ব্রেকিং:
সুষ্ঠু ও নকলমুক্ত পরিবেশে জেএসসি পরীক্ষা সম্পন্ন দিপা হত্যার রহস্য উদঘাটন ট্রেন দুর্ঘটনায় অনেকের দোষ পেয়েছে তদন্ত কমিটি নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরগণের দায়িত্ব গ্রহণ লাগামহীন পেঁয়াজের বাজার ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু ঝুঁকিপূর্ণ সিলেট-আখাউড়া রেলপথ! কোরআন-হাদিসে জুমা’র গুরুত্ব ও তাৎপর্য যুবলীগের বয়সসীমা শিথিলের সম্ভাবনা নেই পেঁয়াজ ছাড়া রান্না করার উপায় রেসলার ও হলিউড অভিনেতা রক মারা গেছেন! রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্তে অনুমোদন দিলো আইসিসি কক্সবাজার বিমানবন্দর উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক বরখাস্ত রোহিঙ্গার শপিং ব্যাগে মিলল ৪৯ লাখ টাকার ইয়াবা ‘জঙ্গি দমনে পুলিশের ভূমিকা ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে’ ট্রেন দুর্ঘটনার সাহসী সেই পাঁচ যুবক সন্তানের মা হলেন সেই প্রতিবন্ধী ধর্ষিতা পাল্টে গেছে সরাইল বিশ্বরোড মোড়ের দৃশ্যপট! নিয়মিত হাঁটুন সুস্থ থাকুন! ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণে কাতারে দোয়া মাহফিল

শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ১ ১৪২৬   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

এক বউয়ের তিন স্বামী, অবশেষে ধরা

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০১৯  

গোপন রেখে একাধিক বিয়ের অপরাধে প্রতারণার মামলায় তানজিলা হায়দার নামে এক নারীকে দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়া ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড ও অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেন।

বুধবার বিকেলে ফেনীর আদালত-৩ এর বিচারক এ.এস.এম এমরান এ রায় ঘোষণা করেন।

তানজিলা হায়দার ফেনী সদর উপজেলার উত্তর শর্শদী গ্রামের মেয়ে।

মামলার বাদী জাহিদ হোসেন খসরু জানান, ফেনী পৌরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের রামপুর গ্রামের হাফেজ উকিল বাড়ির জিয়াউল হক বাবলুর সঙ্গে ২০১৫ সালের ১৭ আগস্ট কাজী অফিসে আসামি তানজিলা হায়দার নিজেকে কুমারী পরিচয়ে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

প্রকৃতপক্ষে সে আবদুল্লাহ আল মামুনের সঙ্গে ফেনীর সদর উপজেলার ১ নম্বর শর্শদী ইউপি কাজী অফিসে গিয়ে  ২৪ নভেম্বর ২০১০ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। সেই বিবাহের পরও তানজিলা হায়দার নিজেকে কুমারী পরিচয় দিয়ে ফের বিয়ে করেন।

এই ঘটনায় তানজলার ৩য় স্বামী জিয়াউল হক বাবলুর মা ছালেহা বেগম বাদী আদালতে মামলা দায়ের করলে আদালত তানজিলা দোষী সাবস্থ্য হন।

মামলার বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট ফজলুল হক ছোটন ও অ্যাডভোকেট আলাউদ্দিন ভুঁইয়া ।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর