাজ্যটি অবরুদ্ধ হয়ে আছে। সেখানকার নাগরিকরাও ব্যাপক দুর্ভোগের মধ্যে রয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের প্রধানের উদ্বেগ প্রকাশে বিষয়টি অন্যমাত্রা পেয়েছে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন। 

মিশেল ব্যাচেলেট বলেন, আন্তর্জাতিক যোগাযোগ ও শান্তিপূর্ণ সমাবেশে বিধিনিষেধ আরোপ ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের আটকে রাখাসহ কাশ্মিরিদের মানবাধিকার নিয়ে ভারত সরকারের সাম্প্রতিক পদক্ষেপের প্রভাব সম্পর্কে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি। 

ব্যাচেলেট বলেন, যদিও আমি ভারত ও পাকিস্তান উভয় দেশের সরকারকেই মানবাধিকারকে সম্মানিত ও সুরক্ষিত করার জন্য অনুরোধ করে চলেছি। তবুও আমি বিশেষ করে ভারতের কাছে বর্তমান অবরুদ্ধ পরিস্থিতি বা কারফিউকে সহজ করার জন্য, মৌলিক পরিসেবাগুলোতে মানুষের প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করার জন্য আবেদন করেছি। যেসব নেতারা আটক রয়েছেন তাদের মানবাধিকারের প্রতিও যাতে শ্রদ্ধা জানানো হয় সেই অনুরোধ করছি। এসব বিষয়ে কাশ্মীরের জনগণের সঙ্গে পরামর্শ করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা ওই সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফলে তাদের ভবিষ্যতের ওপরে প্রভাব পড়বে।

কাশ্মীরের পাশাপাশি আসামের জাতীয় নাগরিক পঞ্জি বা এনআরসি নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের প্রধান মিশেল ব্যাচেলেট। তিনি বলেন, আসামে জাতীয় নাগরিকপঞ্জিকরণ বা এনআরসির মাধ্যমে অবৈধ অভিবাসীদের চিহ্নিত করার লক্ষ্যে যে চরম অনিশ্চয়তা ও উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে তা নিয়েও চিন্তিত তিনি।

এ ব্যাপারে তিনি ভারত সরকারের কাছে আবেদন প্রক্রিয়া চলাকালীন যথাযথ কার্যাবলী নিশ্চিত করতে এবং নির্বাসন বা আটকে রাখা রোধ করতে ও মানুষকে রাষ্ট্রহীন হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করা নিশ্চিত করার জন্য আবেদন করেছেন।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর