ব্রেকিং:
শুধু ফুসফুস নয় হার্টে গিয়েও থাবা বসাচ্ছে করোনা! দেশের বিভিন্ন স্থানে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে গুরুতর আহত ক্রিকেটার লিটন দাসের স্ত্রী দেশের সব স্টেডিয়াম হাসপাতালের জন্য উন্মুক্ত : ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী করোনা ভাইরাস নিরাময়ে ওষুধ আবিষ্কার হয়ে গেছে সম্ভবত স্যানিটাইজার উৎপাদন করতেই কর্মকর্তা বদলী!!! দেহে করোনা প্রবেশ করলে যা যা ঘটে দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ ভিক্ষা করলে পেটে ভাত “না করলে নাই বাড়ি বাড়ি গিয়ে খোঁজ খবর নিয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন ইউএনও জীবানুনাশক ও পানি ছিটিয়ে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম শুরু হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা মানুষের পাশে জাতীয় পার্টি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় সরকারি কর্মকর্তা নিহত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নতুন করে আরো ১০৭ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে জন সচেতনতায় মাইক হাতে রাস্তায় চেয়ারম্যান জনকল্যাণ সংগঠনের উদ্যোগে হেন্ড সেনিটাইজার ও মাস্ক রিতরণ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অস্ত্র-গুলিসহ দুইজন আটক পিপিই পেলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাংবাদিকরা ‘ভাইরাল হওয়া ভিডিও ছাত্রলীগের নয়, বিএনপি নেতার ছেলের’ হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিতে প্রবাসীদের বাড়িতে সেনা অভিযান
  • মঙ্গলবার   ৩১ মার্চ ২০২০ ||

  • চৈত্র ১৬ ১৪২৬

  • || ০৬ শা'বান ১৪৪১

করোনার প্রভাবে আখাউড়া স্থলবন্দরের পণ্য রফতানি কার্যক্রম বন্ধ

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ২৫ মার্চ ২০২০  

করোনাভাইরাসের প্রভাবে বন্ধ হলো ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড় স্থলবন্দরের পণ্য রফতানি কার্যক্রম। করোনার কারণে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের আগরতলা শহর লকডাউন করায় পণ্য না নেয়ার কথা জানিয়েছেন সেখানকার ব্যবসায়ীরা। ফলে মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) সকাল থেকে আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে আগরতলায় কোনো পণ্যবোঝাই ট্রাক প্রবেশ করতে না পারায় ৭০ থেকে ৮০টি ট্রাক আটকা পড়েছে।

স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীরা জানান, করোনাভাইরাসের কারণে আগরতলা শহর লকডাউন করে দেয়া হয়েছে। ফলে সেখানকার ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশ থেকে আপাদত পণ্য নিতে পারছেন না। বিষয়টি তারা আগরতলা কাস্টমস ও বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের মৌখিকভাবে জানিয়েছেন। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত পণ্য রফতানি বন্ধ থাকবে আগরতলায়।

আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে গড়ে প্রতিদিন বিভিন্ন পণ্যবোঝাই ৪০-৫০টি ট্রাক আগরতলায় প্রবেশ করে। এসব পণ্য আগরতলা থেকে দেশটির সেভেন সিস্টার খ্যাত সাতটি রাজ্যে সরবরাহ করা হয়। বিকেল সাড়ে ৪টার পর পণ্য না নেয়ার বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের চিঠি দিয়ে অবগত করা হবে বলে জানা গেছে।

আখাউড়া স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম বলেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত আগরতলার ব্যবসায়ীরা পণ্য নেবে না বলে জানিয়েছেন। আটকে পড়া পণ্যবোঝাই ট্রাকগুলো বন্দরের ওয়্যারহাউসে বিনা চার্জে রাখার জন্য আমরা ইতিমধ্যে স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের কাছে চিঠি পাঠিয়েছি।

এর আগে গত ১২ মার্চ আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে যাত্রী পারাপার বন্ধ করে দেয় আগরতলা ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্ট কর্তৃপক্ষ।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর