ব্রেকিং:
মওলানা ভাসানীর মৃত্যুবার্ষিকী পালিত ট্রেনে কাটা পড়ে বৃদ্ধার পা দ্বিখণ্ডিত প্রতিবন্ধী বলে থেমে নেই মাহিন স্বামীর পরকীয়া সহ্য করতে না পেরে স্ত্রীর আত্মহত্যা আমদানি রফতানি কার্যক্রম শুরু আন্তর্জাতিক পুরুষ দিবস কাল এবার তিন এমপিসহ ১০৫ জনের ব্যাংক হিসাব তলব সাজেক ভ্রমণে নতুন নির্দেশনা বিশ্বের সবচেয়ে অর্থবহ পতাকা বাংলাদেশের প্রথম পুরস্কার দুই কেজি দেশি পিঁয়াজ! প্রতি মাসেই হবে প্রাণঘাতী সুনামি! সাতদিনের মধ্যে পেঁয়াজের দাম না কমলে হাইকোর্টের হস্তক্ষেপ এবারো লটারির মাধ্যমে প্রথম শ্রেণিতে ভর্তি হঠাৎ গ্যাস লাইনে বিস্ফোরণ! জেনে নিন করণীয় বেহেশতী নারীর ৪ গুণ চূড়ান্ত হলো বঙ্গবন্ধু বিপিএলের সাত দলের ক্রিকেটার বাবরি মসজিদের জমিই দিতে হবে: মুসলিম ল বোর্ড ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেন দুর্ঘটনা: আরো দুইজনের মৃত্যু মিথিলার ‘নোংরা’ কথায় ছেয়ে গেছে সোশ্যাল মিডিয়া পেঁয়াজের নিচে চাপা পড়লেন দুইজন

সোমবার   ১৮ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৪ ১৪২৬   ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

৭৮০

এইচএসসি পরীক্ষা উপলক্ষে, এক মাস কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকার নির্দেশ

প্রকাশিত: ২৭ মার্চ ২০১৯  

আসন্ন এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা চলাকালে প্রায় এক মাসব্যাপী দেশের সব কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এ কথা জানান। তিনি বলেন, এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা সুষ্ঠু, সুন্দর ও নকলমুক্ত পরিবেশে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে আগামী ১ এপ্রিল থেকে ৬ মে পর্যন্ত সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে। যেহেতু আমরা বিশেষ কোনো ব্যবস্থা নিতে পারছি না, তাই এবার সব ধরনের কোচিং বন্ধ থাকবে।

আগামী ১ এপ্রিল থেকে ১১ মে পর্যন্ত হবে এইচএসসির তত্ত্বীয় পরীক্ষা। আর ১২ থেকে ২১ মের মধ্যে ব্যবহারিক পরীক্ষা শেষ হবে।
শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এবারের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার বিভিন্ন দিক তুলে ধরে আরো বলেন, গত বছর ১৩ লাখ ১১ হাজার ৪৫৭ জন শিক্ষার্থী এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলো। এ হিসেবে এবার পরীক্ষার্থী বেড়েছে তিন শতাংশের বেশি। এবার ২ হাজার ৫৭৯টি কেন্দ্রে ৯ হাজার ৮১টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা দ্বাদশ শ্রেণির এই চূড়ান্ত পরীক্ষা দেবে। গতবারের চেয়ে এবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বেড়েছে ১১৮টি, কেন্দ্র বেড়েছে ৩৮টি।

এইচএসসিতে এবার সারাদেশে আটটি সাধারণ বোর্ডের অধীনে ১১ লাখ ৩৮ হাজার ৭৪৭ জন, মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে আলিমে ৮৮ হাজার ৪৫১ জন, কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসি বিএম-এ ১ লাখ ২৪ হাজার ২৬৪ জন এবং ডিআইবিএসে ৪৩ জন পরীক্ষা দেবে। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে এবার ৬ লাখ ৬৪ হাজার ৪৯৬ জন ছাত্র; বাকি ৬ লাখ ৮৭ হাজার ৯ জন ছাত্রী।
শিক্ষামন্ত্রী জানান, ঢাকার বাইরে এবার বিদেশের আটটি কেন্দ্রে ২৭৫ শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেবে। এর মধ্যে ১২৭ জন ছাত্র ও ১৪৮ জন ছাত্রী।

মন্ত্রণালয়ে সভায় সিদ্ধান্ত সমূহ হচ্ছে : পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষা কক্ষে প্রবেশ করে নির্ধারিত আসনে বসতে হবে। 'অনিবার্য কারণে' কোনো পরীক্ষার্থীর দেরি হলে রেজিস্ট্রারে নাম, ক্রমিক নম্বর ও দেরির কারণ উল্লেখ করতে হবে। দেরিতে আসা পরীক্ষার্থীদের তালিকা প্রতিদিন কেন্দ্র সচিব সংশ্লিষ্ট বোর্ডকে পাঠাবেন। কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছাড়া অন্য কেউ পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন বা অননুমোদিত ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করতে পারবেন না। কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমন একটি ফোন ব্যবহার করবেন, যা দিয়ে ছবি তোলা বা ইন্টারনেট ব্যবহার করা যায় না।

ট্রেজারি বা থানা থেকে প্রশ্নপত্র গ্রহণ ও পরিবহন কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-শিক্ষক-কর্মচারীরাও কোনো ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। প্রশ্নপত্র বহনের কাজে কালো কাচের মাইক্রোবাস বা এ ধরনের কোনো যানবাহন ব্যবহার করা যাবে না।
কোন্ সেটের প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা নেয়া হবে তার কোড পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে এসএমএসের মাধ্যমে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে জানিয়ে দেয়া হবে।

এবারও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রাল পালসিজনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীরা শ্রুতিলেখক নিয়ে পরীক্ষা দিতে পারবেন। এ ধরনের পরীক্ষার্থীরা অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় পাবেন।
আর অটিস্টিকসহ বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিক্ষার্থীরা পাবেন অতিরিক্ত ৩০ মিনিট। এ ধরনের শিক্ষার্থীরা অভিভাবক, শিক্ষক বা সাহায্যকারী নিয়ে পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর