ব্রেকিং:
সিটি নির্বাচন: দুই হাজার মণ পলিথিন বর্জ্য তৈরির শঙ্কা নবীনগরে চলছে কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা ভাইরাসবাহী সন্দেহে বাংলাদেশীকে ফেরত পাঠালো ভারত একমাত্র ছেলের ছবি বুকে জড়িয়ে রাস্তায় মা মরদেহ আনতে আখাউড়া বর্ডারে হাজার হাজার মানুষ লেবাননে সড়ক দুর্ঘটনায় কসবায় শোকের মাতম প্রতিবন্ধিতা ও বৈষম্যহীন স্বদেশ, কুষ্ঠমুক্ত হোক আমাদের বাংলাদেশ জমে উঠেছে নবীনগর শিক্ষক সমিতির নির্বাচন অটোরিকশা চার্জ দিতে গিয়ে কিশোরের মৃত্যু আখাউড়ায় মাদকসহ ব্যবসায়ী আটক লুকানো গাঁজাসহ মামা-ভাগিনা আটক অসহায় শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ পুকুর দূষণ রোধে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন করোনার চিকিৎসায় এইডসের ওষুধ, সুস্থ হলেন ৪৯ জন! রাতের ঢাকায় মিজানুরের মতো আরো তিন জনকে হত্যা করে তারা নারীদের সুরক্ষা দেবে জাবি শিক্ষার্থীর বানানো ‘অ্যালাই’ গ্রাহককে জিম্মি করে কোটিপতি ইভ্যালি সিভি’র যে ভুলগুলো আপনার জানা জরুরি ইসলামের দৃষ্টিতে মহামারির কারণ ও করণীয় সন্তানরা কোন ধর্মের জানালেন শাহরুখ খান

মঙ্গলবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১৫ ১৪২৬   ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

৩৩১

ঈদের আগে ৯ দিনে সর্বোচ্চ রেমিটেন্সের রেকর্ড

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত: ১৬ আগস্ট ২০১৯  

ঈদুল আজহার আগে প্রবাসীরা বিপুল পরিমাণ অর্থ দেশে পাঠিয়েছেন। এর ফলে চলতি আগস্ট মাসের নয় দিনেই ৭২ কোটি ডলারের রেকর্ড পরিমাণ রেমিটেন্স দেশে এসেছে। 

ব্যাংকারদের মতে, চলতি বাজেটে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সে দুই শতাংশ হারে প্রণোদনা দেয়া হয়। এ কারণে রেমিটেন্স প্রবাহে ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

এবার নতুন অর্থবছর রেমিটেন্স প্রবাহে সুখবর নিয়েই শুরু হয়েছিল। ২০১৯-২০ অর্থবছরের জুলাই মাসে প্রবাসীরা ১৬০ কোটি ডলারের রেমিটেন্স পাঠিয়েছিলেন। ওই অংক ছিল মাসের হিসাবে বাংলাদেশের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। আর গেল বছরের এ মাসের তুলনায় ২১ দশমিক ২০ শতাংশ বেশি। এছাড়া জুলাই মাসের ধারাবাহিকতায় অগাস্ট মাসের শুরুতেও বেশি রেমিটেন্স আসে।

এদিকে কোরবানির ঈদের আগে ৯ আগস্ট পর্যন্ত রেমিটেন্সের তথ্য প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এতে দেখা গেছে, বাংলাদেশে ১ আগস্ট থেকে ৯ আগস্ট পর্যন্ত ৭১ কোটি ৬২ লাখ ডলারের রেমিটেন্স এসেছে।

এর আগে রোজার ঈদকে কেন্দ্র করে মে মাসে ১৭৫ কোটি ৫৮ লাখ ডলার রেমিটেন্স পাঠায় প্রবাসীরা, যা ছিল মাসের হিসাবে বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। এরও আগে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ১৫৯ কোটি ৭২ লাখ ডলার সর্বোচ্চ রেমিটেন্স পাঠিয়েছিল প্রবাসীরা।

পরিসংখ্যান বলছে, প্রবাসীরা ২০১৮-১৯ অর্থবছরে আগের বছরের চেয়ে ৯ দশমিক ৬০ শতাংশ রেমিটেন্স বেশি পাঠিয়েছিলেন। এতে রেমিটেন্সে ২০১৭-১৮ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি ছিল ১৭ দশমিক ৩২ শতাংশ।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম জানান, গেল অর্থবছরের ধারাবাহিকতায় এই অর্থবছরেও ভালো প্রবৃদ্ধি নিয়ে শুরু হয়েছে। কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে পরিবার-পরিজানের কাছে বেশি টাকা পাঠান প্রবাসীরা। এছাড়া বাজেটে প্রণোদনা দেয়ার কারণেও রেমিটেন্স প্রবাহ বাড়ছে।

তবে ঈদের পরের বেশ কিছুটা সময় রেমিটেন্স প্রবাহে কিছুটা ধীরগতি থাকবে বলে এ খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর