ব্রেকিং:
টিউশনির টাকায় গুজবের বিরুদ্ধে ৩১ দিন হাঁটলেন সাইফুল কন্ডিশনিং ক্যাম্পেই যাত্রা শুরু নতুন দুই কোচের প্রথম সমকামী ক্রিকেটার হিসেবে মা হচ্ছেন স্যাটারওয়েট তারেকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি কাদেরের স্মার্ট কার্ড অনলাইনে সংশোধন করবেন যেভাবে একজনের কিডনি ও লিভারে বাঁচলো তিনজনের প্রাণ পিতলের পুতুলকে সোনার মূর্তি বলে বিক্রি করে, চার জীনের বাদশা আটক বাংলাদেশ ও ইন্দোনেশিয়ার সেনাপ্রধানদের সৌজন্য সাক্ষাৎ প্রধানমন্ত্রীকে ভারত সফরে মোদির আমন্ত্রণ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার মান নিশ্চিত করতে হবে: রাষ্ট্রপতি আজ ভয়াল ২১ আগস্ট পানিবণ্টন সমস্যার সমাধান হবে: জয়শঙ্কর কুকুরের মুখ থেকে নবজাতককে বাঁচালেন পুলিশ কর্মকর্তা রক্তদানে সবাইকে এগিয়ে আসা উচিত: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নয় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালনের আগ্রহ প্রকাশ ভারতের মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা ৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ‘গাঙচিল’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী কমছে মিন্নির দোষ স্বীকার নিয়ে এসপির মন্তব্য জানতে চান হাইকোর্ট

বৃহস্পতিবার   ২২ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৬ ১৪২৬   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

৪৭

উন্নয়নের সুফল, স্বস্তির ঈদযাত্রা

প্রকাশিত: ১৩ আগস্ট ২০১৯  

আওয়ামী লীগ সরকারের ধারাবাহিক উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের ছোঁয়া লেগেছে সিলেটেও। কয়েক বছরে সিলেটের যোগাযোগ ব্যবস্থায় যুগান্তকারী উন্নয়ন হয়েছে।

এবারের ঈদযাত্রায় উন্নয়নের সুফল ভোগ করেছে সিলেটবাসী। শৃঙ্খলা বজায় থাকায় কোনো ধরনের ভোগান্তি ছাড়াই ঈদে বাড়ি ফিরেছে সিলেটের মানুষ। সড়কে ছিল না যানজট, খানাখন্দ। পাওয়া যায়নি কোনো দুর্ঘটনার খবরও।

সিলেট সড়ক ও জনপথ বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, সড়ক বিভাগের আওতায় ৫৪৪.৪৯০ কিলোমিটার দৈর্ঘের ২৮টি সড়ক-মহাসড়কের উন্নয়নে ২০০৯ সালে মধ্যমেয়াদি ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। সে অনুযায়ী চলতে থাকে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন। দশম ও একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর আরো কিছু প্রকল্প গ্রহণ করা হয়।

সরকারের ধারাবাহিক উন্নয়নে সিলেটের যোগাযোগ ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন এসেছে। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো, সুরমা নদীর উপর ১৮৯ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত কাজীর বাজার চারলেন সেতু, কুশিয়ারা নদীর উপর ২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত চন্দরপুর-সুনামপুর সেতু, ৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে সাতটি সেতু নির্মাণসহ বিয়ানীবাজার শহরে সড়ক উন্নয়ন, ৩৮ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সিলেট-সালুটিকর-কোম্পানীগঞ্জ-ভোলাগঞ্জ সড়কের ১০টি সেতু।

 

 

এছাড়া জেলা সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের (সিলেট জোন) আওতায় ৪৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে সিলেট-ভোলাগঞ্জ সড়ক উন্নয়ন, সিলেট-সুনামগঞ্জ বাইপাস সড়ক উন্নয়ন, মৌলভীবাজার-রাজনগর-ফেঞ্চুগঞ্জ-সিলেট সড়ক, সিলেট-গোলাপগঞ্জ-চারখাই-জকিগঞ্জ সড়ক সংস্কার করা হয়েছে এ সরকারের আমলেই। ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে দরবস্ত-কানাইঘাট সড়কে ১৮ কিলোমিটার, রশিদপুর-বিশ্বনাথ-রামপাশা-লামাকাজী সড়কের চারটি কালভার্টসহ ৮.৪৪ কিলোমিটার, সিলেট-দাউদাবাদ-মীরগঞ্জ-মানিকোন-ফেঞ্চুগঞ্জ সড়কে পাঁচটি কালভার্টসহ ১.৯১ কিলোমিটার সড়কের
উন্নয়ন করা হয়েছে সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে।

পিরিয়ডিক মেইনটেন্যান্স প্রকল্পের আওতায় ১০ বছরে ২০৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ৩৪৬ কিলোমিটার সড়ক মেরামত ও পুনর্বাসন, বিভিন্ন প্রকল্পের আওতায় আরো ৩৩টি সেতু ও ৬৭টি কালভার্ট নির্মাণ করেছে সিলেট সড়ক বিভাগ। ঢাকা-সিলেট ৩৮০ কিলোমিটার মহাসড়ক চারলেনে রূপান্তরের কাজ এগিয়ে চলছে দ্রুত গতিতে। সিলেটের সড়ক ব্যবস্থার উন্নয়নে আরো বেশ কয়েকটি মেগা প্রকল্প গ্রহণ করেছে নিয়েছে সরকার।

সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ.কে আবদুল মোমেনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরেই এসব উন্নয়ন কর্মসূচির বাস্তবায়ন হয়েছে।

সিলেটের সওজ’র উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. নাজমুল ওয়াহেদ চৌধুরী ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশনা এসেছে ঈদের আগে সিলেটের একটি সড়কও যেন ভাঙাচোরা না থাকে। তাই সমান গুরুত্ব দিয়ে সবগুলো সড়কের উন্নয়ন, সংস্কার করা হয়েছে। সৌন্দর্য বর্ধনে সড়কগুলোর দুই পাশে গাছ লাগানো হয়েছে। বর্ষার কারণে শতভাগ কাজ করা সম্ভব হয়নি। কিছু কিছু কাজ এখনো চলছে। তবে বর্তমানে সড়কগুলো ভালো অবস্থায় আছে। এতে ঈদযাত্রায় কাউকে দুর্ভোগ পোহাতে হবে না।

সিলেট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, সরকারের পর্যাপ্ত পরিকল্পনা রয়েছে। সে অনুযায়ী কাজও হচ্ছে। সিলেটের যোগাযোগ ব্যবস্থায় যথেষ্ট পরিবর্তন এসেছে। অন্যান্য বিভাগের উন্নয়নেও পরিকল্পনা করা হচ্ছে। সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে দেশের প্রতিটি প্রান্তে উন্নয়ন ছড়িয়ে পড়বে।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর