ব্রেকিং:
উদ্ধারকৃত গরুর মালিককে খোঁজছে পুলিশ কাজ করতে করতে জীবন শেষ, তবুও শোধ হয় না দাদনের টাকা! একাধিক রিপোর্ট হওয়া সত্ত্বেও পড়ছে না প্রশাসনের সুদৃষ্টি গৃহবধূকে উত্ত্যক্ত করার দায়ে যুবকের কারাদণ্ড গাছে-গাছে সৌরভ ছড়াচ্ছে আমের মুকুল মাদ্রাসার হোস্টেলে ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ! কাতারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কৃতিত্বপূর্ণ সাফল্য অর্জন চাঞ্চল্যকর রকেট হত্যার ঘটনায় প্রতিবাদ সভা প্রতিবন্ধীদের ভাতা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ চোরাচালান প্রতিরোধ ও আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত বাবাকে পেটানোর প্রতিশোধ নিতে হত্যাকাণ্ড! সোনা রোদে চোখ মেলেছে সূর্যমুখী এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহারে বাড়ছে ক্যান্সারের ঝুঁকি! অপরাধ করে কেউ পার পাবে না: ওবায়দুল কাদের পুরান ঢাকায় ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান, ২০ কোটি টাকা উদ্ধার দেশীয় বেনসন-গোল্ডলিফে মিলল নিকোটিনের চেয়েও ‘মারাত্মক’ উপাদান ক্লাসে ঢুকে নারী শিক্ষকের হাত ভাঙলেন দম্পতি হরিণের চামড়ায় দাঁড়িয়ে সৌম্যের আশীর্বাদ, পড়বেন শাস্তির মুখে! মাদকিবরোধী অভিযানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর হামলা, গাড়ি ভাঙচুর সুইসাইড নোটে কী লিখেছিলেন সালমান শাহ
  • মঙ্গলবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ১৩ ১৪২৬

  • || ০১ রজব ১৪৪১

৯৭৫

কত ভোট পেলেন ডাকসুর বিজয়ীরা

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ১২ মার্চ ২০১৯  

২৮ বছর পর ডাকসুর ইতিহাসে যোগ হলো আরেকটি নির্বাচন। এবার ভিপি ও সমাজসেবা পদ ছাড়া সবকটি পদেই জয় পেয়েছে ক্ষমতাসীনদের ছাত্রলীগ। 

সোমবার দিনভর নানা ঘটনার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচন। রাত সাড়ে তিনটার দিকে ঘোষণা করা হয় ফলাফল। 

ফলাফলে ভিপি পদে নুরুল হক নূর পেয়েছেন ১১ হাজার ৬২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছাত্রলীগের রেজওয়ানুল হক শোভন পেয়েছেন নয় হাজার ১২৯ ভোট।

জিএস পদে ছাত্রলীগের গোলাম রাব্বানী ১০ হাজার ৪৮৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কোটার রাশেদ খান পেয়েছেন ছয় হাজার ৬৩ ভোট।

এজিএস পদে ছাত্রলীগের সাদ্দাম হোসেন ১৫ হাজার ৩০১ ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কোটা আন্দোলনের ফারুক হোসেন পেয়েছেন পাঁচ হাজার ৮৯৬ ভোট।

স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক পদে জয়ী হয়েছেন ছাত্রলীগের সাদ বিন কাদের চৌধুরী। তিনি পেয়েছেন ১২ হাজার ১৮৭ ভোট।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক হয়েছেন ছাত্রলীগের মো. আরিফ ইবনে আলী। তিনি পেয়েছেন নয় হাজার ১৫৪ ভোট।

কমনরুম ও ক্যাফেটেরিয়া সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন ছাত্রলীগের লিপি আক্তার। লিপি পেয়েছেন আট হাজার ৫২৪ ভোট।

আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পদে জয়ী হয়েছেন ছাত্রলীগের শাহরিমা তানজিন অর্নি। তিনি পেয়েছেন ১০ হাজার ৬০৪ ভোট।

সাহিত্য সম্পাদক হয়েছেন ছাত্রলীগের মাজহারুল কবির শয়ন। কবির ১০ হাজার ৭০০ ভোট পেয়েছেন।

সংস্কৃতি সম্পাদক হয়েছেন ছাত্রলীগের আসিফ তালুকদার। তিনি পেয়েছেন ১০ হাজার ৭৯৯ ভোট।

ক্রীড়া সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন ছাত্রলীগের শাকিল আহমেদ তানভীর। শাকিল পেয়েছেন নয় হাজার ৪৭ ভোট।

ছাত্র পরিবহন সম্পাদক হয়েছেন ছাত্রলীগের শামস-ঈ-নোমান। তিনি পেয়েছেন ১২ হাজার ১৬৩ ভোট।

সমাজসেবা সম্পাদক পদে জয়ী হয়েছেন কোটার আখতার হোসেন। তিনি পেয়েছেন নয় হাজার ১৯০ ভোট।

এছাড়া সদস্য পদে জয়ীরা সবাই ছাত্রলীগের। সদস্য পদে যোশীয় সাংমা চিবল পেয়েছেন ১২ হাজার ৮৬৮ ভোট, মো. রকিবুল ইসলাম ঐতিহ্য পেয়েছেন ১১ হাজার ২৩২, মো. তানভীর হাসান সৈকত পেয়েছেন ১০ হাজার ৮০৫, তিলোত্তমা সিকদার পেয়েছেন ১০ হাজার ৪৬৬, নিপু ইসলাম তন্বী পেয়েছেন ১০ হাজার ৩৯৩, রাইসা নাসের পেয়েছেন নয় হাজার ৭৬৮, সাবরিনা ইতি পেয়েছেন ৯ হাজার ৪৫০, মো. রাকিবুল ইসলাম রাকিব পেয়েছেন আট হাজার ৬৭৩, নজরুল ইসলাম পেয়েছেন আট হাজার ৫০৯, মোসা. ফরিদা পারভিন পেয়েছেন আট হাজার ৪৬৯, মুহা. মাহমুদুল হাসান পেয়েছেন সাত হাজার ৯৭৮, মো. সাইফুল ইসলাম রাসেল পেয়েছেন সাত হাজার ৮১২ ভোট এবং মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম সবুজ পেয়েছেন ছয় হাজার ৫১৭ ভোট।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
নির্বাচনী হাওয়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর