ব্রেকিং:
প্রতিদিন কয়েকবার গরম পানির ভাপ নিয়েছি করোনায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা লোকসান ঠেকাতে সরাসরি ক্ষেত থেকে সবজি কিনছে সেনাবাহিনী করোনা পরীক্ষায় দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ল্যাব যে দোয়ার আমলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ! আল্লাহ তিন ধরনের লোকের দোয়া ফিরিয়ে দেন না করোনা রোগীদের বাড়ি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে জরুরি প্রকল্প বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা পৃথিবীতে খুব কম দেখা যায়: ট্রাম্প গবেষণা প্রটোকল জমা না দিয়েই বিষোদগার করছেন জাফরুল্লাহ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে নিয়োগ করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় মধ্যবিত্তরাও খাদ্যসহায়তার আওতায়: শিল্প প্রতিমন্ত্রী কর্মস্থল ত্যাগকারীদের তালিকা চায় মন্ত্রণালয় নাসিরনগরে শিশু নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ২ দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু
  • শনিবার   ০৬ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৩ ১৪২৭

  • || ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

৪১৫

ঈদে পর্যাপ্ত টাকা থাকবে এটিএম বুথে

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ৬ আগস্ট ২০১৯  

ঈদুল আজহার ছুটিতে সব ব্যাংকের এটিএম বুথে পর্যাপ্ত টাকা থাকবে। এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক নির্দেশ দিয়েছে যে, ঈদের ছুটিতে গ্রাহকদের সুবিধার্থে সব ব্যাংকের এটিএম (অটোমেটেড টেলার মেশিন) বুথে পর্যাপ্ত টাকা সরবরাহ রাখতে হবে। 

পাশাপাশি এটিএম ও পয়েন্ট অব সেল (পিওএস) নেটওয়ার্ক সার্বক্ষণিক সচল থাকার বিষয়টিও নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। 

সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেম বিভাগ এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে দেশের সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে। 

এতে বলা হয়, ঈদুল আজহা উপলক্ষে কেনাকাটা এবং উৎসবকালীন ব্যাংকের শাখা বন্ধ থাকায় গ্রাহকরা অধিকহারে এটিএম বুথ, পিওএস এবং ই-পেমেন্ট গেটওয়ে ব্যবহার করে ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে লেনদেন সম্পন্ন করে। এসব কার্ডভিত্তিক ইলেকট্রনিক লেনদেনে গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণের বিষয়টি নিশ্চিতের জন্য ব্যাংকগুলোকে পাঁচটি পরামর্শ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এগুলো হলো- এটিএম বুথে পর্যাপ্ত নগদ টাকা সরবরাহ করা, এটিএম বুথে সার্বক্ষণিক পাহারাদের সর্তকাবস্থান ও অন্যান্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, এটিএম ও পিওএস মেশিনে সার্বক্ষণিক নেটওয়ার্ক চালু রাখা, বন্ধ বা অচল এটিএম বুথের সামনে নোটিশ টানানোর ব্যবস্থা করা, কোনো ব্যাংকের সব এটিএম ও পিওএস সেবা অনিবার্য কারণে বন্ধ থাকলে তাৎক্ষণিকভাবে গ্রাহকদের অবহিত করা।
 
এছাড়াও অনলাইন পেমেন্ট গেটওয়ে-ইন্টারনেট ব্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে দুই স্তরের সিকিউরিটি ভেরিফাইড পিনকোড নিশ্চিত করা, মোবাইল ব্যাংকিং সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকেও ছুটির সময়ে ব্যাংকসমূহ উপরিউক্ত সেবার আওতার সিস্টেম সমূহের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ ঝুঁকি মোকাবিলা করার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। যেকোনো অংকের লেনদেনের তথ্য এসএমএস এলার্ট সার্ভিসের মাধ্যমে গ্রাহককে অবহিত করতে হবে। ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে সবধরনের পরিশোধ সেবার ক্ষেত্রে গ্রাহকদের সতর্কতা অবলম্বনের জন্য গণমাধ্যমে বিভিন্ন রকম প্রচার-প্রচারণার ব্যবস্থা করতে হবে।

সব লেনদেনের ক্ষেত্রে কোনো অবস্থাতেই যেন গ্রাহকরা হয়রানির শিকার না হন, সে বিষয়টি নিশ্চিত করা ও কাস্টমার সার্ভিস সেন্টার চালু রাখা। 

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
অর্থনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর