ব্রেকিং:
রাস্তায় অসুস্থ প্রতিযোগিতা বন্ধ করুন: প্রধানমন্ত্রী গুজবে কান না দিতে পুলিশের অনুরোধ মহাসড়কে অ্যালকোহল ডিটেক্টর চালু জালের সাথে মানুষের শত্রুতা! চট্রগ্রাম রেঞ্জে শ্রেষ্ঠ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেয়ালের মাংসকে খাসির মাংস বলে বিক্রি, অতঃপর... `সকলের জন্য উন্নত স্যানিটেশন, নিশ্চিত হোক সুস্থ জীবন` নৈরাজ্য তৈরির জন্যই ভোলায় সংঘর্ষ স্ট্রোকের মৃত্যুকে হত্যাকাণ্ড বলে মামলা দায়ের সীমান্তে দুই নাইজেরিয়ান আটক বয়স বাড়িয়ে প্রেমিকাকে বিয়ে, কারাগারে প্রেমিক প্রভাবশালীর দাপটে নদীর মাটি যাচ্ছে ইট ভাটায় দূর্যোগ মোকাবেলায় সরকার সবোর্চ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে ব্লেড দিয়ে কেটে স্কুলছাত্রীকে নির্যাতন উচ্চ রক্তচাপ কমানোর সহজ মন্ত্র প্রধান শিক্ষকের প্রেমে মজে পঞ্চমবারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে শিক্ষিকা ক্রিকেটারদের ধর্মঘট নিয়ে যা বললেন গাঙ্গুলি বান্দরবানে টিয়েন্স গ্রুপের তিন যুবক আটক কে জিতবেন ব্যালন ডি’অর? ফুসফুসের ক্যান্সার প্রতিরোধের মহৌষধ!

বুধবার   ২৩ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৭ ১৪২৬   ২৩ সফর ১৪৪১

১০৬

আইনমন্ত্রীর ছেলে পরিচয়ে হুইপের মেয়েকে উত্ত্যক্ত

প্রকাশিত: ২৭ জুলাই ২০১৯  

আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের ছেলে পরিচয়ে, জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা গিনির মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার ঘটনায়, এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার যুবকের নাম আকতার হোসেন (২৩)।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রাম থেকে, তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার আকতার হোসেন ইষ্টগ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (কসবা সার্কেল) আব্দুল করিম জানান, সকালে আকতারের নানা বাড়িতে অভিযান চালিয়ে, তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা গিনির মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার বিষয়ে, প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। মামলার তদন্ত চলছে।

জানা যায়, আকতারের নানাবাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে। সে প্রায়ই নানাবাড়িতে আসা-যাওয়া করতেন। তার বাবা আব্দুস সালাম পেশায় একজন মাছ ব্যবসায়ী। কিন্তু আকতার নিজেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা ও আখাউড়া) আসনের সংসদ সদস্য, আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের ছেলে পরিচয় দিয়ে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিল। অথচ আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের কোনো সন্তানই নেই।

আকতার আইনমন্ত্রীর ছেলে পরিচয় দিয়ে, জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা গিনির মেয়েকে ফোনে উত্ত্যক্ত করত। বিষয়টি একপর্যায়ে আইনমন্ত্রীকে জানানো হয়।

এছাড়াও অভিযুক্ত আকতার, কসবা উপজেলার এক যুবককে আদালতে পেশকার পদে চাকরি দেয়ার নাম করে, তার কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে। এসব ঘটনায় আইনমন্ত্রীর সাবেক এপিএস ও বর্তমান কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদুল কাউছার বাদী হয়ে, আকতারের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর