ব্রেকিং:
আজিজুল হকের মায়ের মৃত্যুতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের শোক সরকারি নির্মাণাধীন বাসগৃহ পরিদর্শন করেন ইউএনও মৎস্য ব্যবসায়ীদের বাজার বর্জন বাজার ব্যবস্থাপনা ও সংস্কার কাজ পরিদর্শন আকস্মিক কলেজ পরিদর্শনে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী মধ্যযুগীয় কায়দায় গৃহবধুকে নির্যাতন অতঃপর ৯৯৯-এ ফোন কোচিং বাণিজ্যে ব্যস্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা রেললাইনের পাশ থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার মাদক সেবন ও বিক্রির দায়ে মা-ছেলের কারাদণ্ড ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কওমী মাদরাসার সংবাদ বর্জনের সিদ্ধান্ত সুদমুক্ত ঋণ দিল বসুন্ধরা ফাউন্ডেশন সেচ প্রকল্পের খালে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ ও ময়লার স্তুপ! আত্মসমর্পণ করবেন অর্ধশতাধিক ইয়াবা ব্যবসায়ী সিনহাসহ ১১ জনকে হাজির হতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির নির্দেশ ভুয়া কাবিননামায় লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র গরু ব্যবসায়ীর টাকা হাতিয়ে নিয়ে ফেঁসে গেলেন এসআই মধ্যপ্রাচ্যের প্রভাবশালী দৈনিকে বাংলাদেশি শিশু আইমানের আবিষ্কার! ‘দুর্নীতিবাজ মানুষকে আগে ক্ষমা চাইতে হবে’ জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বরগুলোর রহস্য জেনে নিন অস্ত্রের মুখে অপহরণের পর নারীকে রাতভর ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

বৃহস্পতিবার   ২৩ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১০ ১৪২৬   ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

৫১৭

অতিরিক্ত ফি নেয়া কলেজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার

প্রকাশিত: ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তির সময় যেসব বেসরকারি কলেজ অতিরিক্ত সেশন ফি আদায় করেছে তাদের একটি তালিকা পেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এবার এসব কলেজের বিরুদ্ধে অপরাধের গুরুত্ব বিবেচনা করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, যেসব কলেজ এবার শিক্ষার্থী ভর্তির সময় অতিরিক্ত ফি আদায় করেছে আমরা তাদের একটি তালিকা করে মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি। শিক্ষার্থীদের থেকে বেশি ফি আদায় করা গুরুতর অপরাধ। অনেক প্রতিষ্ঠান অতিরিক্ত ফি আদায় করতে চাপ প্রয়োগ করেছে বলেও অভিযোগে উল্লেখ রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কাছে সুপারিশ পাঠানো হয়েছে।

এর আগে, গত মাসের শেষ সপ্তাহে দেশের অতিরিক্ত ফি আদায় করা বেসরকারি কলেজগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মাউশি থেকে একটি আদেশও জারি করা হয়। আদেশটি জারি করেন মাউশির সহকারী পরিচালক ফারহানা আক্তার।

সেখানে বলা হয়, দেশের বিভিন্ন স্থানে এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে ওঠা প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানগুলো সীমা অতিক্রম করেছে। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অতিরিক্ত সেশন ফি ছাড়াও চার-পাঁচগুণ বেশি টাকায় বই, খাতাসহ শিক্ষা উপকরণ কিনতে বাধ্য করা হচ্ছে। 

অতিরিক্ত ফি আদায় করা এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানানো হয়। 

এ বিষয়ে ফারহান আক্তার বলেন, শিক্ষাকে কোনোভাবেই পণ্যায়ন করা যাবে না। শিক্ষা গ্রহণে বা দানে যতটুকু খরচ প্রয়োজন এর বাইরে কোন ব্যবসা করা যাবে না। কিন্তু অনেক কলেজ আছে যারা শিক্ষার্থীদের নিয়ে ব্যবসা খুলে বসেছে। এ কারণে এসব কলেজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন। এ ব্যাপারে পরে জানানো হবে। 

এদিকে মাউশির করা তালিকায় কতগুলো কলেজকে অভিযুক্ত করা হয়েছে সে ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কী ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হবে সে ব্যাপারেও নিশ্চিত করে বলতে পারেনি কেউ। 

প্রসঙ্গত, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নামে ডাকাতি এবং লুটপাট বন্ধ করতে গত ২ জুলাই অতিরিক্ত সেশন ফি নেয়া কলেজগুলোকে বাড়তি টাকা অভিভাবকদের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার আদেশ দেন হাইকোর্ট। এই নির্দেশের পরই দেশের বেসরকারি কলেজে অতিরিক্ত সেশন ফি আদায়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে তালিকা তৈরি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
আলোকিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এই বিভাগের আরো খবর