ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • শুক্রবার   ০৭ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৩ ১৪২৭

  • || ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

৪৭১৭

ওসি’র কথায় মুগ্ধ হয়ে ফিরে গেছেন তাহেরী

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ১৬ নভেম্বর ২০১৯  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার শাহবাজপুর ও সদরের সৈয়দটুলা গ্রামে শুক্রবার রাতে মুফতি গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরী দু’টি মাহফিলে বক্তব্য রাখার কথা ছিল। কিন্তু ওই দুই মাহফিলে হাজারো ভক্ত গভীররাত পর্যন্ত অপেক্ষা করলেও তিনি আসেননি। পরে মাহফিল দু’টির আয়োজকদের জানানো হয় “তিনি রাতে যথাসময়ে মাহফিলের কাছাকাছি পৌঁছালেও পুলিশের কথায় রাস্তা থেকেই ফিরে যান।”

এ বিষয়ে রাতে সরাইল থানার ওসি সাহাদাত হোসেন টিটো এ প্রতিবেদককে জানান, ওই দুটি মাহফিল ঘিরে এলাকায় অস্থিরতা বিরাজ করছিল। এছাড়াও মাহফিল দুটিতে প্রশাসনের কোনো অনুমতি ছিল না।এলাকায় আইনশৃংখলা অবনতির আশঙ্কায় রাতে মহাসড়কে মুফতি গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরী’র গাড়ি থামিয়ে তাঁকে মাহফিল দুটিতে অংশগ্রহণ না করার জন্য বলা হয়। তিনি বিষয়টি বুঝতে পেরে ফিরে যান।

এ ব্যাপারে জানতে রাত সাড়ে ১১টায় মুফতি তাহেরীর মুঠোফোনে কল দিলে তিনি জানান, শতকরা নব্বই ভাগ মুসলমানের দেশ বাংলাদেশ। এই দেশে আল্লাহ-রাসূলের নামে ওয়াজ করতে গেলেও বাধা, এটা দুঃখজনক। এলাকার গরীব লোকজন সারাবছর কালেকশন করে (চাঁদা তুলে) এই মাহফিলের আয়োজন করেছেন। পুলিশ আমাকে মাহফিলে যেতে দেইনি। মুফতি তাহেরী বলেন, আমার জানা মতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ১৭ জন বক্তার ওয়াজ মাহফিল মনিটরিং করতে আইনশৃংখলা বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, তবে বাধা দিতে বলা হয়নি। সেই তালিকায় আমার নাম নেই। আমি তাহেরী সরকার ও রাস্ট্রের বিরুদ্ধে কথা বলি না। আমার বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভূতির আঘাত এনে দায়ের করা মিথ্যা মামলা আদালত খারিজ করে দিয়েছেন। আমার বিরুদ্ধে সরকারের কোন দফতর বা আদালতে কোনো অভিযোগ নেই। তারপরও আমাকে মাহফিলে যেতে দেওয়া হয়নি। রাত অনুমান ১০টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সরাইল উপজেলার প্রবেশ মুখ থেকে পুলিশ আমাকে ফিরিয়ে দিয়েছে, এটা সত্যিই দুঃখজনক। আমি সরাইল থানার ওসি সাহাদাত হোসেন টিটো’র কথায় মুগ্ধ হয়ে, তাঁকে সর্বোচ্চ সন্মান দেখিয়ে মাহফিলে না গিয়ে রাস্তা থেকেই ফিরে এসেছি।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর