ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • সোমবার   ০১ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৯ ১৪২৭

  • || ০৯ শাওয়াল ১৪৪১

৬২

এক বউয়ের তিন স্বামী, অবশেষে ধরা

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০১৯  

গোপন রেখে একাধিক বিয়ের অপরাধে প্রতারণার মামলায় তানজিলা হায়দার নামে এক নারীকে দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়া ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড ও অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেন।

বুধবার বিকেলে ফেনীর আদালত-৩ এর বিচারক এ.এস.এম এমরান এ রায় ঘোষণা করেন।

তানজিলা হায়দার ফেনী সদর উপজেলার উত্তর শর্শদী গ্রামের মেয়ে।

মামলার বাদী জাহিদ হোসেন খসরু জানান, ফেনী পৌরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের রামপুর গ্রামের হাফেজ উকিল বাড়ির জিয়াউল হক বাবলুর সঙ্গে ২০১৫ সালের ১৭ আগস্ট কাজী অফিসে আসামি তানজিলা হায়দার নিজেকে কুমারী পরিচয়ে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

প্রকৃতপক্ষে সে আবদুল্লাহ আল মামুনের সঙ্গে ফেনীর সদর উপজেলার ১ নম্বর শর্শদী ইউপি কাজী অফিসে গিয়ে  ২৪ নভেম্বর ২০১০ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। সেই বিবাহের পরও তানজিলা হায়দার নিজেকে কুমারী পরিচয় দিয়ে ফের বিয়ে করেন।

এই ঘটনায় তানজলার ৩য় স্বামী জিয়াউল হক বাবলুর মা ছালেহা বেগম বাদী আদালতে মামলা দায়ের করলে আদালত তানজিলা দোষী সাবস্থ্য হন।

মামলার বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট ফজলুল হক ছোটন ও অ্যাডভোকেট আলাউদ্দিন ভুঁইয়া ।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
সারাবাংলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর