ব্রেকিং:
বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস আসবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী সোলাইমানিকে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী নিহত! ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম-সিলেটের নতুন রুট হচ্ছে নাসিরনগরে এসএসসি শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান শ্রীঘর একাদশকে হারিয়ে নাসিরনগর সদর একাদশ বিজয়ী নবীনগরে জাতীয় জলাতঙ্ক রোগের টিকাদান অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত জলাতঙ্ক নির্মূলে মানুষের পাশাপাশি কুকুরকেও ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে করোনা ভাইরাস নিয়ে আখাউড়া স্থলবন্দরে সতর্কতা অবলম্বন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিক্ষকের উপর হামলা, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ প্রধানমন্ত্রীর কাছে সন্তানহারা মায়ের আকুতি জলাতঙ্ক নির্মূলে কুকুরকে টিকাদান কার্যক্রম শুরু ৩০ জানুয়ারি বোর্ড পরীক্ষায় সফলতার বিকল্প নেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গাঁজাসহ এক নারী ধরা আখাউড়ায় অর্ধশতাধিক স্থাপনা উচ্ছেদ সিটি নির্বাচন: দুই হাজার মণ পলিথিন বর্জ্য তৈরির শঙ্কা নবীনগরে চলছে কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা ভাইরাসবাহী সন্দেহে বাংলাদেশীকে ফেরত পাঠালো ভারত একমাত্র ছেলের ছবি বুকে জড়িয়ে রাস্তায় মা মরদেহ আনতে আখাউড়া বর্ডারে হাজার হাজার মানুষ লেবাননে সড়ক দুর্ঘটনায় কসবায় শোকের মাতম

মঙ্গলবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১৫ ১৪২৬   ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

৭১৭

একজনের কিডনি ও লিভারে বাঁচলো তিনজনের প্রাণ

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ২১ আগস্ট ২০১৯  

মৃত এক গৃহবধূর শরীরের অঙ্গতে তিন ব্যক্তির জীবন বেঁচেছে। ওই গৃহবধূ জীবিত অবস্থায় তার অঙ্গদানের ইচ্ছার কথা ছেলেকে বলে গিয়েছিলেন। সোমবার রাতে তিনি মারা গেছেন ঠিকই কিন্তু তার শরীরের অংশ নিয়ে বেঁচে আছেন তিনটি প্রাণ। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের কলকাতার ইছাপুরের।

সোমবার রাতে এসএসকেএম হাসপাতালে ‘ব্রেন ডেথ’ হওয়ার পর ইতি নামের ওই নারীর অঙ্গ মঙ্গলবার ওই হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন এক রোগীর কিডনি দু’টি দেয়া হয়। আর লিভার পান কলকাতার অ্যাপোলো হাসপাতালের এক রোগী। কাঁচরাপাড়ার বাসিন্দা ওই ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তি দীর্ঘ দিন ধরে সিরোসিসে ভুগছিলেন।

অল্প দিনের ব্যবধানে পর পর সেরিব্রাল স্ট্রোকে আক্রান্ত হন কাজল দেব ও তার স্ত্রী ইতি। দু’জনকেই ভর্তি করানো হয় কলকাতার মল্লিকবাজারের এসএসকেএম হাসপাতালে। চিকিৎসায় সাড়া দিয়ে ক্রমশ সেরে উঠতে শুরু করেন কাজল।

তবে ইতির পরিস্থিতি একেবারে বিপরীত দিকে এগোতে থাকে। প্রতিদিনই তার অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে। শেষ পর্যন্ত চিকিৎসকরা পরিবারের সদস্যদের জানিয়ে দেন, ইতির ব্রেন ডেথ শুধুই সময়ের অপেক্ষা।

শেষ চেষ্টা হিসেবে গত বৃহস্পতিবার, ১৫ অগস্ট তাকে এসএসকেএমে নিয়ে যায় পরিবার। চার দিনের চেষ্টায়ও কোনো অবশ্য হয়নি। সোমবার রাতে ওই নারীর ব্রেন ডেথ ঘোষণা করেন এসএসকেএমের চিকিৎসকরা।

পরিবারের পক্ষ থেকে জয়দেব দাস নামে একজন বলেন, ওর স্বাস্থ্য সম্পর্কে মল্লিকবাজারের হাসপাতালের চিকিৎসকদের কথা শোনার পর থেকেই আমরা মানসিক ভাবে প্রস্তুতি নিয়েছিলাম।

পরিবারের পক্ষ থেকেই ঠিক করা হয়, মাঝে-মাঝেই উনি যে ইচ্ছা প্রকাশ করতেন, সেই ইচ্ছাকে মর্যাদা দেওয়ার চেষ্টা করা হবে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সম্মতির জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার আগে আমরাই এসএসকেএমে অঙ্গদানের প্রস্তাব দিই।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর